দাবানলে পুড়ছে আমাজন!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দাবানলে পুড়ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় 'রেইনফরেস্ট' বনভূমি আমাজন। পৃথিবীর ২০ শতাংশ অক্সিজেন সরবরাহকারী এ বনভূমিকে 'পৃথিবীর ফুসফুস' বলা হয়ে থাকে।

বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, প্রতিমিনিটে আমাজনের ১০ হাজার বর্গমিটার এলাকা পুড়ে যাচ্ছে। এ বনভূমির ৬০ শতাংশই ব্রাজিলে অবস্থিত।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/22/1566488384771.jpg

 

এরইমধ্যে ব্রাজিলের রোন্ডানিয়া, অ্যামাজোনাস, পারা, মাতো গ্রোসো অঞ্চলের কিছু অংশে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে।

এবারের অগ্নিকাণ্ড এ যাবৎকালের মধ্যে সবচেয়ে বড় বলে জানায় ব্রাজিলের মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট ফর স্পেস রিসার্চ। বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে এমন আগুন লাগার ঘটনা ঘটছে বলে তারা দাবি করেন।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/22/1566488486116.jpg

 

প্রতিবেদনে আরও জানানো হয়, প্রায় ১৬,০০০ প্রজাতির কয়েক হাজার কোটি গাছ রয়েছে এ বনভূমিতে। শুষ্ক আবহাওয়া, তাপমাত্রা বৃদ্ধি ও বাতাসের ফলে এ আগুন ক্রমশ আরও ছড়িয়ে পড়ছে।

পরিবেশবিদরা জানান, আমাজন জঙ্গল সংলগ্ন আমাজোনাস ও রোনডোনিয়া অঞ্চলের বনের আগুনের ধোঁয়া ২ হাজার ৭০০ কিলোমিটারের বেশি দূরত্ব অতিক্রম করে সাও পাওলোতে এসে পৌঁছেছে। ধোঁয়ায় সাও পাওলো শহরের চারিদিকে ঢেকে গিয়েছে বলেও জানান তারা। 

প্রতিবছরেই এমন আগুন লাগার ঘটনা ঘটে আমাজনে। ২০১৮ সালে ৭ হাজার ৫০০ কিলোমিটার এলাকা আগুনে পুড়ে গেছে। যেখানে ২০১৭ সালের তুলনায় ৬৫ শতাংশ বেশি বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়। এদিকে শুধু গতমাসেই ২ হাজার ২০০ কিলোমিটার এলাকা আগুনে পুড়ে গেছে।

পরিবেশিবিদরা আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন, খুব তাড়াতাড়ি এ আগুন নেভানো না গেলে বিশ্বের জলবায়ুতে বড় ধরণের পরিবর্তন আসতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন :