ক্লাবগুলো নজরদারির এখতিয়ার নেই যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
পর্যালোচনা সভা করেছেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

পর্যালোচনা সভা করেছেন প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

রাজধানীর ক্রীড়া ক্লাবগুলো নজরদারি করার এখতিয়ার যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের নেই বলে জানিয়েছেন এ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। এজন্য ক্লাবগুলোকে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে আইন সংশোধনের তাগিদ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (০১ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী পালন উপলক্ষে বিভিন্ন ফেডারেশনের সঙ্গে পর্যালোচনা সভা শেষে তিনি এ তাগিদ দেন।

তিনি বলেন, ‘বেশিরভাগ ক্রীড়া ক্লাব লিমিটেড কোম্পানি, তাই তাদের ওপর নজরদারি করার এখতিয়ার নেই যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের। আগামীতে যাতে তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা যায়, সেই আইনি অধিকার প্রয়োজন। এখন সময় এসেছে আইন পরিবর্তন করার। ক্রীড়া ক্লাবগুলোর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা উচিত। সেটি করলেই তাদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা যাবে।’

‘বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে আমাদের মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে বছরব্যাপী ৮৯টি ইভেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ৩৯টি আন্তর্জাতিক, বাকিগুলো জাতীয়। এর বাজেট ৩০৬ কোটি টাকা। রাষ্ট্রীয় তহবিল ও স্পন্সরদের সমন্বয়ে এ অর্থ খরচ হবে,’ বলেন প্রতিমন্ত্রী।

আপনার মতামত লিখুন :