Alexa

চট্টগ্রামের বাণিজ্য মেলা শেষ মুহূর্তে জমজমাট

চট্টগ্রামের বাণিজ্য মেলা শেষ মুহূর্তে জমজমাট

চট্টগ্রামের বাণিজ্য মেলা শেষ মুহূর্তে জমজমাট। ছবি: বার্তা২৪.কম

শেষ মুহূর্তে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের ভিড়ে জমে উঠেছে চট্টগ্রামের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা।

গত শুক্রবার, শনিবার ও রোববার (১৪ এপ্রিল) ছুটির দিন ও বৈশাখের বর্ষ বরণ-বিদায়কে কেন্দ্র করে দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত ছিল মেলা প্রাঙ্গণ। টিকিট কাউন্টারে দীর্ঘ সময় লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করে মেলায় ঢুকতে হয়েছে সবাইকে। কেনা আর দেখার আনন্দ পেতে ভিড় ঠেলে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে মেলায় এসেছেন অনেকেই।

এর আগের দিন শুক্রবারও ছুটির দিন হওয়ায় বিকেল থেকেই সব বয়সী দর্শনার্থী ভিড় করেন মেলায়। মেলায় এসে অনেক কেনাকাটাও করেছেন ক্রেতারা। এতে বিক্রেতাদের মুখেও দেখা গেছে সন্তুষ্টির ছাপ।

মেলায় বেস্ট বাইয়ের বিক্রেতা সরওয়ার আলম বার্তা২৪.কমকে জানান, শুক্রবার আর শনিবার এই দুইদিন অনেক বেচাকেনা হয়েছে। মেলার শেষের দিকে ক্রেতা বেশি দেখা যাচ্ছে।

এদিকে রোববার (১৪ এপ্রিল) দুপুরের পর থেকে ভিড় ক্রমেই বাড়তে শুরু করে মেলা প্রাঙ্গণে। বিকেলে মেলার মাঠ পুরোপুরি ভরে ওঠে। দুপুরের মধ্যেই গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য নির্ধারিত রেলওয়ে ফলোগ্রাউন্ড স্কুল মাঠ পূর্ণ হয়ে যায়।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Apr/15/1555307449012.gif

শেষ দিন সোমবার মেলা ঘুরে দেখা গেছে, অন্যান্য দিনের তুলনায় সব স্টল-প্যাভিলিয়নে ক্রেতা, বিক্রেতা ও দর্শনার্থীরা ব্যস্ত সময় পার করছে। শেষ মুহূর্তে মেলায় বেশিরভাগ পণ্যে ছাড় ও নানা অফার থাকায় বেচাকেনাও জমে উঠেছে। পোশাক, গৃহস্থালিসামগ্রী ও খাদ্য পণ্যের প্রতি ক্রেতাদের আগ্রহ ছিল বেশি। পাশাপাশি ফার্নিচারের বেচাকেনাও জমে উঠেছে। মেলার মধ্যে শিশু পার্কে নাগর দোলাসহ বিভিন্ন ধরনের বিশেষ বিনোদনের ব্যবস্থা রয়েছে।

মেলায় ব্যতিক্রমী আয়োজন করেছে পুলিশের পরামর্শ স্টল ও ফায়ার সার্ভিসের স্টল।

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বার্তা২৪.কমকে জানান, ২৭তম আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় এবার শুরুতে ব্যবসা ভালো করতে পারেনি বিক্রেতারা। তাই মেলার মেয়াদ আরও কয়েকদিন বাড়ানো হয়েছে। এ মেলা শুরু হয়েছিল ৬ মার্চ। মাসব্যাপী মেলা ৬ এপ্রিল শেষ হওয়ার কথা থাকলেও সময় বাড়িয়ে তা ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়। সে হিসাবে আজ মেলা শেষ হচ্ছে। শেষ দিকে মেলায় দর্শনার্থীদের সংখ্যা বেড়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :