গ্রুপসেরা হয়ে নকআউট পর্বে ইংল্যান্ড
ব্রুনো ফার্নান্দেজও বলছেন গোলটি রোনালদোর

ব্রুনো ফার্নান্দেজও বলছেন গোলটি রোনালদোর

কাতার বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচ শেষে তিনটি দল শেষ ষোলোয় পৌঁছেছে। ফ্রান্সের পর গতরাতের শেষ দুই ম্যাচ থেকে নকআউট পর্বে গেছে ব্রাজিল ও পর্তুগাল।

ব্রাজিল ১-০ গোলে সুইজারল্যান্ডকে এবং পর্তুগাল ২-০ গোলে হারিয়েছে উরুগুয়েকে।

এদিকে পর্তুগালের ম্যাচে একটি গোল বিতর্কের জন্ম দিয়েছে। গোলটি ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নাকি ব্রুনো ফার্নান্দেজের বিতর্ক এনিয়েই। এনিয়ে খেলার সময়ে নানা কথা হয়েছে। 

ম্যাচের ৫৪ মিনিটে ব্রুনো ফার্নান্দেজের ক্রস থেকে গোলটি করেন বিশ্বফুটবলের এই মহাতারকা। গোল হওয়ার পরেই তার স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে উল্লাস করেন রোনালদো। দুহাত তুলে সমর্থকদের অভিবাদন জানান। ব্রুনো ফার্নান্দেজসহ দলের অন্যরাও এই উদযাপনে অংশ নেন। প্রথমে তার নামেই গোলটি দেওয়া হয়।

সেই সময়ে ফিফার স্কোর শিটেও গোলটি ছিল রোনালদো নামে। ফিফা আনুষ্ঠানিকভাবে রোনালদোর নামে গোলটি দেখায়। কিন্তু কিছুক্ষণ পর সিদ্ধান্ত বদলায় তারা। ফিফা জানায়, ব্রুনোর ক্রসটি রোনালদো মাথা স্পর্শ করেনি, সরাসরি চলে যায় উরুগুয়ের জালে। ফলে এই গোল ব্রুনোর।

রোনালদো নিজেও তার অভিব্যক্তিতে ব্যাপারটি নিয়ে কিছুটা বিস্ময় প্রকাশ করেন, মাথা দেখিয়ে বারবার বলার চেষ্টা করেছিলেন ফার্নান্দেজের ক্রসে তিনি হেড করেছেন।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড নিয়ে সাম্প্রতিক বিতর্কে রোনালদো-ব্রুনোর দূরত্ব তৈরি হয়েছে এমন এক আলোচনার সময়ে ব্রুনো ফার্নান্দেজও মনে করছেন গোলটি রোনালদো করেছেন। 

ব্রুনো বলেছেন, আমার মনে হচ্ছে, বলটা ক্রিশ্চিয়ানোর মাথা স্পর্শ করেছিল। গোলটা সে-ই করেছে। তবে আসল ব্যাপার হচ্ছে, আমরা ম্যাচটা জিতেছি এবং আমরা শেষ ষোলোতে জায়গা করে নিয়েছি।