করোনার দুঃসময়ে ক্রীড়াবিদদের পাশেই আছেন ক্রীড়ামন্ত্রী

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ক্ষতিগ্রস্ত আরও দেড়শ ক্রীড়াবিদের পাশে দাঁড়ালেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

ক্ষতিগ্রস্ত আরও দেড়শ ক্রীড়াবিদের পাশে দাঁড়ালেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাসের এই দুঃসময়ে অসহায়দের পাশে থাকছে সরকার। বাদ যাচ্ছেন না দুস্থ ক্রীড়াবিদরাও। করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ১৫০ ক্রীড়াবিদকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল এমপি।

সরকারের মানবিক সহায়তার অংশ হিসেবে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ ও বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার দেওয়া হয় এই সহায়তা।

দুপুরে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সভাকক্ষে এক অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে অস্বচ্ছল ক্রীড়াবিদদের হাতে আর্থিক সহায়তার এ চেক তুলে দেন তিনি। এর আগে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী প্রায় ছয় শতাধিক ক্রীড়াবিদকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করেছেন। সব মিলিয়ে করোনার দুঃসময়ে ক্রীড়াবিদদের পাশেই আছেন জাহিদ আহসান রাসেল।

প্রাণঘাতী এই ভাইরাস মোকাবেলা প্রসঙ্গে জাহিদ আহসান রাসেল জানালেন সুখবর। সরকার আরও তিন কোটি টাকা দুস্থ ক্রীড়াবিদদের জন্য বরাদ্দ করেছে। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বলেন, 'প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সরকার করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় ক্রীড়াবিদদের জন্য আরো ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। এ সংক্রান্ত নীতিমালা প্রণয়নের কাজ চলছে। অচিরেই এ অর্থ দেশের তৃণমূল পর্যায়ের ক্রীড়াবিদদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। এছাড়াও বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন হতে প্রায় ১১৫০ জন ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠককে প্রতিমাসে ২০০০ টাকা করে এক বছরে মোট ২৪,০০০ টাকা প্রদানের লক্ষ্যে কাজ করছি আমরা।'

ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, 'আমরা করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত সকল অসহায় ক্রীড়াবিদদের পাশে দাঁড়াতে চাই। সরকারের মানবিক সহায়তার অংশ হিসেবে এটি আমাদের ধারাবাহিক কার্যক্রম। এটি অব্যাহত থাকবে। তিনি আরও বলেন, শুধু ক্রীড়াবিদই নয়, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত কোচ, কর্মকর্তা ও ক্রীড়া সংগঠকদের কিভাবে সহযোগিতা করা যায় সেটি নিয়েও ভাবছি আমরা।'

এ সময়ে যুব ও ক্রীড়া সচিব মোঃ আখতার হোসেন, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব মোঃ মাসুদ করিমসহ মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও বিভিন্ন ক্রীড়া ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।