মেলবোর্নে আরেকটি সেঞ্চুরির সামনে স্টিভেন স্মিথ

স্পোর্টস এডিটর, বার্তা২৪.কম
স্টিভেন স্মিথের হাফ-সেঞ্চুরি উদযাপন, ছবি: সংগৃহীত

স্টিভেন স্মিথের হাফ-সেঞ্চুরি উদযাপন, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ম্যাচের প্রথম ওভারেই উইকেট পড়ল। অস্ট্রেলিয়ার স্কোরবোর্ডে রান তখন মাত্র ১। আর ম্যাচের প্রথম দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার স্কোরবোর্ডের চেহারা এমন-৪ উইকেটে ২৫৭ রান। স্টিভেন স্মিথ খেলছেন ৭৭ রানে। মেলবোর্ন টেস্টের প্রথম দিনের এই স্কোরবোর্ড নিশ্চয় অস্ট্রেলিয়ার জন্য স্বস্তি ছড়াচ্ছে।

মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড (এমসিজি) এর সঙ্গে স্টিভেন স্মিথের রান সখ্য নতুন কিছু নয়। এখানে আগের ছয় টেস্টে তার চারটি সেঞ্চুরি আছে। এমসিজিতে সেঞ্চুরির সেই আরেটু উন্নত করার সুযোগ এখন তার সামনে। আর ৩৩ রান করলেই ইতিহাসখ্যাত এই মাঠে সাত ম্যাচে তার সেঞ্চুরির সংখ্যা দাঁড়াবে পাঁচে!

বক্সিং ডে’র এই টেস্টে টসে জিতে নিউজিল্যান্ড বোলিং বেছে নেয়। ট্রেন্ট বোল্ট জো বার্নসকে শূন্য রানে বিদায় করে দলকে দারুণ শুরু এনে দেন। কিন্তু ডেভিড ওয়ার্নার ও দুর্দান্ত ফর্মে থাকা মারনাস লাবুশেন শুরুর সেই ধাক্কা কাটিয়ে উঠেন। ওয়ার্নার তার স্বভাবসুলভ ভঙ্গিতেই আক্রমণাত্মক ক্রিকেট খেলে যান। নেইল ওয়াগনারের বলে স্লিপে ওয়ার্নারের ক্যাচ ধরেন টিম সাউদি। প্রথম দফায় ক্যাচটা হাতে রাখতে না পারলেও বলের উপর শেষ পর্যন্ত চোখ থাকায় দ্বিতীয় প্রচেষ্টায় ঠিকই বল তালুতে নিলেন সাউদি। চমৎকার ক্যাচ। ৬৪ বলে ৪১ রান করে ফিরেন ওয়ার্নার।

লাবুশেন যেভাবে সামনে বাড়ছিলেন তাকে আরেকটি টেস্ট সেঞ্চুরির স্বপ্ন উঁকি দিচ্ছিল। টেস্ট ক্যারিয়ারে টানা পাঁচটি পঞ্চাশের বেশি স্কোর গড়েন অস্ট্রেলিয়ার নতুন এই সেনসেশন। কিন্তু ৬৩ রানে কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের যে বলে লাবুশেন আউট হলেন সেটা কোনোমতেই উইকেট টেকিং ডেলিভারি নয়!

অফস্ট্যাম্পের বাইরে পড়া বল ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন লাবুশেন। কিন্তু বলটা একটু বেশি বাউন্স পায়। বাড়তি গতি ও উচ্চতা পাওয়া বল লাবুশেনের ডানহাতের কনুইয়ে এসে লাগে। সেখান থেকে বলটা সোজা স্ট্যাম্পে!

গ্র্যান্ডহোমের দিনের শেষ সেশনে ম্যাথু ওয়েডের উইকেটও পান। কিন্তু অন্যপ্রান্তে স্টিভেন স্মিথ ততক্ষণে যে দাঁড়িয়ে গেছেন। নিউজিল্যান্ডের একগাদা বাউন্সার কখনো বুকে নিলেন। কখনো হেলমেটে। কিন্তু জায়গা থেকে টলানো গেল না তাকে। দিনটা শেষ করলেন স্টিভেন স্মিথ অপরাজিত ৭৭ রানে। ২৫ রান করে তাকে সঙ্গ দিচ্ছিলেন ট্রাভিস হেড।

৯০ ওভারে ৪ উইকেটে ২৫৭ রান। ওভারপ্রতি রানের স্বাস্থ্য একটু দুর্বল-২.৮৫। উইকেট অক্ষত রাখার স্বস্তি অস্ট্রেলিয়ার। আর বেশি রান খরচ না করার তৃপ্তি নিউজিল্যান্ডের।

মেলবোর্ন টেস্টের প্রথম দিনের লড়াই আপাতত সমানে সমান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: প্রথম দিন শেষে

অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ২৫৭/৪ (৯০ ওভারে, ওয়ার্নার ৪১, লাবুশেন ৬৩, স্মিথ ৭৭*, ওয়েড ৩৮, হেড ২৫*, গ্র্যান্ডহোম ২/৪৮)।

আপনার মতামত লিখুন :