বৈদ্যুতিক যানবাহন ব্যবহার কমিয়ে আনে রোগবালাই

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিশ্বজুড়ে মানুষের সংখ্যা বৃদ্ধি, নগরায়ণের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে যানবাহনের সংখ্যা। এতে যানবাহনের শব্দ আর কালো ধোঁয়ায় দূষিত হচ্ছে পরিবেশ। পরিবেশ দূষণের কারণে দিনদিন বাড়ছে হৃদরোগ, ফুসফুস ক্যন্সারসহ নানা রোগ।

মার্কিন গবেষণা প্রতিষ্ঠান লরেন্স বের্কলি ন্যাশনাল ল্যাবরেটরি বলছে, রাসায়নিক মিশ্রণ আছে, এমন দুষিত বায়ুর সংস্পর্শে থাকলে চোখ, নাক বা গলার সংক্রমণ বা ক্ষতির কারণ হতে পারে।

সেই সঙ্গে ফুসফুসের নানা জটিলতা, যেমন ব্রঙ্কাইটিস বা নিউমোনিয়া, মাথাব্যথা, অ্যাজমা এবং নানাবিধ অ্যালার্জির সমস্যা দেখা দিতে পারে। বায়ু দূষণের সঙ্গেও ডায়াবেটিসের সম্পর্ক দেখতে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

এছাড়া  হাইপার টেনশন, আলসার, হৃদরোগ, মাথাব্যথা বা স্নায়ুর সমস্যা, অতিরিক্ত শব্দের পরিবেশে থাকলে শিশুর জন্মগত ত্রুটি তৈরি হতে পারে। শব্দ দূষণের কারণে ব্লাড প্রেশার, শ্বাসের সমস্যা এমনকি হজমের সমস্যার তৈরি হতে পারে। এসব রোগ কমিয়ে আনতে পরিবেশ তথা বায়ু দূষণের ভূমিকা কতটা, যানবাহনের প্রভাব নিয়ে গবেষণা করেন একদল গবেষক।  

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/May/26/1558846595277.jpg

এক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক যানবাহন পরিবেশ দূষণ কমিয়ে উল্লেখযোগ্যহারে মানুষকে এসব রোগ থেকে মুক্তি দিতে পারে বলে মত দিয়েছেন তারা। তারা বলছেন, বৈদ্যুতিক যানবাহন ব্যবহারে রয়েছে স্বাস্থ্যের নানা উপকার। শুধু তাই নয় হালকা ওজন সুবিধা, জ্বালানি সাশ্রয়, পরিবেশ দূষণ রোধ সুবিধা তো রয়েছেই।

নতুন গবেষণা বলছে, তেলে চালিত যানবাহনে বায়ু ও শব্দ দূষণ বাড়িয়ে দেয়। সেক্ষেত্রে বৈদ্যুতিক যানবাহন তা কমিয়ে আনে কয়েকগুণ। মানুষের হৃদরোগ, ফুসফুস ক্যান্সারের হাত থেকে মুক্তি দিতে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখে বৈদ্যুতিক যানবাহন।

গবেষকরা বৈদ্যুতিক যানবাহন তৈরিতে বাড়তি খরচ ও স্বাস্থ্যের ক্ষেত্রে উপকারের তুলনামূলক মাত্রা নিয়ে গবেষণা করেন। তারা বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাণে খরচ, যানবাহন বৃদ্ধি, চার্জিং স্টেশন এসব বিষয় নিয়ে গবেষণা করেন।

এতে তারা মত দেন, তেলেচালিত যানবাহনের চেয়ে বৈদ্যুতিক যানবাহনে সুবিধা অনেক বেশি। এটা সমাজে ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। গবেষণাটি ফলাফলটি আন্তর্জাতিক ইলেকট্রিক এন্ড হাইব্রিড ভেহিক্যাল জার্নালে প্রকাশিত হয়। 

এতে বলা হয়, বৈদ্যুতিক যানবাহন সরকার, যানবাহন নির্মাতা এমনকি ব্যক্তি পর্যায়েও স্বাস্থ্যক্ষেত্রে উপকারী ভূমিকা পালন করে। জলবায়ু পরিবর্তন এবং দূষণের কারণে স্বাস্থ্য ঝুকি কমিয়ে আনতে বৈদ্যুতিক যানবাহনের ব্যবহার বৃদ্ধি অত্যাবশ্যকীয় হয়ে পড়েছে বলে মত দেন তারা।

বিশ্বজুড়ে সালফার ডাই অক্সাইড, নাইট্রোজেন অক্সাইডের মত ক্ষতিকর গ্যাস কমিয়ে আনতে এখনই দরকার বৈদ্যুতিক যানবাহনের ব্যবহার বাড়িয়ে দেওয়া।