পয়েন্টে বার্সার সমান কিন্তু শীর্ষে রিয়াল



স্পোর্টস এডিটর, বার্তা২৪.কম
ইনজুরিতে পড়লেন সার্জিও রামোস

ইনজুরিতে পড়লেন সার্জিও রামোস

  • Font increase
  • Font Decrease

রিয়াল মাদ্রিদ জিতেছে ২-১ গোলে। কিন্তু রিয়াল সোসিয়েদাদ যে কায়দায় ম্যাচে ফিরে আসছিল শেষের ২০ মিনিটে সেটাই রিয়াল মাদ্রিদকে আতঙ্কিত করে তুলে। শেষপর্যন্ত ভয় কাটিয়ে লা লিগার এই ম্যাচ থেকে পুরো পয়েন্ট নিয়ে ফিরল রিয়াল। সেই সঙ্গে পয়েন্ট টেবিলে বার্সার সমান অবস্থানে পৌঁছে গেল। ৩০ ম্যাচে উভয় দলের পয়েন্ট ৬৫। কিন্তু মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে থাকার সুবিধায় টেবিলের শীর্ষে আছে রিয়াল মাদ্রিদের নাম।

ম্যাচের প্রথমার্ধ শেষ হয় গোলশূন্যভাবে। ৫০ মিনিটের সময় লাভলি ভিনিসিয়াস জুনিয়র পেনাল্টি বক্সে ফাউল করে বসেন। রেফারি পেনাল্টির বাঁশি বাজান। স্পটকিক থেকে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন সার্জিও রামোস।

বদলি হিসেবে নামা সোসিয়েদাদের আদনান জানুজাজ খানিকবাদে এই গোল শোধও করে দেন। কিন্তু দলের মেরিনো এই সময় অফসাইডে ছিলেন এই যুক্তি দেখিয়ে রেফারি গোলটা বাতিল করে দেন। এই নিয়ে খানিকটা হৈচৈ চলে। মেরিনো অফসাইডে থাকলেও বলে কোন স্পর্শ করেননি। তবে রেফারি জানান-অফসাইডে দাড়িয়ে গোল স্পর্শ না করলেও মেরিনো গোলকিপার থিবাউথ কর্টিয়াসের সামনের পথটা আটকে রেখেছিলেন। গোলকিপারকে ব্লক করে রেখে তিনি খেলায় প্রতিবন্ধকতা তৈরি করেছেন-এই যুক্তিতে সোসিয়েদাদের গোলটি বাতিল হয়।

৭০ মিনিটের সময় ফ্রান্সের তারকা কারিম বেনজামা দুর থেকে উড়ে আসা ফেদেরিকো ভালভেরদের ক্রস কাঁধ দিয়ে নিচে নামিয়ে গোলপোস্টের তাকিয়ে নিশানা ঠিক করে শট নেন। বল জালে। ২-০ গোলের লিড পায় রিয়াল মাদ্রিদ। কাঁধ নিয়ে বল নামানো তে হ্যান্ডবল হয়েছে কিনা- সেজন্য সহকারি ভিডিও রেফারি সময় নেন। কিন্তু ভিডিওতে পরিস্কার দেখা যায় এটি হ্যান্ড বল না। রেফারি গোলের বাঁশি বাজান। টাচলাইনে দাঁড়ানো রিয়াল কোচ জিনেদিন জিদান হাততালি দিয়ে সেই গোলের আনন্দে উচ্ছ্বসিত হন। এই গোলেই যে রিয়াল পয়েন্ট টেবিলে বার্সাকে ছুঁয়ে উপরে চলে গেল। 

৮৩ মিনিটের সময়  মেরিনো একটি গোল শোধ করলে ম্যাচের শেষ ভাগে দারুণ নাটকীয়তার তৈরি হয়। ম্যাচ ড্র করার জন্য মরিয়া চেষ্টা চালায় সোসিয়েদাদ। আর রিয়াল ম্যাচে পয়েন্ট না হারানোর পরিকল্পনার পথে হাঁটে। শেষ পর্যন্ত সেই পরিকল্পনায় সফল হয় তারা।

জয়ের দিনে রিয়ালের জন্য দুঃশ্চিন্তা হলো সার্জিও রামোসের ইনজুরি। পেনাল্টি থেকে গোল করার পর রামোস পায়ের চোট নিয়ে মাঠের বাইরে চলে আসতে বাধ্য হন।

লা লিগায় বার্সেলোনা মঙ্গলবার, ২৩ জুন খেলবে অ্যাথলেটিকো বিলবাও’র বিরুদ্ধে। পরদিন রিয়াল মাদ্রিদ নিজ মাঠে নামবে মায়োরকার বিপক্ষে।