টয়লেটের ফ্ল্যাশে দুটি বাটনের কাজ কী?

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
টয়লেটের ফ্লাশ বাটন/ ছবি: বার্তা২৪.কম

টয়লেটের ফ্লাশ বাটন/ ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

আমরা প্রতিদিনই নতুন নতুন জিনিস বা সেবার সাথে পরিচিত হচ্ছি। নিজের প্রয়োজনে অনেক সময় নিজেরাই শিখছি, অনেক সময় অন্যের সহায়তায় শিখছি। আবার চোখের সামনে অনেক জিনিস দেখি কিন্তু ব্যবহার জানি না, সেটা জানার জন্য মনে কৌতূহল জাগে না। জানার প্রয়োজনও মনে করি না।

বর্তমানে অধিকাংশ আধুনিক টয়লেটে ফ্ল্যাশে দুটি বাটন দেখা যায়। কিন্তু কয়জন জানে এই দুটি বাটনের ব্যবহার সম্পর্কে। দুটি বাটনের কি একই কাজ? নাকি দুটি বাটন দিয়ে ভিন্ন ভিন্ন কাজ হয়?

আগে টয়লেটে ফ্ল্যাশ করা হতো দড়ি টেনে। দড়ি টানলেই দ্রুত গতির পানিতে কমোড পরিষ্কার হয়ে যেতো। কিন্তু সময়ের বিবর্তনে দড়ির জায়গায় আসলো হাতল। টয়লেট ব্যবহারের পর তা পরিষ্কারের জন্য সবসময় একই পরিমাণ পানির প্রয়োজন হয় না। কিন্তু দড়ি বা হাতল সিস্টেমে সবসময় একই পরিমাণ (ছয়-আট লিটার) পানি বের হতো। ফলে অনেক পানি অপচয় হতো। জনসংখ্যার আধিক্যের কারণে বাড়ছে পানির চাহিদা। নদ-নদী এখন মৃতপ্রায়। ভূগর্ভস্থ পানির স্তরও দিনদিন নিচে নেমে যাচ্ছে। ফলে অনেক দেশে পানির অপচয় ঠেকাতে টয়লেটে টিস্যু ব্যবহৃত হয়। তবে টয়লেটে পানি অপচয় রোধ করতেই ফ্ল্যাশে দুটি বাটন রাখা হয়।

ঢাকার এলিফ্যান্ট রোডের সেনেটারি ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান বার্তা২৪.কম-কে বলেন, ‘আধুনিক টয়লেট ব্যবস্থায় পানির অপচয় রোধে দুটি বাটন ব্যবহার করা হচ্ছে। বড় বাটন একবার চাপলে ছয় থেকে আট লিটার পানি বের হয়। তবে সব সময় এতো পানির প্রয়োজন হয় না। বিষয়টি মাথায় রেখেই ছোট বাটন রাখা হয়, যা একবার চাপলে তিন থেকে চার লিটার পানি খরচ হয়। অর্থাৎ বড় প্রয়োজনে বড় বাটন ও ছোট প্রয়োজনে ছোট বাটন চেপে পানির অপচয় রোধ হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘জনসংখ্যা বাড়ার সাথে সাথে পানির ব্যবহারও বাড়ছে। তাই পানি ব্যবহারে আমাদের এখনই সচেতন হতে হবে।’

আপনার মতামত লিখুন :