সমস্যা সমাধানে রি-ডিজাইন করা হলো স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড!

টেক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড স্মার্টফোন, ছবি: সংগৃহীত

স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড স্মার্টফোন, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সম্প্রতি মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে সবচেয়ে আলোচিত বিষয় ছিল স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড স্মার্টফোন। কিন্তু এর নজর কাড়া ডিজাইন এবং এক্সক্লুসিভ ফিচার ছাপিয়ে যখন এর স্থায়িত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠে তখন সেই পরীক্ষয়ায় ফেল করে। তবে এবার দীর্ঘ দুই মাস পরে সব সমস্যা কাটিয়ে বাজারে আসার জন্য প্রস্তুত গ্যালাক্সি ফোল্ড।

ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়, সম্প্রতি স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড রি-ডিজাইনের (পুনরায় ডিজাইন) সময় স্থায়িত্বে গুরত্ব দিয়েছে। ফলে আগে যে সমস্যাগুলো হয়েছে তা হবে না বলে নিশ্চিত করছে স্যামসাং। যদিও স্যামসাং গ্যালাক্সি ফোল্ড বাজারে ছাড়ার জন্য তৈরি কিন্তু বাজারে কবে নাগাদ পাওয়া যাবে তা এখনও জানায়নি প্রতিষ্ঠানটি।

স্যামসাং কর্তৃপক্ষ বলছে, ডিসপ্লের ওপরে যে স্বচ্ছ আবরণটি ছিল তা এখন তুলে ফেলার ভয় নেই, কারণ এই আবরণটি ডিভাইসের ভিতরের অংশে যুক্ত করা হয়েছে। আর ফোনটি ভাজ করলে দুটি অংশের মাঝে যে অপ্রয়োজনীয় খালি জায়গা ছিল তাও সংশোধন করা হয়েছে।

সম্প্রতি স্যামসাংয়ের নির্বাহী প্রধান ডিজে কোহ বলেন, তাদের অভ্যন্তরীণ টেকনিক্যাল টিম গ্যালাক্সি ফোল্ডের ২০০০ ডিভাইস পরীক্ষা করে দেখেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, মার্কিন প্রশাসন যদিও হুয়াওয়েকে নিষিদ্ধ না করত তাহলে ফোল্ডেবল স্মার্টফোনের প্রতিযোগিতায় প্রতিষ্ঠানটি প্রথম স্থান দখল করত। তাই স্যামসাং একটি সুযোগ পেয়েছে, যদি তারা শীর্ষে থাকতে চায় অবশ্যই ফোনের মানের দিকে বিশেষ নজর দিতে হবে।

এর আগে স্যামসাং ফোনটির স্থায়িত্ব নিয়ে ক্রেতাদেরকে আশ্বস্ত করতে ফোনের দুই লাখ বার ভাঁজ খুলে ও বন্ধ করে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছিল।

সূত্র: দ্যা নেক্সট ওয়েব

আপনার মতামত লিখুন :