জাতীয় সংগীত বিতর্কে নোবেলের সমালোচনায় পরিকল্পনা মন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ঢাকা
'বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ' শীর্ষক এক আলোচনা সভা পরিকল্পনা মন্ত্রী/ছবি: শাহরিয়ার তামিম

'বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ' শীর্ষক এক আলোচনা সভা পরিকল্পনা মন্ত্রী/ছবি: শাহরিয়ার তামিম

  • Font increase
  • Font Decrease

 

প্রায় ৮ মাস আগে দেশের একটি গণমাধ্যমে জাতীয় সংগীত নিয়ে মন্তব্য করেন ভারতীয় টেলিভিশন জি বাংলার রিয়েলিটি শো 'সা রে গা মা'র মাধ্যমে জনপ্রিয়তা পাওয়া নোবেল।

সম্প্রতি  জাতীয় সংগীত নিয়ে নোবেলের সেই মন্তব্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হলে বাংলাদেশ সহ ভারতে সমালোচনার ঝড় উঠে।

এবার সেই বিতর্কে নোবেলের সমালোচনায় করেছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী এম.এ মান্নান।

বোরবার (৪ আগস্ট) টেলিভিশন রিপোর্টাস ইউনিটি অব বাংলাদেশ (ট্রাব) আয়োজিত 'বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ' শীর্ষক এক আলোচনা সভায় তিনি এ সমালোচনা করেন।

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম.এ মান্নান বলেন, 'শুনেছিলাম বাংলাদেশে একটা ছেলে ভারতের গিয়ে ভাল গান গাচ্ছে। তারপর তার দুই একটি গানও শুনি। গতকাল দেখলাম সেই ছেলে আমাদের জাতীয় সংগীত পরিরর্তন করতে বলেছে। আর যে গানটিকে সে জাতীয় সংগীত করতে বলেছে সেই গানের প্রথম দুই লাইন শুনলে বোঝা যায় এই দাবিতে পিছনে কারা আছে।'

https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/04/1564911783914.jpg

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী আরও বলেন, 'আমি নোবেল প্রজন্মের তরুণদের বলতে চাই তোমাদের আরও ভালভাবে ইতিহাস জানতে হবে। তার জন্য ইতিহাস বিষয়ক বই খুলে পড়তে হবে। আর নোবেল যে মন্তব্য করেছে তা অত্যন্ত ঘৃণিত ও ন্যাক্কারজনক।'

অনুষ্ঠানে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সহ সভাপতি রেদুয়ান খন্দকারের সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ.ক.ম মোজাম্মেল হক সহ আয়োজক সংগঠন ট্রাব ও আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেত্রীবৃন্দ।

এদিকে প্রায় ৮ মাসের আগের সেই সাক্ষাৎকারে নোবেল বলেছেন,‘রবীন্দ্রনাথের লেখা জাতীয় সঙ্গীত ‘আমার সোনার বাংলা’ যতটা না দেশকে তুলে করে তার চেয়ে কয়েক হাজার গুণে এক্সপ্লেইন করে প্রিন্স মাহমুদ স্যারের লেখা ‘বাংলাদেশ’ গানটি।

`বাংলাদেশ’ গানটি নিয়ে নিজের আবেগের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে গিয়ে নোবেল এমন মন্তব্য  করেব।  নোবেলের এমন মন্তব্যে এখন উত্তাল দুই দেশের সোশ্যাল মিডিয়া।

আপনার মতামত লিখুন :