সুপার কম্পিউটারের তালিকায় শীর্ষস্থান হারাল চীনা

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
সুপার কম্পিউটার/ ছবি: সংগৃহীত

সুপার কম্পিউটার/ ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বিজ্ঞনের বিস্ময়কর আবিষ্কার হচ্ছে কম্পিউটার। কিন্তু আবিষ্কারের পর থেকে বিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে কম্পিউটারের আকার, কর্মক্ষমতায়ও এসেছে ব্যাপক পরিবর্তন। তবে বর্তমানে বাসা বাড়িতে ব্যবহৃত কম্পিউটার থেকে অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন শক্তিশালী কম্পিউটারকে বলা হয় সুপার কম্পিউটার। যা দিয়ে ৩০ বছরের সংরক্ষিত একটি বিশাল ডেটার হিসাব করতে সময় লাগবে মাত্র এক ঘণ্টা।

কিন্তু বিশ্বের এমন অনেক দেশ আছে যেখানে সুপার কম্পিউটার নেই। অন্যদিকে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশেগুলোতে রয়েছে একের অধিক সুপার কম্পিউটার। আর এই সুপারকম্পিউটারের ভিত্তিতে রয়েছে বিভিন্ন র‍্যাংকিং। এবার সেই তালিকায় পিছিয়ে গিয়েছে চীনা। এর মধ্যে বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী দুটি সুপারকম্পিউটার থাকায় যুক্তরাষ্ট্র প্রথম ও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

বিশ্বের দ্রুততম এসব সুপার কম্পিউটারগুলো ব্যবহার করে বিশাল আকারের কাজ করা যায়। এর মধ্যে যুদ্ধ বিমানের নকশা তৈরিতেও এই কম্পিউটার ব্যবহৃত হয়।

বিশ্বের সর্বোচ্চ শক্তিশালী তিনটি সুপারকম্পিউটার হলো-

১. সামিট - যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি বিভাগে রয়েছে। এই সুপার কম্পিউটারটি তৈরি করেছে আইবিএম।

২. সিয়েররা - যুক্তরাষ্ট্রের জ্বালানি বিভাগে রয়েছে। এটিও তৈরি করেছে আইবিএম।

৩. সানওয়ে তাইহু লাইট– চীনা জাতীয় সুপার কম্পিউটার সেন্টারে রয়েছে। এটি তৈরি করেছে চীনের জাতীয় কম্পিউটার প্রকৌশল ও প্রযুক্তি গবেষণা কেন্দ্র।

বিশ্বের ৫০০ সুপার কম্পিউটারের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রের সুপার কম্পিউটারের সংখ্যা বেড়ে ১০৯ থেকে ১১৬ দাঁড়িয়েছে।

অন্যদিকে সুপার কম্পিউটারের তালিকায় চীনাও ধরে রাখত তাদের শক্ত অবস্থান। তবে এবারে তালিকায় চীনার সুপার কম্পিউটারের সংখ্যা ২২৭ থেকে নেমে ২১৯ এসে দাঁড়িয়েছে।

এছাড়াও বিশ্বের ৫০০ সুপার কম্পিউটারের তালিকার মধ্যে যুক্তরাজ্যে আছে ১৮, ফ্রান্সে ১৮, জাপানে ১৯ এবং জার্মানিতে ১৪ টি সুপারকম্পিউটার রয়েছে।

সূত্র: বিবিসি।

আপনার মতামত লিখুন :