Alexa

ভারতীয়রা পাচ্ছে ৫ বছরের ভিসা

ভারতীয়রা পাচ্ছে ৫ বছরের ভিসা

কলকাতা থেকে ফিরে: ভারতীয় নাগরিকদের বাংলাদেশে আসার জন্য ৫ বছরের ভিসা দিচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। আগে সাধারণত দুই বছরের বেশি ভিসা দেয়া হতো না প্রতিবেশি দেশের নাগরিকদের। কলকাতায় বাংলাদেশ উপ-দূতাবাসের একজন কর্মকর্তা জানান, প্রয়োজনীয় ও বৈধ কাগজপত্র জমা দিলে ব্যবসায়ীদের ৫ বছরের মাল্টিপল ভিসা দেয়া হচ্ছে।

গত বৃহস্পতিবার ৫ বছরের ভিসা পেয়েছেন অমলেন্দু সরকার। তিনি চট্টগ্রামের মদুনাঘাটের অধিবাসী ছিলেন ও ১৯৭১ সালের বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন। বর্তমানে কলকাতার শোভাবাজারে স্থায়ীভাবে বসবাস করছেন মুক্তিযোদ্ধা অমলেন্দু সরকার।

তিনি বলেন, ‘পাসপোর্টের সঙ্গে ব্যাংক স্ট্যাটমেন্ট, ট্রেড লাইসেন্স, জাতীয় পরিচয়পত্র ও মুক্তিযোদ্ধার সার্টিফিকেট জমা দিয়েছিলাম। দিনে দিনে আমাকে ৫ বছরের মাল্টিপল ভিসা দিয়েছে। এর আগে আমি সর্বোচ্চ দুই বছরের মাল্টিপল ভিসা পেয়েছিলাম।’

সূত্র জানায়, প্রতি কর্মদিবসে এখন প্রায় ৫০০ জনকে ভিসা দেয়া হচ্ছে। দুই বছর আগেও এ সংখ্যা ছিল ২৫০ জন। ২০১৭ সালের শুরুর দিকে ভিসা পদ্ধতি আধুনিকায়ন অর্থাৎ কম্পিউটারাইজড করা হয়। এর আগে হাতে লিখে এসব কাজ করা হতো।

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2018/Aug/13/1534149739945.jpg

কলকাতার পার্ক সার্কাস এলাকায় অবস্থিত বাংলাদেশ উপ-দূতাবাস। ভারতের দূতাবাসসহ মোট ৫টি ভিসা কেন্দ্র রয়েছে। দিল্লি, মুম্বাই, কলকাতা, আগরতলা, গৌহাটি থেকে ভিসা দেয়া হচ্ছে বাংলাদেশে আগত ভারতীয় নাগরিকদের।

১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান স্বাধীনতা ঘোষণার পর ১৭ এপ্রিল এই উপ-দূতাবাসের বাঙালি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বাংলাদেশের পক্ষে অবস্থান নেয়। সেখানে কর্মরত পাকিস্তানিদের বের করে দিয়ে বাংলাদেশকে প্রথম স্বীকৃতি দেয়।

মূলত: ব্যবসায়ী, বাংলাদেশে কর্মরত বিভিন্ন পেশাজীবী, বাংলাদেশ থেকে ভারতে গিয়ে স্থায়ী বসবাসকারীরা ভিসা নিতে ভিড় জমায় দূতাবাস ও উপ-দূতাবাসে। পর্যটকের সংখ্যাও আছে, তবে তা অনেক কম। সবচেয়ে বেশি ভিসা ইস্যু করা হয় কলকাতা সেন্টার থেকে।

আপনার মতামত লিখুন :