Barta24

রোববার, ১৮ আগস্ট ২০১৯, ৩ ভাদ্র ১৪২৬

English

সরকারের প্রতিটি সেক্টর ডিজিটালাইজেশন করা হবে

সরকারের প্রতিটি সেক্টর ডিজিটালাইজেশন করা হবে
স্মার্টফোন ট্যাব মেলা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার/ ছবি: বার্তা২৪.কম
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে দুর্নীতি দূর করার জন্য ২০১৯ সালে বিভিন্ন সেক্টরকে ডিজিটাল করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১ হাজার ৬০০টি সেক্টরের ডিজিটালাইজেশনের প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

বৃহস্পতিবার (১০ জানুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্টফোন ট্যাব মেলা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা জানান।

মোস্তফা জব্বার বলেন, ‘বাংলাদেশে স্মার্টফোনের চাহিদা অনেক বেড়েছে কিন্তু গ্রে মার্কেটের কারণে এই স্মার্টফোনের চাহিদাটুকু দেখা যাচ্ছে না। তাই সরকার পরিকল্পনা নিয়েছে একটি আইএমইআই ডাটাবেজের মাধ্যমে বাংলাদেশের প্রত্যেকটি স্মার্টফোনকে একটি ডাটাবেজের আওতায় এনে স্মার্টফোনের মার্কেটকে আরো সুসংহত করার।’ 

তিনি বলেন,‘সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল কৃষি ভিত্তিক একটি দেশকে তথ্য প্রযুক্তির একটি দেশে পরিণত করার। এখন বলতে পারি, বাংলাদেশ স্মার্টফোন আমদানিকারক নয় বরং উৎপাদকের দেশে পরিণত হয়েছে।এই দেশ এক সময় মোবাইলের যন্ত্রাংশ উৎপাদন ও রফতানি করবে।’

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক বলেন, ‘শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট ফর টেকনোলজি' (SHIFT) তৈরির  মাধ্যমে দেশে ডিজিটাল বিপ্লবের শুরু হবে। যা এই দেশ এখন তরুণ প্রজন্মকে তথ্য প্রযুক্তিতে দক্ষ করে তোলার পাশাপাশি এদেশে প্রত্যেকটি মানুষকে তথ্য প্রযুক্তির আওতায় নিয়ে আসবে।’

 

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন হুয়াওয়ের কনজ্যুমার বিজনেস গ্রুপ বাংলাদেশের মারকেটিং ডিরেক্টর ঈগল সং, স্যামসাং মোবাইল বাংলাদেশ-এর জেনারেল ম্যানেজার বোমিন কিম, ট্রানশান বাংলাদেশ লিমিটেডের সিইও রেজওয়ানুল হক, ভিভো বাংলাদেশের কান্ট্রি প্রজেক্ট ম্যানেজার অ্যাঙ্গাস, উই কম্পানির চেয়ারম্যান সৈয়দ ফারুক আহমেদ, স্মার্ট টেকনোলজিস বিডি লিমিটেডের ডিরেক্টর সাকিব আরাফাত ও এক্সপ্লোরের কৌশলগত পরিকল্পনাকারী মাহমুদ খান।

আপনার মতামত লিখুন :

বাড়ানো যাবে ইন্টারনেটের মেয়াদ

বাড়ানো যাবে ইন্টারনেটের মেয়াদ
ছবি: সংগৃহীত

গ্রাহকদেরকে অব্যবহৃত ডেটা ব্যবহারের সুযোগ দিতে ইন্টারনেট মেয়াদ বাড়ানোর সুবিধা সম্বলিত ফ্রিডম প্যাক নামে একটি অফার এনেছে রবি।

রোববার (১৮ আগস্ট) চালু হওয়া এই ফ্রিডম প্যাক কিনে ৩১৬ টাকায় ২৮ দিন মেয়াদে ৪ জিবি, ১০৮ টাকায় সাতদিন মেয়াদে ৩ জিবি এবং ৫৪ টাকায় তিনদিন মেয়াদে ২ জিবি ডেটা ব্যবহার করা যাবে।

