গজারিয়ায় প্রজেক্ট ইনসেপশন ওয়ার্কশপ ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া উপজেলায় হোসেন্দী ইউনিয়নে অবস্থিত আমডা হেলথ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট ডেভেলপমেন্ট সোসাইটির আয়োজনে আমডা বাংলাদেশ কমপ্লেক্সে প্রকল্প অবহিতকরণ সভা (প্রজেক্ট ইনসেপশন ওয়ার্কশপ) ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের অধীনে তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সার্বিক সহায়তায় “ডাউন সিনড্রোম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে।

স্থানীয় পর্যায়ে প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের বিশেষ করে ডাউন সিনড্রোম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বৈশিষ্ট সম্পন্ন ব্যক্তিদের কম্পিউটার প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা উন্নয়ন ও চাকরি বাজারের জন্য উপযোগী করে গড়ে তোলার লক্ষ্য নিয়ে প্রকল্পটি প্রণীত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গজারিয়া উপজেলার সম্মানিত সহকারী কমিশনার (ভূমি) সৈয়দা ইয়াসমিন সুলতানা। বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা জনাব মনসুর আলম, সহকারী প্রোগ্রামার জনাব ওয়াহিদ-উজ-জামান, স্থানীয় সরকারের প্রতিনিধি হিসেবে হোসেন্দী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব মনিরুল ইসলাম মিঠু এবং ডাউন সিনড্রোম সোসাইটি অব বাংলাদেশের ডিরেক্টর শাহানাজ পারভিন চৌধুরী।

উত্তম হাওলাদারের সঞ্চালনায় এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আমডা বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক সরদার এ. রাজ্জাক।

অনুষ্ঠানের শুরুতে সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন আমডা বাংলাদেশের প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর জনাব আরিফ হোসেন মোল্লাহ।

গজারিয়ায় প্রজেক্ট ইনসেপশন ওয়ার্কশপ ও কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধন

বিশেষ অতিথির ভাষণে উপস্থিত সুধীবৃন্দ সময় উপযোগী এ প্রকল্পটি চালু করার জন্য আমডা বাংলাদেশের কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তারা বলেন, এ প্রকল্প বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে স্থানীয় পর্যায়ে ডাউন সিনড্রোম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের দক্ষতা বৃদ্ধি ও ক্ষমতায়ন নিশ্চিত হবে। বর্তমান সরকারের গৃহীত তথ্য প্রযুক্তি সেবা আধুনিকায়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যমাত্রার সাথে সঙ্গতি রেখে প্রনীত এই বিশেষ প্রকল্পটি সরকারের প্রতিবন্ধী বান্ধব কার্যক্রমকে আরও সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে বলে তারা দৃড়মত ব্যক্ত করেন।

প্রধান অতিথির ভাষণে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) সৈয়দা ইয়াসমিন সুলতানা বলেন, বর্তমান সরকার প্রতিবন্ধী বান্ধব সরকার। প্রতিবন্ধীসহ বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের কর্মসংস্থান নিশ্চিত ও জীবনমান উন্নয়নের লক্ষ্যে বর্তমান সরকার ডিজিটালাইজেশনসহ অন্যান্য বাস্তব সম্মত ও যুপোপযোগী কার্যক্রম হাতে নিয়েছে।

সভাপতির বক্তব্যে আমডা বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক জনাব সরদার এ রাজ্জাক, এই বিশেষ প্রকল্পটি অনুমোদন করার জন্য সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগকে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের জীবনমান উন্নয়ন বর্তমানে আমডা বাংলাদেশের মূলধারার একটি কার্যক্রম। বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ডাউন সিনড্রোম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ব্যক্তিদের দক্ষতা উন্নয়নের মাধ্যমে কর্মক্ষম করে গড়ে তোলার লক্ষ্যে আমডা বাংলাদেশ নানাবিধ উদ্ভাবনী ও কমিউনিটি চাহিদা ভিত্তিক প্রকল্প বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। এছাড়া ডাউন সিনড্রোম ইন্টারন্যাশনালের ইনক্লুশন ওয়ার্কস্ধসঢ়; প্রকল্পের আওতায় ডাউন সিনড্রোম ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী বৈশিষ্ট্য সম্পন্ন ব্যক্তিদের দক্ষতা উন্নয়নমূলক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মক্ষেত্রে প্রবেশগম্যতা বিষয়ে কর্মসংস্থান বিষয়ক এডভোকেসি কার্যক্রম অব্যাহত আছে।

উক্ত অনুষ্ঠানে আমডা বাংলাদেশ ও ডাউন সিনড্রোম সোসাইটি অব বাংলাদেশের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাগণ, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তি, এনজিও কর্মী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিগণ অংশগ্রহণ করেন।