Alexa

মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুর ভ্রমণে ইউএস বাংলার আকর্ষণীয় প্যাকেজ

মালয়েশিয়া-সিঙ্গাপুর ভ্রমণে ইউএস বাংলার আকর্ষণীয় প্যাকেজ

ছবি: বার্তা২৪

মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর ভ্রমণের লক্ষ্যে দেশিয় পর্যটকদের জন্য আকর্ষণীয় ভ্রমণ প্যাকেজ ঘোষণা করেছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স। এই ভ্রমণ প্যাকেজে ২৯ হাজার ৯৯০ টাকায় মালয়েশিয়া ও ৪০ হাজার ৯৯০ টাকায় সিঙ্গাপুর দুই রাত তিন দিনের জন্য ঘুরে আসতে পারবে পযর্টকরা।

ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সপ্তাহে প্রতিদিন ঢাকা থেকে কুয়ালালামপুরে ইউএস-বাংলায় ভ্রমণ করতে পারবে পর্যটকরা। মালয়শিয়া ভ্রমণে একসংগে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং মনুষ্য তৈরি ইটপাথরের অপরূপ সৌন্দর্য মিশানো বিভিন্ন স্থাপনা রয়েছে কুয়ালালামপুরে, যা বিদেশী পর্যটকদের আকর্ষণীয় করে তুলবে। পুত্রজায়া, আধুনিক যুগে একটি প্রশাসনিক শহর কত সৌন্দর্যমন্ডিত হতে পারে তা স্বচক্ষে না দেখলে সঠিকভাবে বোঝানো যাবে না। টুইন টাওয়ার এর মতো অসম্ভব সুন্দর নিদর্শন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য মিশ্রিত গেনটিং এর মেঘে ভেসে বেড়ানো ছাড়াও মালয়শিয়ায় রয়েছে অনেক অপরূপ সৌন্দর্যের উপস্থিতি। রয়েছে লংকাউই কিংবা পেনাং এর মতো আকর্ষণীয় পর্যটন কেন্দ্র। মালয়শিয়ার প্রধান আকর্ষণ একবার যে বেড়াতে যাবে ঘুরে এসেই সে দ্বিতীয়বার বেড়ানোর পরিকল্পনা সাজাতে প্রস্তুত হয়। টূরিস্ট ভিসা ও ভ্রমণ খরচ সহজলভ্য হওয়ায় বাংলাদেশ থেকে অনেক পর্যটক বিগত বছরগুলোতে কুয়ালালামপুরে খুব বেশী দেখতে পাওয়া যায়। প্রতিজনের জন্য দু’রাত তিনদিনের জন্য নূন্যতম ২৯ হাজার ৯৯০ টাকায় কুয়ালালামপুর ভ্রমণে হলিডে প্যাকেজ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

সিঙ্গাপুর পৃথিবীর নান্দনিক শহর গুলোর মধ্যে অন্যতম। প্রতিযোগিতামূলক ভাড়ায় ভ্রমণের সুযোগ থাকছে ইউএস-বাংলায়। বর্তমানে ইউএস-বাংলার সিঙ্গাপুর হলিডে প্যাকেজ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। তিনরাত চারদিনের জন্য প্রতিজনের নূন্যতম ৪০ হাজার ৯৯০ টাকায় সিঙ্গাপুর ভ্রমণে প্যাকেজ মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে।

কুয়ালালামপুর ও সিঙ্গাপুরের হলিডে প্যাকেজে ভ্রমণ করার জন্য ট্যাক্স ও সারচার্জসহ রিটার্ণ এয়ার টিকেট, আবাসন ব্যবস্থা, সকালের নাস্তা, এয়ারপোর্ট-হোটেল-এয়ারপোর্ট ট্রান্সফারসহ নানাবিধ সুযোগ-সুবিধা থাকছে।

পর্যটকদের পছন্দ অনুযায়ী ৬ মাসের সহজ কিস্তিতে বিনা সুদে বাংলাদেশের নেতৃস্থানীয় বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের ক্রেডিটকার্ড ব্যবহারকারীগণ এ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন। ভ্রমণপিপাসুদের এ সুবিধা দিতে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স দেশের শীর্ষস্থানীয় বিভিন্ন ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে। 

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠার চার বছরের অধিক সময়ে অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সেক্টরে একান্ন হাজারের অধিক ফ্লাইট পরিচালনা করেছে। যাত্রীদের সময়োপযোগী ফ্লাইট সূচী থাকায় অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সেক্টরে পূর্বের তুলনায় অধিক সংখ্যক পর্যটক বৃদ্ধি পেয়েছে। ইউএস-বাংলা প্রতিষ্ঠার পর থেকেই বাংলাদেশের পর্যটন শিল্পকে বিকষিত করার লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকা থেকে পৃথিবীর দীর্ঘতম সমূদ্র সৈকত কক্সবাজার, প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি চট্টগ্রাম, দু’টি পাতা একটি কুড়ির দেশ সিলেট, পৃথিবীর অন্যতম ম্যানগ্রোভ সুন্দরবন ভ্রমণের জন্য যশোর, উত্তরবঙ্গের অবহেলিত পর্যটনকেন্দ্রগুলোকে দেশী-বিদেশী পর্যটকদের কাছে পরিচিতি দেয়ার জন্য সৈয়দপুর ও রাজশাহী এবং নদীমাতৃক বাংলাদেশের অপরূপ সৌন্দর্য আর নৈসর্গিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি কুয়াকাটার দৃশ্য উপভোগ করার জন্য বরিশালে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। ফলে দেশে অভ্যন্তরীণ পর্যটক প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি পাচ্ছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রতিষ্ঠার দু’বছরের মধ্যেই দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে প্রবেশ করে। বর্তমানে এশিয়ার অন্যতম পর্যটকদের তীর্থস্থান কুয়ালালামপুর, সিঙ্গাপুর, গুয়াংজু, কলকাতাসহ মোট সাতটি দেশে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা।

হলিডে প্যাকেজ সংক্রান্ত যে কোনো তথ্য জানতে যোগাযোগ করুন- ০১৭৭৭৭৭৭৮৮১-৩ অথবা ১৩৬০৫।

আপনার মতামত লিখুন :