পাসওয়ার্ড চুরি ঠেকাতে ৬ পরামর্শ

হাসিবুল হাসান শান্ত,কন্ট্রিবিউটর, বার্তা২৪.কম
ছবিঃ সংগৃহীত

ছবিঃ সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

তথ্য প্রযুক্তির এই আধুনিক বিশ্বে বলে হয় তথ্যই শক্তি। অর্থাৎ যার কাছে যত বেশি তথ্য আছে তার তত শক্তি। কিন্তু বর্তমানে বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশন এইসব তথ্য চুরি করে থার্ড পার্টি বা তৃতীয় পক্ষের কাছে বিক্রি করে দিচ্ছে। যার নেতিবাচক প্রভাব আমাদের ব্যক্তিগত, সামাজিক ও রাজনৈতিক জীবনে পড়ছে।

তাই তথ্য চুরি বন্ধ করতে আপনাদের জন্য রয়েছে ৬টি পরামর্শঃ

১. পাসওয়ার্ড ম্যানেজারঃ আপনার পাসওয়ার্ড কিছুদিন পর পর পরিবর্তন করতে পারেন। কিন্তু অনেকেই আছেন একই পাসওয়ার্ড সব জায়গায় ব্যবহার করেন। এতে করে একটি হ্যাক হলে অন্যগুলোও হ্যাক হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই পাসওয়ার্ড ম্যানেজার আপনার জীবন অনেক সহজ করে দিবে। পাসওয়ার্ড ম্যানেজার আপনার সবগুলো পাসওয়ার্ড এনক্রিপ্ট এবং সুরক্ষিত রাখে। যা প্রয়োজনে কঠিন এবং শক্তিশালী পাসওয়ার্ডগুলো মনে করিয়ে দিবে।

২. ভিপিএনঃ যেখানে সেখানে ওয়াই-ফাই বা পাবলিক ওয়াই-ফাই ব্যবহারের আগে ভিপিএন(ভারচুয়াল প্রাইভেট নেটওয়ার্ক) ব্যবহার করুন।

৩. অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টলে অনুমতিঃ বেশির ভাগ সময়ে আমরা অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করার সময় সেই অ্যাপ্লিকেশনের ‘টার্মস এন্ড কনডিশন’, ‘পলিসি’ ইত্যাদি না পড়েই অনুমতি দিয়ে দেই। এতে করে আমাদের তথ্যাদি যেমন ফোনবুক, ম্যাসেজ, লোকেশন ইত্যাদি তৃতীয় পক্ষের কাছে চলে যায়। তাই যেকোন অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করার আগে উক্ত বিষয়গুলো ঠিকমত বুঝে অনুমতি দিন।

৪. রিসার্চঃ কোন অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করতে গেলে যদি দেখেন এর রেটিং অনেক কম, প্লে প্রোটেক্ট থেকে ভেরিফাইড নয় তাহলে একটু বাড়তি রিসার্চের জন্য গুগল করতে পারেন। শুধুমাত্র গুগলের প্লেস্টোর ও অ্যাপেল স্টোর থেকে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন।

৫. সোশ্যাল মিডিয়াঃ সোশ্যাল মিডিয়া যত বেশি তথ্য দিবেন তত বেশি আপনার তথ্য অন্যদের কাছে চলে যাবে, সে অনুযায়ী বিজ্ঞাপন আসতে থাকবে। এছাড়াও এইসব তথ্যের উপর ভিত্তি করে একজন ব্যবহারকারীর পছন্দ, অপছন্দ, বয়স, ধর্মীয় বিশ্বাস এবং কোন রাজনৈতিক মতবাদে বিশ্বাসী ইত্যাদি তথ্য চলে যায় তৃতীয় পক্ষের কাছে। তাই একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে যতটুকু তথ্য প্রয়োজন ঠিক ততটুকু দিবেন এর বেশি দিতে যাবেন না।

৬. সফটওয়ার আপডেটঃ আপনার ফোনে ব্যবহৃত অ্যাপ্লিকেশনগুলোকে সবসময় আপডেট বা নতুন সংস্করণ টি ব্যবহার করুন। আর ফোনের অটোম্যাটিক আপডেট অপশনটি অন করে রাখুন।

 

আপনার মতামত লিখুন :