জিদানের ডাবল সেঞ্চুরির ম্যাচে রিয়ালের জয়



স্পোর্টস এডিটর, বার্তা২৪.কম
ম্যাচ জয়ের আনন্দে রিয়াল তারকারা

ম্যাচ জয়ের আনন্দে রিয়াল তারকারা

  • Font increase
  • Font Decrease

রিয়াল মাদ্রিদের কোচ হিসেবে এটি ছিল জিনেদিন জিদানের ২০০ তম ম্যাচ। ক্লাবের ইতিহাসে তৃতীয় কোচ হিসেবে জিদান এই মাইলফলক স্পর্শ করলেন। কোচের রেকর্ডের সেই ম্যাচ রিয়াল জিতল ৩-১ গোলে। সেই সঙ্গে পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার সঙ্গে ব্যবধানও কমিয়ে আনল রিয়াল। ২৮ ম্যাচ শেষে বার্সার পয়েন্ট ৬১। সমান ম্যাচে রিয়াল ৫৯ পয়েন্ট নিয়ে রিয়াল মাদ্রিদ দ্বিতীয় স্থানে।

রিয়ালের হোম ভেন্যূ বার্নাব্যুতে চলছে এখন পুনঃনির্মান কাজ। তাই হোম ভেন্যুর ম্যাচগুলো রিয়াল খেলছে আলফ্রেডে ডি স্টেফানো স্টেডিয়ামে। মূলত এটি রিয়ালের অনুশীলনের মাঠ। এইবারের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাস কালে আবার মাঠে ফেরার ম্যাচে রিয়াল এগিয়ে যায় ম্যাচের শুরুতেই। চার মিনিটের সময় দারুণ এক বোঝাপড়ায় দুর্দান্ত গোল করেন টনি ক্রুস। কোনাকুনি থেকে আসা তার শট এতই নিখুঁত ছিল যে দেখে মনে হচ্ছিল খাতার মধ্যে স্কেল রেখে একটা সরলরেখা টেনে দিয়েছেন জার্মানির এই তারকা। শূন্যে ঝাঁপিয়েও বলে হাত লাগাতে পারেননি এইবারের গোলরক্ষক।

বিরতির আগে আরো দুই গোল পায় রিয়াল। সার্জিও রামোস গোল করেন ৩০ মিনিটে। ৭ মিনিট পরে মার্সেলো লিড বাড়ান ৩-০ তে। গোল করার পর আমেরিকায় নিহত জর্জ ফ্লয়েডের স্মরণে মাঠেই হাঁটু গেড়ে শ্রদ্ধা জানান মার্সেলো।

৩-০ গোলে এগিয়ে থাকা রিয়াল মাদ্রিদকে দ্বিতীয়ার্ধে হয়ে গেল পুরোপুরি নিস্প্রভ। বিশেষ করে লেফট ব্যাক মার্সেলোর খেলায় ক্লান্তির ছাপটা স্পষ্ঠ চোখে পড়ে। রিয়ালের এই মরচে পড়া খেলার সুযোগে ম্যাচের ৬০ মিনিটের সময় এইবার একটা গোল শোধ করে। পেদ্রো বাইগাস দলের হয়ে গোলটি করেন। ম্যাচে ঐ একটি গোল শোধ করা ছাড়া এইবার বলার মতো আর কিছু করতে পারেনি। জিদানের মাইলফলকের ম্যাচটা আনন্দ নিয়েই শেষ করে রিয়াল।

ফ্রান্সের বিশ্বকাপ জয়ী তারকা জিদান এখন কোচ হিসেবে রিয়াল মাদ্রিদে এখন দ্বিতীয় মেয়াদে দায়িত্ব পালন করছেন। কোচ হিসেবে রিয়ালে ২০০ ম্যাচে জিদানের ট্রফি জয়ের সংখ্যা ১০টি।  

১৪ জুন রাতে লা লিগায় অন্য ম্যাচে অ্যাথলেটিকো বিলবাও ও অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদ ১-১ গোলে ম্যাচ  ড্র করেছে। রিয়াল সোসিয়াদ বনাম ওসাসুনার ম্যাচও শেষ হয়েছে ১-১ গোলে।