কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে রুদ্ধদ্বার বৈঠক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
চীনের অনুরোধে নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে/ ছবি: সংগৃহীত

চীনের অনুরোধে নিরাপত্তা পরিষদে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনা হবে/ ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার কর্তৃক জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের বিষয়ে আলোচনা করতে রুদ্ধদ্বার বৈঠকে বসবে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলোর প্রতিনিধিরা।

নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি বরাবর পাকিস্তানের লেখা চিঠির পর শুক্রবার (১৬ আগস্ট) যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।

জাতিসংঘের একজন কূটনীতিক বার্তা সংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অব ইন্ডিয়াকে জানান, কাশ্মীর সমস্যা নিয়ে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি বরাবর পাকিস্তানের লেখা চিঠির বরাতে বৈঠকের অনুরোধ করে পরিষদের স্থায়ী সদস্য চীন।

নিরাপত্তা পরিষদের দৈনন্দিন সময়সূচি বলছে, সকাল ১০টায় ভারত/পাকিস্তান বিষয়ে পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠক রয়েছে।

নিরাপত্তা পরিষদের রুদ্ধদ্বার বৈঠকের মানে হলো- সেই বৈঠকে শুধু নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য দেশগুলোর প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করবেন। এর বাইরে আর কাউকে ঢুকতে দেওয়া হবে না। এই বৈঠকের কোনো রেকর্ডও থাকে না। এমনকি সেখানে কোনো সাংবাদিককেও ঢুকতে দেওয়া হয় না।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/16/1565932341732.gif

জাতিসংঘের ইতিহাস বলে, সর্বশেষ জম্মু ও কাশ্মীর নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যকার বিরোধ বিষয়ে আলোচনা হয় ১৯৬৪ সালে। ঐ বছর ১৬ জানুয়ারি পাকিস্তান নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি বরাবর কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে জরুরি বৈঠকের অনুরোধ জানায়।

ঐ সময় ভারত পাকিস্তানের অনুরোধকে গুজবের আশ্রয় হিসেবে অ্যাখ্যায়িত করে।

কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সিদ্ধান্তের পর পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশি নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতি বরাবর এক চিঠিতে জরুরি বৈঠকের অনুরোধ জানান। জাতিসংঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মালিহা লৌদির মাধ্যমে নিরাপত্তা পরিষদের বর্তমান সভাপতি পোল্যান্ডের রাষ্ট্রদূত জোয়ান্না রনেকা বরাবর এ অনুরোধ জানানো হয়।

নিরাপত্তা পরিষদে পাকিস্তানের অনুরোধে কাশ্মীর ইস্যু নিয়ে আলোচনার জন্য পাকিস্তানকে আশ্বস্ত করে চীন। দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই পাকিস্তানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরেশিকে বলেন, ‘কাশ্মীর ইস্যুতে ন্যা বিচারের জন্য কথা বলবে চীন।’

এদিকে গত সোমবার চীন ও ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ইকে ভারতীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস. জয়শঙ্কর জানান, কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিলের সিদ্ধান্ত ভারতের অভ্যন্তরীণ বিষয়।

আপনার মতামত লিখুন :

এ সম্পর্কিত আরও খবর