Barta24

সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬

English

ফটো প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করলো পিক্সমামা

ফটো প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করলো পিক্সমামা
ছবি: সংগৃহীত
স্টাফ করেসপন্ডেন্ট
বার্তা২৪.কম


  • Font increase
  • Font Decrease

ফটোআপলোডিং ভিত্তিক ই-কমার্স ওয়েবসাইট পিক্সমামা আয়োজিত ফটো কনটেস্ট প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়েছে। উদীয়মান ফটোগ্রাফারদের এটিকে পেশা হিসেবে বেছে নেয়ায় উৎসাহিত করতে এ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।
রবিবার(১৩ জানুয়ারি) ফটো আপলোডের সংখ্যার ওপর ভিত্তি করে নির্বাচিত বিজয়ীদের রাজধানীর গুলশানে রবির কর্পোরেট অফিসে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানটি আয়োজন করা হয়।

এতে প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হিসেবে ফ্রিল্যান্স ফটোগ্রাফার তানভীর অনিক ৫০ হাজার টাকা, এছাড়াও  আয়মান নাকিব ও তপন কর্মকার ও তৃতীয় হিসেবে নির্বাচিত হন।

প্রতিযোগিতায় চতুর্থ থেকে দশম স্থান অধিকারীরা প্রত্যেকে ২ হাজার টাকা করে পুরস্কার পান।

এছাড়াও ১১ থেকে ২০তম স্থান অধিকারীরা পান ১ হাজার টাকা এবং ২১ থেকে ৩০তম স্থান অধিকারীদের প্রত্যেকে ৫০০ টাকা দেয়া হয়। পুরস্কারের পাশাপাশি বিজয়ীদের স্ক্রেট, সার্টিফিকেট ও টি-শার্ট উপহার দেওয়া হয়।
বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন (বিপিজেএ)-এর সভাপতি গোলাম মোস্তফা, প্রখ্যাত ফটোগ্রাফার হাসান চন্দন, প্রীত রেজা, প্রথম আলোর সিনিয়র ফটো জার্নালিস্ট আবদুস সালাম অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।
এছাড়া উপস্থিত ছিলেন রবি’র চিফ ডিজিটাল সার্ভিসেস অফিসার শিহাব আহমেদ, হেড অব কর্পোরেট ও রেগুলেটরি অ্যাফেয়ার্স সাহেদ আলম, হেড অব এন্টারপ্রাইজ বিজনেস মো. আদিল হোসেন এবং পিক্সমামা’র সিইও ও প্রতিষ্ঠাতা মো. মোস্তাফিজুর রহমান।
প্রতিযোগিতায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তের ৮শ’র এর বেশি ফটোগ্রাফার ৯ হাজারের বেশি ফটো আপলোড করেন। ২০১৮ সালের ১০ ডিসেম্বর শুরু হওয়া প্রতিযোগিতাটি শেষ হয় ৩১ ডিসেম্বর।

উল্লেখ্য রবি’র কর্মীদের ডিজিটাল উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তুলতে নেয়া আর-ভেঞ্চার প্রকল্পের আওতায় পিক্সমামা স্বাধীন ব্যবসা হিসেবে কার্যক্রম পরিচালনা করছে  

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখল হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ের হ্যান্ডসেট ওয়াই৯ প্রাইম, ছবি: সংগৃহীত

বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরার মোবাইল ফোন ওয়াই৯ প্রাইম এখন বাংলাদেশের বাজারে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি। এতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই মোবাইল ফোনটিতে আরও থাকছে ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সঙ্গে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে, যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের।

হুয়াওয়ের ওয়াই৯ প্রাইম হ্যান্ডসেটটির পেছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপআপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোনো নচ বা হোল থাকবে না।

পপআপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখবারের চেয়ে বেশি ওঠানামা করবে এর পপআপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলি অ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে

বাংলাদেশের পপআপ ক্যামেরার জগতে পা রাখলো হুয়াওয়ে
হুয়াওয়ে পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম

হুয়াওয়ের প্রথম অটো পপআপ ক্যামেরা ফোন এখন বাংলাদেশে বাজারে। প্রথমবারের মতো সর্বশেষ প্রযুক্তির এই অটো পপআপ ক্যামেরার ফোন ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ নিয়ে এসেছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে।

রোববার (২৫ আগস্ট) থেকে বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।ফোনটিতে থাকছে হাই-পারফরমেন্সের চিপসেট, ইএমইউআই ৯.০ অপারেটিং সিস্টেম, ট্রিপল এআই ক্যামেরা ফিচার, দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।

মধ্যম বাজেটের এই ফোনটিতে আরও থাকছে  ৬.৫৯ ইঞ্চি বিশিষ্ট ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে। নো হোল, নো নচ, নন-ডিউড্রপ ডিজাইনের ফোনটির ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লের উপরে ব্যবহার করা হয়েছে ছোট ব্যাজেল। এতে কিরিন ৭১০এফ প্রসেসরের সাথে ৪ জিবি র‌্যাম এবং ১২৮ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ব্যবহার করা হয়েছে। যা মাইক্রো এসডি কার্ড দিয়ে ৫১২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ফলে ফোনের স্টোরেজ নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকবে না গ্রাহকদের। হুয়াওয়ের ওয়াই নাইন প্রাইম ২০১৯ হ্যান্ডসেটটির পিছনে থাকছে তিনটি ক্যামেরা। ১৬, ৮ ও ২ মেগাপিক্সেলের তিনটি ক্যামেরার জন্য ফোনটিতে ছবি পাওয়া যাবে নিখুঁত ও স্পষ্ট। ১৬ মেগাপিক্সেলের পপ আপ ক্যামেরাটি ব্যবহারকারীদের ফুল ডিসপ্লে সুবিধা যেখানে কোন নচ বা হোল থাকবে না।

পপ আপ সেলফি ক্যামেরাটি ১৫ কিলোগ্রাম পর্যন্ত বাহ্যিক চাপ সহ্য করতে পারবে। এক লাখ বারের চেয়ে বেশি উঠা নামা করবে এর পপ আপ ক্যামেরা। ৪ হাজার মিলিঅ্যাম্পায়ার ব্যাটারি থাকায় ব্যবহারকারীরা একবার চার্জে দীর্ঘসময় ব্যবহার করতে পারবেন।

অল্পসময়ে চার্জের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে টাইপ-সি চার্জার। স্যাফায়ার ব্লু, অ্যামেরালড গ্রীন ও মিডনাইট ব্ল্যাক আকর্ষণীয় এই তিনটি কালারে পাওয়া যাচ্ছে ফোনটি।

প্রিমিয়াম ফিচারের এই ফোনটি পাওয়া যাবে ২৩ হাজার ৯৯৯ টাকায়।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র