Barta24

বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯, ২ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার

ওসি মোয়াজ্জেম গ্রেফতার
ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন, ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম
ঢাকা


  • Font increase
  • Font Decrease

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় পরোয়ানাভুক্ত আসামি ফেনীর সোনাগাজী থানার সাবেক ওসি মোয়াজ্জেম হোসেনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বার্তা২৪.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সদর দফতরের সহকারী মহাপরিদর্শক (এআইজি) সোহেল রানা। রোববার (১৬ জুন) সাড়ে ৩টার দিকে শাহবাগ থানা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

বর্তমানে শাহবাগ থানাতেই তাকে রাখা হয়েছে বলে জানা গেছে। এদিকে আগে গত কয়েকদিন ধরেই ওসি মোয়াজ্জেমকে গ্রফতার করতে অভিযান পরিচালনা করে আসছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, সোনাগাজী ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাহর বিরুদ্ধে যৌন হয়রানি করার অভিযোগে মামলা করেন নুসরাত জাহান রাফির মা শিরিন আক্তার। মামলার পর থেকে অধ্যক্ষ সিরাজ উদ দৌলাহ ও তার অনুসারীরা বিভিন্নভাবে নুসরাত ও তার পরিবারকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিতে থাকেন। এ ব্যাপারে থানায় শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানাতে গেলে মোয়াজ্জেম তার ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেন।

ভিডিওতে দেখা যায়, নুসরাতকে বেশ কিছু আপত্তিকর প্রশ্ন করেন তিনি। নুসরাতের মৃত্যুর পর ভিডিওটি ব্যাপকভাবে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। ঢাকায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সৈয়দ সাইয়েদুল হক এ ঘটনায় বাদী হয়ে মোয়াজ্জেম হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

আপনার মতামত লিখুন :

'শিশুদের মোবাইল ব্যবহার বন্ধ করা সমাধান নয়'

'শিশুদের মোবাইল ব্যবহার বন্ধ করা সমাধান নয়'
সাংবাদিকদের মুখোমুখি বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, ছবি: বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম

শিশুদের মোবাইল ব্যবহার বন্ধ করে দিলে কোনো সমাধান হবে না বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

বুধবার (১৭ জুলাই) বিকালে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সম্মেলন কক্ষে ডিসি সম্মেলনের চতুর্থ দিনের ষষ্ঠ অধিবেশন শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

ডিসিদের কি ধরনের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, 'আমি যেটা তাদের বলেছি, তৃণমূলে তারাই কিন্তু নেতা। ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে তারাই কিন্তু মানুষকে টেনে আনবেন।'

মন্ত্রী বলেন, 'সেখানে তারা (ডিসি) আমাকে প্রশ্ন করেছিল, বাচ্চাদের মোবাইল ব্যবহারের কারণে নানা রকম সমস্যা হচ্ছে। এটা কিন্তু পার্ট। এটা আমাদের কাটিয়ে উঠতে হবে। আমরা এর থেকে দূরে সরে গেলে, বন্ধ করে দিলে এর থেকে কিছু হবে না। সেই কথাগুলো বললাম, আমাদের একচুয়ালি এগুলো ফাইন্ড করে এগোতে হবে। আমাদের মানসিকতা ওইভাবে তৈরি করতে হবে যে, আমি এই রকম পর্যায়ে যেতে চাই।'

তিনি আরও বলেন, 'বাংলাদেশ কোথায় উঠবে এটা বাঙালিও হয়তো অনেক সময় জানে না। কিন্তু আমাদের চাওয়াটা আকাশচুম্বী। কবিতা দিয়ে বলেছিলাম, বাঙালির চাওয়া আকাশ ছোঁয়া কথাটা চমৎকার। বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১ এর প্রমাণ।'

৩২০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করল ডিএসই

৩২০ কোটি টাকার রাজস্ব আদায় করল ডিএসই
ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ

 

বিদায়ী (২০১৮-১৯) অর্থবছরে ৩২০কোটি ১৫ লাখ টাকার রাজস্ব আদায় করেছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) কর্তৃপক্ষ। এর আগের বছর একই সময়ে রাজস্ব আদায় হয়েছিলো ২৭২ কোটি ২৭ লাখ টাকা।  যা আগের বছরের চেয়ে ৪৭ কোটি টাকা বেশি। এই টাকা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) দিয়েছে ডিএসই।

ডিএসইর তথ্য মতে, বিদায়ী বছরে আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ৫৩বিধির ধারা অনুযায়ী ব্রোকারেজ কোম্পানি থেকে উৎসে কর ১৪৫ কোটি ৯৫ টাকা ও আয়কর অধ্যাদেশ ১৯৮৪ এর ৫৩এম ধারা অনুযায়ী স্পন্সর এবং প্লেসমেন্ট শেয়ারহোল্ডারদের সিকিউরিটিজ বিক্রয় বাবদ ১০৪ কোটি ৭৩ লাখ টাকা দিয়েছে ডিএসই।

এছাড়াও ইনকাম ট্যাক্স অর্ডিন্যান্স ১৯৮৪ সেকশন ৫৩এন অনুযায়ী শেয়ারহোল্ডারদের শেয়ার বিক্রি বাবদ মূলধনী আয়ের ওপর ৫৬ কোটি ৬০ লাখ টাকা এবং ইনকাম ট্যাক্স অর্ডিনেন্স ১৯৮৪ সেকশন ৫৪ অনুযায়ী শেয়ারহোল্ডারদের লভ্যাংশ আয়ের ওপর উৎসে কর ১২ কোটি ৮৬ লাখ টাকার রাজস্ব আদায় করেছে ডিএসই।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র