তরুণদের যেসব উদ্ভাবন বদলে দেবে বিশ্ব

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ভারতীয় তরুণদের উদ্ভাবনী আবিষ্কার, ছবি: সংগৃহীত

ভারতীয় তরুণদের উদ্ভাবনী আবিষ্কার, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বর্তমান এই প্রযুক্তির জগতে তরুণ এবং কিশোররাই সবচেয়ে বেশি সরব। তাইতো তাদের হাত ধরেই আসছে নতুন নতুন উদ্ভাবনী আবিষ্কার। যেসব আবিষ্কার পৃথিবীকে আরও সুন্দর এবং বাসযোগ্য করে তুলবে। এমন কিছু উদ্ভাবনী আবিষ্কারের তালিকা প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টাইমস।

অ্যাপ বলে দিবে পরিবেশ দূষিত কিনা

ভারতে দিল্লির ভারতী বিদ্যাপীঠ ইঞ্জিনিয়ার কলেজের তিনজন শিক্ষার্থী এরকম একটি অ্যাপ আবিষ্কার করেন যা দিয়ে বলে দেওয়া যাবে আপনি যেখানে আছেন সেখানের পরিবেশ কতটুকু দূষিত। ‘এয়ার কগনাইজার’ নামের অ্যাপটিতে, আপনি যেখানে আছেন সেই জায়গার ছবি তুলে অ্যাপে পোস্ট করে দিলে তা বলে দিবে সেই জায়গা কতটা দূষিত।

কার্বন ডাই অক্সাইড নিরসন

বেঙ্গালুরের এক কলেজ ছাত্র আবিষ্কার করেছে একটি ফিল্টার ডিভাইস। যা মাটির ভাঙা পাত্র দিয়ে তৈরি করা হয়েছে। এই ডিভাইস দিয়ে মোটর গাড়ি এবং বিভিন্ন কারখানা থেকে উৎপাদিত কার্বন ডাই অক্সাইড ফিল্টার করে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ কমিয়ে আনবে। এছাড়া সেই ডিভাইসটি খাবার পানি ফিল্টার করার জন্যও ব্যবহার করা যাবে।

পানি দূষণ নির্ণয়ে অ্যাপ

গীতাঞ্জলী নামের ১২ বছরের এক কিশোরী সবার জন্য বিশুদ্ধ খাবার পানি নিশ্চিত করতে সে ‘টেথিস’ নামের একটি ডিভাইস তৈরি করেছে। যা দিয়ে খাবার পানি বিশুদ্ধ কিনা তা পরীক্ষা  করতে পারবে। আর ‘টেথিস’ একটি পোর্টেবল ডিভাইস হওয়ায় যেকোনো জায়গায় নেওয়া যাবে। এই আবিষ্কারক কিশোরী বলেন, ‘বন্যার সময় নিরাপদ খাবার পানি নিশ্চিত করতে পুরো ভারত জুড়ে এই ডিভাইসটির সহজলভ্য হওয়া উচিত।’

সাগরকে প্লাস্টিক বর্জ্য মুক্ত করবে জাহাজ

হাজিক কাজি নামের এক কিশোরকে বিশ্বে প্লাস্টিক বর্জ্যের ফলে যে ভয়াবহ বিপর্যয় আছে এ বিষয়টি তাকে ভাবিয়ে তোলে। তাই সে এমন একটি জাহাজের ডিজাইন করেছে যা সাগরে ভেসে সাগরের বুকে জমে থাকা প্লাস্টিক বর্জ্য পরিষ্কার করতে পারবে।

বায়ো ইথানল

বায়ো ইথানল একধরনের পেট্রোলিয়াম যা মোটর গাড়ির জ্বালানি হিসেবে ব্যবহৃত হবে। মূলত পরিবেশবান্ধব ইথানল হওয়ায় পরিবেশে কার্বন ডাই অক্সাইড কম সৃষ্টি করবে। তবে সাধারণত গাড়িতে যেসব জ্বালানি ব্যবহৃত হয় তা বাতাসে কার্বনের পরিমাণ বাড়াচ্ছে।

ম্যানহোল পরিষ্কারক রোবট

ভারতের স্টার্টআপ রোবট নির্মাতা প্রতিষ্ঠান জেনরোবোটিক্সের একদল তরুণ তাদের প্রথম একটি রোবট তৈরি করেছে যা ম্যানহোল পরিষ্কার করতে পারবে। ফলে অস্বাস্থ্যকর ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে শ্রমিকদের বিপরীতে কাজ করতে পারবে রোবট। আর ২০ জন শ্রমিকের কাজ একাই করতে পারবে রোবটটি।

নর্দমা পরিষ্কারে রোবট

ব্যান্ডিকোটের কিছু শিক্ষার্থী ‘সেপটিক ট্যাংক’ নামের একটি রোবট তৈরি করেছে, যা দিয়ে নর্দমা পরিষ্কার করা যাবে। এমনকি যেখানে মানুষ প্রবেশ করতে পারবে না সেখানে গিয়েও রোবটটি কাজ করতে পারবে।

ড্রোন কৃষক

ফসলের মাঠ দেখভাল করার জন্য একজন কৃষক অনেক সময় মাঠে ব্যয় করেন, অনেক সময় বড় জমিগুলো দেখতে গিয়ে ক্লান্ত হয়ে যান। এজন্য লাভলি প্রোফেশনালস বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু শিক্ষক এমন একটি ড্রোন তৈরি করেছে যা ফসলের মাঠে ঘুরে সেই তথ্য কৃষককে দিতে পারবে।

ডাব্বাওয়ালা অ্যাপ পৌঁছে দিবে খাবার

তিলক মেহতা নামের এক কিশোর মুম্বাই শহরে গ্রাহকদের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়ার জন্য এই অ্যাপ তৈরি করেছে। যা অনেকটা উবার ইটস, ফুড পান্ডার মতো।

অপুষ্টির কথা বলবে অ্যাপ

এনজিও এবং দেশীয় সমাজ সেবা সংস্থাগুলোকে পথশিশুদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করার জন্য আইয়ুশ নামে এক তরুণ তৈরি করেছে এই অ্যাপটি। এই অ্যাপটি একটি অঞ্চলের শিশুগুলোকে ট্র্যাক করে জানিয়ে দেবে অপুষ্টিহীনতার কথা। সেই অনুযায়ী দাতা সংস্থাগুলো চাইলে তাদের কাছে সেবা পৌঁছে দিতে পারবে।

সূত্র: ইন্ডিয়া টাইমস

আপনার মতামত লিখুন :