প্রশাসনকে সোমবার পর্যন্ত সময় দিলেন ভিপি নুর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
রাজু ভাস্কর্যের সামনে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর, ছবি: বার্তা২৪

রাজু ভাস্কর্যের সামনে সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দিচ্ছেন ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর, ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের (এসএম হল) ঘটনার বিচারের জন্য আগামী সোমবার (৮ এপ্রিল) পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে সময় দিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সহ-সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

বুধবার (৩ এপ্রিল) বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্রের (টিএসসি) রাজু ভাস্কর্যের সামনে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই আল্টিমেটাম দেন। 

নুরুল হক নুর বলেন, ‘এসএম হলের ঘটনায় উপাচার্য আমাদের ডেকেছিলেন এবং তিনি বিচার করবেন বলে আশ্বস্ত করেছেন। তাই আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের যে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলাম। আমরা সোমবার পর্যন্ত দেখব, সেজন্য কর্মসূচি স্থগিত করেছি।'

মো. ফরিদ হাসান নামে এসএম হলের এক আবাসিক ছাত্রকে সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে মারধর করে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা হল থেকে বের করে দেয়।

ওই ঘটনার বিচারের দাবিতে মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) বিকালে এসএম হল প্রধ্যাক্ষকে স্মারকলিপি দিতে গেলে গেলে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের তোপের মুখে পড়েন ভিপি নুর। এ সময় নুরের ওপর ডিম নিক্ষেপ করে হলের ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা।

সংবাদ সম্মেলনে ফরিদ হাসান তাদের সঙ্গে ছিলেন। এ সময় সোমবার রাতের ঘটনার বর্ণনা দেন তিনি। 

তিনি জানান, ডাকসু নির্বাচনে এসএম হল সংসদের স্বতন্ত্র প্যানেলের সাধারণ সম্পাদক (জিএস) প্রার্থী হয়েছিলেন, যার কারণে ডাকসু নির্বাচনের আগে তাকে হলে বের করে দেওয়া হয়েছিল।

নির্বাচনের পর হলে এসে নিজের পড়াশোনা চালিয়ে যাচ্ছিলেন, কিন্তু সোমবার (১ এপ্রিল) রাতে তাকে হল শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা মারধর করে আবারও হল থেকে বের করে দেয় বলেও অভিযোগ করেন এই ছাত্র।

এ সময় তিনি বলেন, 'এসব ঘটনার বিচার না হলে একের পর এক এই ঘটনা ঘটবে।' জড়িতদের বিচার চেয়ে তিনি হল প্রাধ্যক্ষ ও প্রক্টরের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

এদিকে, ভিপি নুরের সঙ্গে হল প্রাধ্যক্ষের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে ডিম নিক্ষেপসহ হেনস্তার শিকার হন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীরাও। শামসুন নাহার হল সংসদের ভিপি তাসনিম আফরোজ ইমি এ অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, এ ধরনের ন্যাক্কারজনক ঘটনার যদি বিচার না হয়, তাহলে এর চরম মূল্য দিতে হবে।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান বার্তা২৪.কমকে বলেন, এ ঘটনায় একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে জড়িতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: ভিসির বাসার সামনে অবস্থান নিয়েছেন ভিপি নুর

আপনার মতামত লিখুন :