বাংলাদেশি গবেষকের আটার যৌগিক কৌশল উদ্ভাবন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
বাঁ থেকে গবেষক গাজী রফিক ও প্রফেসর ড. শেখ নজরুল ইসলাম / ছবি: বার্তা২৪

বাঁ থেকে গবেষক গাজী রফিক ও প্রফেসর ড. শেখ নজরুল ইসলাম / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

মানব শরীরের প্রয়োজনীয় পুষ্টির অভাবে বিশ্বব্যাপী বেশ কিছু রোগ মহামারী আকারে দেখা দিয়েছে। তার মধ্যে ডায়াবেটিস, হৃদরোগ,ক্যান্সার অন্যতম। এ রোগগুলো নিরাময় কঠিন। তবে চাল ও গমের পুষ্টি উপাদান ব্রান এই রোগগুলোর প্রতিরোধ ক্ষমতা মানুষের শরীরে তৈরি করতে পারে। তাই চাল ও গমের ব্রান যৌক্তিক অনুপাতে মিশিয়ে এক যৌগিক আটার কৌশল উদ্ভাবন করেছে বাংলাদেশি গবেষক।

বৃহস্পতিবার (৩১ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই উদ্ভাবনী প্রকাশ করেন গবেষক গাজী রফিক।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের মার্কেটগুলোতে যে সকল চাল পাওয়া যায় সেগুলো বেশিরভাগই পলিস্ট অথবা মেশিনে ছাঁটাই করা হয়ে থাকে। এতে চালের মূল পুষ্টি উপাদান ব্রান থাকে না। এ কারণে বর্তমানে আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে যাচ্ছে। তবে মানুষের খাবারের মধ্যে পুষ্টিগুণ ফিরিয়ে আনতে গম ও চালের খোসা ছারিয়ে ব্রান ঠিক রেখে যৌক্তিক অনুপাতে আমরা এই আটা উদ্ভাবন করেছি। যা আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করবে।’

বাংলাদেশে আটা ও চাল উৎপাদনকারী যে সকল কোম্পানি আছে তাদের কাছে কৌশলটি দিয়ে এই আটা বাজারজাত করতে চান তিনি।

এ বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইএনএফএস বিভাগের ডিরেক্টর প্রফেসর ড. শেখ নজরুল ইসলাম বলেন, ‘প্রাণের এই কনসেনট্রেটেড নিউট্রিয়েন্ট সোর্সকে নানা দেশে ফুড এডিটিভ হিসেবে ব্যবহার করা হয় এবং ড্রাগ ও নিউট্রিসিটিক্যালেও এই উপাদান ব্যবহার করা হয়। এরপর থেকে রাইস ব্রান অয়েল আমাদের দেশে, ইন্ডিয়া ও থাইল্যান্ডে তৈরি হচ্ছে। যার উপকারিতা অনেক বেশি। এই ব্র্যান্ডের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন, মিনারেল, ফাইবার ও অ্যান্টি অক্সিডেন্ট প্রোপার্টিজ। দীর্ঘ গবেষণা পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ট্রিয়াল অ্যান্ড এরর প্রসেসে শেষ পর্যন্ত সফস্টিকেটেড এই ফর্মূলাটি সুনির্দিষ্ট করতে সম্ভব হন গাজী রফিক। যা এই আটার মধ্যে ১ শতাংশ থেকে ১.৪ শতাংশ মাত্রায় ব্রান নির্ণয় করা সম্ভব হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই ব্রান ফাইবার অ্যান্টি অক্সিডেন্ট প্রোপার্টিজ মানুষের কোলেস্টেরল, উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ, হৃদ রোগ, ডায়বেটিস, বাওয়েল ক্যান্সারসহ আরও বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধের ভূমিকা রাখে।’

আপনার মতামত লিখুন :