তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের সহায়তায় মোসাদ্দেক

স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মুখে হাসি ফোটালেন মোসাদ্দেক

তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের মুখে হাসি ফোটালেন মোসাদ্দেক

  • Font increase
  • Font Decrease

মানুষ এখন ঘরবন্দী। করোনা যুদ্ধে জিততে হলে যে এর কোনো বিকল্প নেই। কিন্তু এটা করতে গিয়ে গরীব-দুঃখী মানুষের আয়-রোজগার বন্ধ হয়ে গেছে। তাই ২০০ অসহায় ও ছিন্নমূল মানুষের মুখে এর আগে হাসি ফুটিয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। ময়মনসিংহ নগরের ২০০ দুস্থ মানুষের হাতে এক সপ্তাহের খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছেন বাংলাদেশের এ তারকা ক্রিকেটার।

ফের মানবিক সহায়তা নিয়ে হাজির হলেন তারকা এ অলরাউন্ডার। তবে এবার তার উদ্যোগটা একটু ভিন্নধর্মী। পিক-আপ ভর্তি খাদ্য সামগ্রী নিয়ে মোসাদ্দেক এবার দাঁড়ালেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের পাশে।

সাহায্যের হাত বাড়িয়ে নিজের অফিসিয়্যাল ফেসবুক পেজে দিয়েছেন একটি পোস্ট। যাতে সমাজের তৃতীয় লিঙ্গের মানুষের সহায়তায় অন্যরাও এগিয়ে আসেন।

ফেসবুকে একটি ছবি দিয়ে মোসাদ্দেক লিখেছেন, ‘আমাদের সমাজের যদি সবচেয়ে অবহেলিত কেউ থেকে থাকে তারা হলেন 'তৃতীয় লিঙ্গ বা 'ট্রান্সজেন্ডার'। আমি পার্সোনালি উনাদের, আপনি করে বলি। কখনো হিজড়া বলে ডাকি না। কেমন জানি মনে হয় দূরে ঠেলে দিচ্ছি তাই আরকি...।’

‘প্রথমত আমরা তাদের অনেকেই মানুষ হিসেবে গোনায় ধরি না, যদি ধরিও তবেও তারা আমাদের থেকে নিচু প্রজাতিরই ভেবে থাকি। যা কিনা খুবই লজ্জাজনক।’

‘অনেকেই দেখছি গরীব দুঃখী, অসহায় মানুষকে ত্রাণ দিচ্ছে। প্যাকেট ভরে ভরে। যা আমি খুবই সম্মানের সাথেই দেখছি। তবে আমি অনেকটাই নিশ্চিত যে আমার পোস্ট দেখার পর অনেকের মনে হবে ওরে ওরাও তো আমাদের মাঝে ছিল। উনাদের নিয়ে তো ভাবা হলো না। কিছু করা হলো না। ওদের অবস্থান আমাদের সমাজে কোথায় এ থেকেই বোঝা যাচ্ছে।’

‘আমরা যেন ভুলে না যাই তারাও আমাদের মতোই মানুষ। এই পরিচিতি কবে আমরা মন থেকে বিশ্বাস করব আমি জানি না। এইভাবে আমরা চেষ্টা করব এগিয়ে আসতে। জাতি, ধর্ম, বর্ণ এর ভেদাভেদ আর কতো? মানসিকতা একটু পরিবর্তনের সময় চলেই এসেছে।’

আপনার মতামত লিখুন :