জীবন দিয়ে ছেলেকে বাঁচালেন রেসলার গ্যাসপার্ড

স্পোর্টস ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে সাগরে ডুবে মরলেন গ্যাসপার্ড, ছবি: সংগৃহীত

ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে সাগরে ডুবে মরলেন গ্যাসপার্ড, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সন্তানের জন্য বাবারা সব কিছুই করতে পারেন। এমনকি নিজের জীবনটাও দিতে পারেন বিনা দ্বিধায়। চিরন্তন সেই সত্যটা প্রমাণ করলেন সাবেক মার্কিন রেসলার শ্যাড গ্যাসপার্ড। ডব্লিউডব্লিউই’র ৩৯ বছরের এই তারকা জীবনের বিনিময়ে বাঁচালেন নিজের ১০ বছরের ছেলেকে।

লকডাউন শিথিল হওয়ায় খুলে দেওয়া হয়েছিল ক্যালিফোর্নিয়ার ভেনিস সমুদ্র সৈকত। গত রোববার দশ বছরের ছেলে আরিয়েহকে নিয়ে সাঁতার কাটছিলেন রেসলার থেকে অভিনেতা বনে যাওয়া গ্যাসপার্ড। কিন্তু হঠাৎ করেই তীব্র স্রোত ভাসিয়ে নিয়ে যায় দুজনকে। তাদেরকে বাঁচানোর জন্য ৫০ গজ দূর থেকে এগিয়ে যান এক লাইফগার্ড।

বাবা-ছেলেকে বাঁচানোর জন্য লাইফগার্ড রেসকিউ ক্যান বাঁধার চেষ্টা করেন। ২ মিটার উঁচু টেউয়ে ছেলে আরিয়েহ কিছুতেই রেসকিউ কেন বাঁধতে পারছিল না। দুজনকে এক সঙ্গে আনাও সম্ভব ছিল না। সাড়ে ৬ ফিটের গ্যাসপার্ডের ১২৩ কেজি ওজনই ঝামেলা সৃষ্টি করে। বিপদ বুঝতে পেরে শুধু ছেলেকে বাঁচানোর অনুরোধ করেন গ্যাসপার্ড। তার শেষ কথা ছিল, ‘আমার ছেলেকে বাঁচান, শুধু ওকে বাঁচান।’

তার ছেলেকে তীরে রেখেই গ্যাসপার্ডকে উদ্ধার করতে ফের গিয়ে ছিলেন লাইফগার্ড। কিন্তু ৬০ সেকেন্ডের মধ্যে গিয়েও তাকে আর পাননি ওই উদ্ধারকর্মী। বিশাল টেউ তাকে পানির নিচে নিয়ে যায়। আর উঠে আসতে পারেননি শক্তিমান এই রেসলার।

সাত বার উদ্ধার অভিযান চালিয়েও লাভ হয়নি। ১৬৫ ঘণ্টার অভিযান ও ৭০ নটিক্যাল মাইল এলাকায় খুঁজেও গ্যাসপার্ডকে যাওয়া যায়নি। বুধবার সকালে সাগর তীরে ভেসে আসা তার মৃতদেহ পাওয়া যায়। ক্যালিফোর্নিয়ার পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস খবরটা নিশ্চিত করেছে।

আপনার মতামত লিখুন :