গার্টনারের দৃষ্টিতে এলটিই নেটওয়ার্ক অবকাঠামোতে সেরা হুয়াওয়ে

স্টাফ করেসপেন্ডন্ট,বার্তা২৪.কম
হুয়াওয়ে লোগো

হুয়াওয়ে লোগো

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা: বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় পরামর্শদাতা ও গবেষণাকারী প্রতিষ্ঠান গার্টনারের দৃষ্টিতে লং টার্ম ইভাল্যুশন (এলটিই) নেটওয়ার্ক অবকাঠামো নির্মাণে অবদানের জন্য শীর্ষে অবস্থান করছে প্রযুক্তি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে। গার্টনারের প্রকাশিত ওই গবেষণা প্রতিবেদনে এলটিই অবকাঠামো নির্মাণে ভেন্ডরদের লক্ষ্য ও দক্ষতার বিষয়টি বিবেচনা করা হয়েছে।

গার্টনারের বিশ্লেষণ অনুযায়ী, দ্রুত হুয়াওয়ের মার্কেট শেয়ার বৃদ্ধি, বড় আকারে বাণিজ্যিক নেটওয়ার্কের প্রসার এবং নতুন নতুন হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার পণ্য উদ্ভাবনের ফলে প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানগুলো এর ধারে কাছে কেউ আসতে পারছে না। হুয়াওয়ের এলটিই সল্যুশল দ্রুতগতিতে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে এবং বিশ্বের অধিকাংশ নামকরা অপারেটরদের কাছে প্রথম পছন্দ।

হুয়াওয়ে টেকনোলজিস (বাংলাদেশ) লিমিটেডের প্রধান টেকনিক্যাল কর্মকর্তা (সিটিও) জেরি ওয়াং বলেন, ‘হুয়াওয়ে বিশ্বাস করে, ফাইভজি’র যুগে ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধিতে এলটিই সল্যুশন এক নতুন মাত্রা যোগ করেছে। ব্যবহারকারীদের চাহিদা অনুযায়ী ডেটা ব্যবহার বেড়েছে এবং নেটওয়ার্ক ট্রাফিকও বাড়বে। ফাইভজির যুগে এলটিই সল্যুশনই নেটওয়ার্কের মৌলিক স্ট্যান্ডার্ড। সাম্প্রতিক সময়ে এলটিই’র বিবর্তনে নেতৃত্ব দিতে হুয়াওয়ে ধারাবাহিকভাবে চেষ্টা করে যাচ্ছে এবং অপারেটরদের যেকোনো সমস্যা মোকাবিলায় সহায়তা দিয়ে আসছে। ফাইভজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জন, উদ্ভাবনী সেবার পরীক্ষা করা এবং নতুন নতুন ব্যবসায়িক ধারণাগুলোকে করতে বিদ্যমান ৪জি/৪.৫জি প্রযুক্তির উন্নয়নে অপারেটরগুলোকে ব্যাপকভাবে সহায়তা দিয়ে আসছে হুয়াওয়ে।

এদিকে বিশেষজ্ঞরা আরও জানিয়েছেন, হুয়াওয়ের অ্যাডভান্সড এলটিই নেটওয়ার্ক অবকাঠামো ৪টি ৪আর, ৪টি ৬এস, ৮টি ৮আর এবং টিএম৯ এর মত ফিচার তৈরিতে এবং এলটিই নেটওয়ার্কের সক্ষমতা উন্নয়নে সহায়তা করতে পারে। এই ধরনের নেটওয়ার্ক এবং ব্যবসার মডেল বর্তমান যুগের ক্রমবর্ধমান ডিজিটাল সেবার প্রয়োজনীয়তা পূরণের পাশাপাশি ফাইভজি যুগের ব্যবসায়িক সফলতার ভিত্তি স্থাপন করতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন :