Barta24

রোববার, ২১ জুলাই ২০১৯, ৬ শ্রাবণ ১৪২৬

English Version

শ্রাবন্তীর সিদ্ধান্তকে আমাদের সম্মান জানানো উচিত: ঐন্দ্রিলা সেন

শ্রাবন্তীর সিদ্ধান্তকে আমাদের সম্মান জানানো উচিত: ঐন্দ্রিলা সেন
শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় ও ঐন্দ্রিলা সেন
বিনোদন ডেস্ক


  • Font increase
  • Font Decrease

দীর্ঘ এক বছর মন দেওয়া-নেওয়ার পর গত ২০ এপ্রিল প্রেমিক রোশন সিংয়ের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। এমনটাই খবর প্রকাশ করেছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।

এমনকি শ্রাবন্তী-রোশনের একসঙ্গে তোলা একটি ছবিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তবে বিয়ের বিষয়টি নিয়ে এখনও পর‌্যন্ত কোনো মন্তব্য করেননি শ্রাবন্তী।

এদিকে, শ্রাবন্তী-রোশনের বিয়ের খবর প্রকাশের পর থেকেই টলিউডের এই অভিনেত্রীকে নিয়ে বয়ে যাচ্ছে আলোচনা-সমালোচনার ঝড়। কেননা এটি শ্রাবন্তীর তৃতীয় বিয়ে!

রোশন সিং ও শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়
রোশন সিং ও শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়

 

শ্রাবন্তীর এই দুঃসময়ে তার পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন ছোটপর্দা ও টলিউড ইন্ডাস্ট্রির অনেক তারকা। শ্রাবন্তীর বিয়ে নিয়ে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা সেন বলেন- “গত দু’দিন ধরে চুপ থেকেছি। কিন্তু আমি বুঝতে পারছি না শ্রাবন্তীর বিয়ের বিষয়টি নিয়ে কেনো এতো হৈচৈ হচ্ছে। আমাদের সকলের একটি ব্যক্তি স্বাধীনতা রয়েছে। আর আমাদের সকলের উচিত সেটিকে সম্মান জানানো।”

ঐন্দ্রিলা আরও বলেন, আমি শ্রাবন্তীকে খুব ভালোভাবে জানি। আমার, অঙ্কুশ ও তার মধ্যে ভালো একটি সম্পর্ক রয়েছে। তিনি যদি তার বিয়ের ব্যাপারটিকে পাবলিক ইস্যু বানাতে চাইতেন তাহলে তিনি সেটি করতে পারতেন। কিন্তু তিনি চাননি এটি নিয়ে কোনো আলোচনা-সমালোচনা হোক। এখন আপনারাই বলুন আমাদের কি উচিত না তার সিদ্ধান্তকে সম্মান জানানো?

ঐন্দ্রিলা সেন
ঐন্দ্রিলা সেন

 

শুধু ঐন্দ্রিলা নয়, প্রিয়ম চক্রবর্তী, সুদীপা চক্রবর্তীর মতো অসংখ্য তারকা শ্রাবন্তীর পাশে দাঁড়িয়েছেন।

এর আগে দু’বার বিয়ে করেছেন শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়। প্রযোজক রাজীবের সঙ্গে বিবাহ বিচ্ছেদের পর মডেল কৃষাণ ব্রজের সঙ্গে বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন। তবে, সে বিয়েও বেশিদিন টেকেনি।

আপনার মতামত লিখুন :

অভিষেকেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার

অভিষেকেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার
মিথুন চক্রবর্তী, জায়রা ওয়াসি, ঋষি কাপুর ও শ্রেতা বসু প্রসাদ

চলচ্চিত্র দুনিয়ার সবচেয়ে সম্মানজনক স্বীকৃতি ধরা হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারকে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির সেরা ও প্রতিভাবান অভিনেতা-অভিনেত্রীদের হাতে তুলে দেওয়া হয় এই সম্মাননা। ঠিক তেমনিভাবে ভারতীয় তারকাদেরও নজর থাকে সম্মানজনক এই পুরস্কারের দিকে।