এই তিন প্যাকেজের অব্যবহৃত ডেটা ২৩ টাকা রিচার্জ করে আরও ৩ দিন ব্যবহার করা যাবে। এছাড়া, অফারটি নিয়ে গ্রাহকরা ১ জিবি ডেটা ও ২০৫ এমবি ডেটা পাবেন বোনাস হিসেবে।

ভুটানের রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে বাংলাদেশি চ্যাটবট সল্যুশন

ভুটানের রাষ্ট্রীয় ব্যাংকের ওয়েবসাইটে বাংলাদেশি চ্যাটবট সল্যুশন
ব্যাংক অব ভুটান-এর ওয়েবসাইট/ ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশি বহুজাতিক প্রতিষ্ঠান রিভ সিস্টেমসের তৈরি চ্যাটবট সমাধান ‘রিভ চ্যাট’ ব্যবহার শুরু করেছে ‘ব্যাংক অব ভুটান’। এই সুবিধা যুক্ত হওয়ার ফলে এখন থেকে www.bob.btয়েবসাইট ও ফেসবুক পেজে ভিজিটররা বিশ্বের যেকোনো জায়গা থেকে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন লাইভ চ্যাটের মাধ্যমে তাদের কাঙ্ক্ষিত গ্রাহকসেবা পাবেন।

রোববার (১৮ আগস্ট) রিভ সিস্টেম জানায়, চলতি মাসের শুরুর দিক থেকে ‘রিভ চ্যাট’ ব্যবহার শুরু করেছে ভুটানের রাষ্ট্রীয় এই ব্যাংক। চ্যাটবট হলো এক ধরনের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন সফটওয়্যার যা একজন ওয়েবসাইট ভিজিটরের সঙ্গে প্রচলিত ভাষায় চ্যাট করতে পারে।

প্রতিষ্ঠান সূত্রে জানা গেছে, এই সমাধানে ‘চ্যাটবট’ (স্বয়ংক্রিয় প্রশ্নোত্তর) ও ‘হিউম্যান এজেন্ট’ দুটিরই সমন্বয় করা হয়েছে। ফলে একজন ভিজিটর চ্যাটবটের কাছ থেকে FAQ এর মাধ্যমে তার উত্তর পেয়ে যাবেন সহজেই এবং চাইলে সরাসরি এজেন্টের সঙ্গেও চ্যাট করতে পারবেন। লাইভ চ্যাট ছাড়াও এতে ভয়েস কল, ভিডিও কল, স্ক্রিন শেয়ার ইত্যাদি সুবিধা রয়েছে যা দ্রুত গ্রাহকসেবা প্রদানে দারুণ কার্যকর।

একজন ভিজিটর চ্যাট শেষে সম্পূর্ণ চ্যাট ট্রানস্ক্রিপ্টটি তার ইমেইলে পেয়ে যাবেন। অন্যদিকে ওয়েবসাইট কর্তৃপক্ষ গ্রাফিক্যাল ও টেক্সটচুয়াল প্রেজেন্টেশনের মাধ্যমে রিপোর্ট দেখতে পারবেন, যার উপর ভিত্তি করে বট ও এজেন্টের পারফর্মেন্সকে আরও উন্নত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া যাবে।

এ বিষয়ে রিভ গ্রুপের গ্রুপ সিইও এম. রেজাউল হাসান বলেন, ‘কয়েক বছর ধরে বিশ্বের প্রায় ৭০টি দেশের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে রিভ চ্যাট-এর লাইভ চ্যাট সমাধানটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ব্যাংক অব ভুটান-এর মাধ্যমে আমাদের চ্যাটবটের আন্তর্জাতিক বাজার শুরু হলো।’

বর্তমানে গ্রামীণ ফোন, সাউথইস্ট ব্যাংক, কমার্শিয়াল ব্যাংক অফ কুয়েত, আইসিআইসিআই প্রুডেন্স ইন্ডিয়া, টেলিকম নেটওয়ার্ক মালাউই এর মতো কোম্পানিগুলো রিভ সিস্টেমের চ্যাটবট ব্যবহার করে আসছে।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র