প্রায় ৪০০ কোম্পানির ফেসবুক বয়কট

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ফেসবুকে বিদ্বেষমূলক কিংবা বর্ণবাদ কনটেন্ট বন্ধের দাবিতে যুক্তরাষ্ট্রের স্বনামধন্য কোম্পানিগুলো এই প্ল্যাটফর্মে বিজ্ঞাপন দেওয়া বন্ধ করেছে। এ নিয়ে ৪০০ টিরো বেশি প্রতিষ্ঠান তাদের বিজ্ঞাপন তুলে নিয়ে ফেসবুককে বয়কট করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবার কানাডার বেশকিছু ব্যাংক ফেসবুক বয়কট এবং বিজ্ঞাপন সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

কানাডার রয়াল ব্যাংক, টরোন্টো-ডোমিনিয়ন ব্যাংক, ব্যাংক অব নোভা স্কটিয়া, ব্যাংক অফ মনটেরাল, ন্যাশনাল ব্যাংক অব কানাডা এবং কানাডিয়ান ইম্পেরিয়াল ব্যাংক অব কমার্স যৌথভাবে চলতি জুলাই মাস থেকেই সব ধরনের বিজ্ঞাপন বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে কানাডার অন্যতম বৃহত্তম ডেসজারডিনস গ্রুপ, ফেডারেল ক্রেডিট ইউনিয়ন তাদের ওয়েবসাইটে জানায়, চলতি মাস থেকে ফেসবুকসহ এর আওতাধীন প্রতিষ্ঠান ইনস্টাগ্রামেও বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দেবে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে জর্জ ফ্লয়েড নামের এক কৃষ্ণাজ্ঞ ব্যক্তিকে পুলিশ কর্তৃক শ্বাসরোধ করে হত্যার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়লে ক্ষোভে ফেটে পড়ে মানুষ। যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে কালোদের অধিকার আদায় এবং বর্ণভেদে বৈষম্য বন্ধ করতে গণ বিপ্লব শুরু হয়ে যায়। অনলাইন ও অফলাইনে ‘ব্ল্যাক লাইভস ম্যাটার’ শিরোনামে ক্যাম্পেইন শুরু হয়। যেখানে ফেসবুক সহ অন্যান্য সোশ্যাল সাইটগুলোর বিরুদ্ধে বর্ণবাদ, ঘৃণা, বিদ্বেষমূলক মন্তব্য ছড়ানোর অভিযোগ ওঠে।

ফেসবুকের একজন মুখপাত্র জানান, ফেসবুক কর্তৃপক্ষ সিভিল রাইটস অডিট গঠন এবং উগ্র শ্বেতাঙ্গ জাতীয়তাবাদ সমর্থন করে এমন ২৫০ টি প্রতিষ্ঠানকে ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রামে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় ৯০ শতাংশ ঘৃণাবাচক মন্তব্য ঠেকাতে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স (এআই) উন্নয়নে কাজ করছে।

এপর্যন্ত ফেসবুক থেকে বিশ্বের স্বনামধন্য কোম্পানি ফোর্ড, অ্যাডিডাস, এইচপি, কোকাকোলা, ইউনিলিভার, স্টারবার্কস এবং মাইক্রোসফটসহ ৪০০ কোম্পানি তাদের বিজ্ঞাপন বন্ধ করে দিয়েছে।

সূত্র: গ্যাজেটস নাও

আপনার মতামত লিখুন :