জাপানি বিনিয়োগকারীদের নিজ দপ্তর ছেড়ে দিতে প্রস্তুত পলক!

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিতে বিনিয়োগ করতে আগ্রহ দেখিয়েছে জাপানি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। তাই বাংলাদেশ থেকে দক্ষ প্রযুক্তি কর্মী নেয়ার জন্য প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ ও অফিস কার্যক্রম পরিচালনা করতে জায়গা চেয়েছিলো জাপানি প্রতিনিধিরা। তবে ঢাকার কারওয়ান বাজারে অবস্থিত জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কে আর কোনো স্পেস না ফাঁকা  নেই।

এ কারণে নিজের দপ্তরটি জাপানি প্রতিষ্ঠানকে ব্যবহার করতে দিতে প্রস্তুত তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

শনিবার বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের সভাকক্ষে এক অনানুষ্ঠানিক সভায় Japan External Trade Organization Dhaka (JETRO) কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভকে এই আমন্ত্রণ জানান তিনি।

পলক বলেন বাংলাদেশ শুধু জাপানের সঙ্গে ব্যবস্যাই নয় বরং জাপানের সঙ্গে বাংলাদেশের যে ঐতিহাসিক সম্পর্ক রয়েছে তাকে আরো দৃঢ় করতে চায়। প্রতিমন্ত্রী ‘জাপান-বাংলাদেশ আইসিটি ডেভেলপমেন্ট সেন্টার’ (Japan-Bangladesh ICT Development Center) চালু করার প্রস্তাব দেন, এর মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে জাপানের সঙ্গে বাংলাদেশের সহযোগিতার ক্ষেত্র আরো প্রসারিত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

এছাড়াও তিনি বাংলাদেশের সঙ্গে জাপানের সাংস্কৃতিক বন্ধনকে আরো মজবুত করতে ‘যৌথ ভাষা ও সংস্কৃতি চর্চা কেন্দ্র’ (Combined Language & Cultural Center) চালু করারও প্রস্তাব দেন।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (সচিব) হোসনে আরা বেগম বাংলাদেশে সরাসরি বিনিয়োগের ক্ষেত্রসমূহ নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেন।

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যেই জাপান-বাংলাদেশের যৌথ মালিকানাধীন কোম্পানি BJIT  কাজ করে চলেছে। বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষ একে প্রাইভেট সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক হিসেবেও ঘোষণা করেছে।

আপনার মতামত লিখুন :