Barta24

বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই ২০১৯, ৩ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

পাকিস্তানি সাংবাদিকের জুতার লোগো নিয়ে বিতর্ক

পাকিস্তানি সাংবাদিকের জুতার লোগো নিয়ে বিতর্ক
মিকি আর্থারের সাক্ষাৎকার নেওয়ার সময় জয়নাব আব্বাসের জুতায় বাংলাদেশের পতাকার সদৃশ লোগো দেখা যায়/ ছবি: সংগৃহীত
সেন্ট্রাল ডেস্ক
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

টেন স্পোর্টস ও সনি ইএসপিএন-এর হয়ে কাজ করেন পাকিস্তানি ক্রীড়া সাংবাদিক জয়নাব আব্বাস। পাকিস্তানের প্রথম সারির পত্রিকা ‘দ্য ডন’-এ নিয়মিত কলামও লেখেন তিনি। সেই জয়নাব আব্বাস এবার তার জুতার লোগো নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন।

শুক্রবার (৭ জুন) সকালে আইসিসির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়েছে। সেখানে পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের কোচ মিকি আর্থারের সাক্ষাৎকার নিতে দেখা যায় জয়নাব আব্বাসকে। সেই ভিডিওতে দেখা যায়, জয়নাবের পায়ে একটি সাদা রঙের জুতা পরা। আর সেই জুতার একদিকে একটি লোগো, যা কি না অবিকল বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার মতো দেখতে। দুই পাশে সবুজ, মাঝে লাল অংশ।

এই ভিডিও প্রকাশের পর থেকে জয়নাবের উপর চটেছেন বাংলাদেশি সমর্থকদের একাংশ। কেউ কেউ বলছেন, বাংলাদেশকে হেয় করার জন্যই জয়নাব এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। তবে কিছু সমর্থক তা মানতে নারাজ। তারা বলছেন, জয়নাব ইতালিয়ান ব্র্যান্ড গুচি’র জুতা পরেছেন। আর গুচি এমন রঙের লোগো ব্যবহার করে থাকে। ফলে ব্যাপারটা স্বাভাবিক।

বিশ্বকাপ শুরুর কয়েক দিন আগে বাংলাদেশের চার তারকা ক্রিকেটার- তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মুস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে ছবি তুলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করেন জয়নাব আব্বাস। বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীরা তাকে পছন্দও করতে শুরু করেছিলেন। কিন্তু এই বিশ্বকাপ চলাকালীনই জয়নাব আব্বাস তার জুতার লোগো নিয়ে বিতর্কের মুখে পড়েছেন।

জয়নাবের জুতার লোগো নিয়ে বিতর্ক থামছে না। কিছু সমর্থকের যুক্তি, জনপ্রিয় গুচি ব্র্যান্ড যে চিহ্নটি ব্যবহার করে, তাতে সবুজ রঙের তিনটি সরলরেখার মতো অংশ থাকে। আর মাঝখানে থাকা রেখাটি লাল। তবে জয়নাবের জুতায় থাকা লোগোতে লক্ষ করে দেখা গেছে, মাঝের লাল অংশটুকু বৃত্তের মতো, যেমনটা বাংলাদেশের পতাকাতে রয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা

তুরস্কে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১৫, বাংলাদেশি থাকার আশঙ্কা
তুরস্কে বাস দুর্ঘটনা

দক্ষিণ পূর্ব তুরস্কে এক মিনিবাস দুর্ঘটনায় অন্তত ১৫ জন নিহত হয়েছেন এবং প্রায় ২০ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) এই দুর্ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। এই অবৈধ অভিবাসীদের মধ্যে বাংলাদেশি নাগরিক থাকার সম্ভাবনাও রয়েছে বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা।

তার্কিশ টিভি চ্যানেল এনটিভি'র এক ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, তুরস্কের ভ্যান প্রদেশে এই দুর্ঘটনা ঘটে। পথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি গড়িয়ে একটি খাদে যেয়ে পড়ে।  আহতরা রাস্তার পাশে পড়ে আছে।

এনটিভি জানিয়েছে, বাসটি খাদে পড়ার আগেই কয়েকজন যাত্রী বাস থেকে ঝুলে পড়েন। বাসটির গন্তব্য এবং অভিবাসীদের জাতীয়তা সর্ম্পকে এখনো কিছু জানা যায়নি। ভ্যান প্রদেশের গভর্নর মেহমেত এমিন বিলমেজ এনটিভিকে বলেন, ধারণা করা হচ্ছে, বাসে থাকা যাত্রীরা আফগান, পাকিস্তানি এবং বাংলাদেশি।

 

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২৬

জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে অগ্নিকাণ্ড, নিহত ২৬
জাপানে অ্যানিমেশন স্টুডিওতে আগুন/ছবি: বিবিসি

জাপানের কিয়োটো শহরের একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৬ জন নিহত হয়েছেন। উদ্ধারকৃত ১২ জন আহত এবং ৩০ জনের বেশি নিখোঁজ রয়েছে। 

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) সকালে কিয়োটোর একটি অ্যানিমেশন স্টুডিওর তিনতলা  ভবনে আগুন লাগে।

পুলিশ জানায়, ঘটনার সময় স্টুডিওতে লক্ষ্য করে এক ব্যক্তি তরল দাহ্য পদার্থ নিক্ষেপ করে। পরবর্তীতে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। নিহতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে।

পুলিশ ইতোমধ্যে একজনকে গ্রেফতার করেছে। সন্দেহভাজনের  নাম এখনও  প্রকাশ করা হয়নি।

ফায়ার সার্ভিস কতৃপক্ষ জানায়, তিনতলার প্রতিটি কক্ষই আগুনে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। আহতদের হাসপাতলে নেওয়া হয়েছে।   উদ্ধারকাজ অব্যাহত রয়েছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র