সম্মানজনক এই স্বীকৃতি কেউ কেউ পেয়ে থাকেন ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় পর। আবার যার কপাল ভালো তিনি অভিষেকেই অর্জন করেন এই সম্মান। চলুন জেনে নেওয়া যাক বলিউডের এমন কয়েকজন অভিনেতা-অভিনেত্রীর নাম যারা ইন্ডাস্ট্রিতে পা রেখেই জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘরে তুলেছেন।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717585560.jpgঋষি কাপুর
বাবা রাজ কাপুরের পরিচালিত ‘মেরা নাম জোকার’ ছবির মধ্য দিয়ে বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন ঋষি কাপুর। যেখানে রাজু চরিত্রে অভিনয় করে জয় করে নেন দর্শকের হৃদয়। সেই সঙ্গে সেরা শিশুশিল্পী হিসেবে ১৯৭০ সালে ঘরে তোলেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717599795.jpgমিথুন চক্রবর্তী
রূপালি পর্দায় বলিউডের এই অভিনেতার অভিষেক হয় ১৯৭৬ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘মৃগয়া’ ছবির মধ্য দিয়ে। আর প্রথম ছবিতেই বাজিমাত করে সেরা অভিনেতা হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন বর্ষীয়ান এই তারকা।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717612824.jpgজায়রা ওয়াসিম
এই ‘দঙ্গল’ কন্যাকে কে ভুলবেন! নীতেশ তিওয়ারি পরিচালিত এই ছবিটির মাধ্যমে জায়রার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু হয়। আর এই ছবিটি তাকে দিয়েছিল জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।

বিকাশ বহেল
‘কুইন’ ছবির মাধ্যমে পরিচালক হিসেবে দারুণ জনপ্রিয় অর্জন করেছেন বিকাশ বহেল। কিন্তু বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে তার অভিষেক হয় ‘চিল্লার পার্টি’র মধ্য দিয়ে। এই ছবিটির সুবাদে একটি নয়, দুটি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন তিনি।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717629854.jpgশ্রেতা বসু প্রসাদ
‘মাকদে’ দিয়ে ২০০২ সালে চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করে শ্রেতা। ছবিটিতে তার অভিনয় দর্শকের হৃদয় ছুঁয়ে যায়। তাইতো সেরা শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে সে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717646122.jpgহর্ষ মেয়র
প্রতিভাবান এই শিশুশিল্পী ২০১৯ সালে ‘আই অ্যাম কালাম’র মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন। যা তাকে এনে দেয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563717660416.jpgপার্থ গুপ্ত
পরিচালক আমল গুপ্তের মতোই প্রতিভাবান তার ছেলে পার্থ গুপ্ত। তাইতো ছোট পার্থর অভিনীত ‘স্যানলি কা ডা্ব্বা’ বাজিমাত করে বক্স অফিসে। আর অভিষেক ছবির সুবাদে ২০১১ সালে সেরা শিশুশিল্পী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘরে তোলে সে।

সিগারেটের টানে নিক-প্রিয়াঙ্কা-মধুর আড্ডা

সিগারেটের টানে নিক-প্রিয়াঙ্কা-মধুর আড্ডা
আড্ডা দিচ্ছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, নিক জোনাস ও মধু চোপড়া

ক’দিন আগে ৩৭তম জন্মদিনের কেক কেটেছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। স্ত্রীর জীবনের বিশেষ এই দিনটিকে আরও বিশেষ করে তোলার জন্য জমকালো এক পার্টির আয়োজন করেছিলেন নিক জোনাস। যেখানে উপস্থিত ছিলেন জোনাস ও চোপড়া পরিবারের সদস্যরা। দেখা গিয়েছিল অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়াকেও।

জন্মদিন উদযাপন শেষে এখন মিয়ামি ঘুরে বেড়াচ্ছেন নিক জোনাস ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। এই সফরে তাদের সঙ্গে রয়েছেন প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়াও। এরইমধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে এই তারকা দম্পতির ঘোরাঘুরির বেশ কয়েকটি ছবি। যার মধ্যে ভাইরাল হয়েছে একটি ছবি।

ভাইরাল হওয়া ওই ছবিটির জন্য রীতিমতো সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, নিক জোনাস ও মধু চোপড়াকে। কিন্তু কী রয়েছে সেই ছবিতে?
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Jul/21/1563707365053.jpgভাইরাল হওয়া ছবিটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি সাম্পানে বসে সিগারেট খাচ্ছেন নিক জোনাস, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও মধু চোপড়া। আর এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনার। কেননা প্রিয়াঙ্কা নিজেই কিছুদিন আগে ফেসবুকে ধূমপানের বিপক্ষে একটি পোস্ট করেছিলেন।

ছবিটির নীচে মন্তব্য করে একজন লিখেছেন, ‘দিদি তোমার তো অ্যাজমা আছে আবার সিগারেট টানছো। এমন করলে কিভাবে চলবে দিদি?’ আরেকজন লিখেছেন, ‘জুলাইতে দিওয়ালি পালনের অধিকার শুধুমাত্র প্রিয়াঙ্কার চোপড়ারই রয়েছে।’

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র