Barta24

বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ৬ ভাদ্র ১৪২৬

English

‘আসুরা’ সুপারফ্লপ

‘আসুরা’ সুপারফ্লপ
বিনোদন ডেস্ক


  • Font increase
  • Font Decrease

চীনের সবচেয়ে ব্যয়বহুল সিনেমা ‘আসুরা কিং’। ছবিটির বক্সঅফিস সাফল্য নিয়ে ব্যাপক প্রত্যাশা ছিল চীনা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির। কিন্তু ১১২ মিলিয়ন ইউএস ডলার ব্যয়ে নির্মিত ছবিটি মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই সুপার ফ্লপ। তাই বাধ্য হয়ে মুক্তির প্রথম সপ্তাহেই ছবিটি হল থেকে নামাতে বাধ্য হয়েছে সিনেমা পরিবেশকরা।

জানা গেছে, ফ্যান্টসি ড্রামাটি মুক্তির প্রথম সপ্তাহে আয় করেছে মাত্র ৭ মিলিয়ন ডলার। আর এতে দারুণ আশাহত সিনেমার প্রযোজকরা।

/uploads/files/DVxnCH68Ktj9q4UGKAzq0HpeQ605x4aLbMX5saJJ.jpeg

চীনের বৌদ্ধ রূপকথার উপর ভিত্তি করে আসুরা সিনেমাটির কাহিনী তৈরি করা হয়। সিনেমাটিতে চীনা ইন্ডাস্ট্রির নামী অভিনেতার অভিনয় করেছেন। জমকালো স্পেশাল ইফেক্টও চোখ ধাঁধিয়ে দেয়। কিন্তু তারপরও ছবিটিকে গ্রহণ করেনি দর্শকরা।

প্রথম দফায় ছবিটি বক্স অফিসে সফলতা না পাওয়ায় ছবির গল্প নিয়ে আরও কাজ করার পরিকল্পনা করছে ছবির প্রযোজকরা। এরপর আবার মুক্তি দিতে চান তারা।

দ্বিতীয়বার মুক্তির পর যদি সিনেমাটি বক্সঅফিসে সফলতা না পায় তাহলে এটি হবে চীনা ফিল্ম ইতিহাসে সবচেয়ে ফ্লপ ছবি।

/uploads/files/gU2TeWGJHk9RDnee68Vu1dtHtmYEMgogjRM7uA1J.jpeg

প্রসঙ্গত, সিনেমাটির প্রযোজক হিসেবে চীনের নামী সিনেমা নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আলিবাবা পিকচার্স, ঝেনজিয়ান ফিল্ম স্টুডিও, নিনজিয়া ফিল্ম গ্রুপের মত বড় প্রতিষ্ঠানগুলো আছে। সিনেমাটি মুক্তির আগে রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে ছবিটির ভূয়সী প্রশংসা করা হয়েছিল। চায়না ডেইলী বলেছিল, ‘চীনের গ্রীষ্ম মৌসুমের প্রতিযোগিতায় সিনেমাটি হচ্ছে বহুল প্রত্যাশিত ব্লকবাস্টার।’

আপনার মতামত লিখুন :

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’

বাংলাদেশে মুক্তি পাচ্ছে জিতের ‘প্যান্থার’ ও জয়ার ‘বিনিসুতোয়’
‘প্যান্থার’ ও ‘বিনিসুতোয়’ ছবির পোস্টার

সাফটা চুক্তির আওতায় কলকাতার আরও দুটি সিনেমা বাংলাদেশে মুক্তি পেতে যাচ্ছে।

গত ১৫ আগস্ট কলকাতায় মুক্তি পাওয়া জিতের ‘প্যান্থার’ ও মুক্তির অপেক্ষায় থাকা জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ সিনেমা দুটি বাংলাদেশে আমদানি করতে যাচ্ছে প্রযোজনা সংস্থা তিতাস কথা চিত্র। প্রযোজনা সংস্থাটির একটি বিশ্বস্ত সূত্র বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381220725.jpg

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শিগগিরই সিনেমা দুটি বাংলাদেশে মুক্তির জন্য সেন্সর বোর্ডে জমা দেওয়া হবে। প্রথমে মুক্তি পাবে জিতের ‘প্যান্থার’। আর কলকাতার সঙ্গে একইদিনে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ মুক্তি দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তিতাস কথা চিত্রের। যদিও এখনো সিনেমা দুইটির একটিও সেন্সর বোর্ডে জমা পড়েনি বলে বার্তাটোয়েন্টিফোর.কমকে নিশ্চিত করেছে সেন্সর বোর্ডের এক সদস্য।

নতুন সিনেমা আমদানি করা প্রসঙ্গে তিতাস কথা চিত্রের কর্ণধার আবুল কালাম আজাদ বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি সিনেমা দুইটি নিয়ে আসার ব্যাপারে। তবে এখনো আমরা নিশ্চিত নই। রোববার নিশ্চিত করে বলতে পারবো।’

‘প্যান্থার’ জিতের ক্যারিয়ারের ৫০তম সিনেমা। এটি প্রযোজনা করেছে জিৎ ফিল্ম ওয়ার্ক। পরিচালনা করেছেন অংশুমান প্রত্যুষ। এতে জিতের বিপরীতে অভিনয় করবেন শ্রদ্ধা দাস।
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566381236239.jpg

এদিকে জয়া আহসানের ‘বিনিসুতোয়’ পরিচালনা করেছেন অতনু ঘোষ। এতে জয়ার বিপরীতে প্রথমবারের মতো অভিনয় করছেন ঋত্বিক চক্রবর্তী। এর গল্প লিখেছেন অতনু ঘোষ নিজেই। এতে জয়া আহসানের গানও শুনতে পারবেন দর্শকরা।

বাবার নকল

বাবার নকল
জেইন ও শহিদ কাপুর

সম্প্রতি ছেলে জেইনের ছবির সঙ্গে নিজের ছোটবেলার একটি ছবি জোড়া দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন শহিদ কাপুর। যা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

শহিদের ছোটবেলার ছবি এবং জেইনের ছবিটি দেখলে প্রথমে বোঝার উপায় নেই এটি আলাদা দু’জন মানুষ।

শেয়ার করা ছবিটির ক্যাপশনে শহিদ কাপুর লিখেছেন- ‘বাবার মতোই ছেলে।’
https://img.imageboss.me/width/700/quality:100/https://img.barta24.com/uploads/news/2019/Aug/21/1566378889530.jpg

ছবিটির নীচে একজন মন্তব্য করে লিখেছেন, ‘একদম নকল।’ আরেকজন কারিনা কাপুর খান ও সাইফ আলি খানের ছেলে তৈমুর আলি খানের সঙ্গে তুলনা করে লিখেছেন- ‘প্রথম ছবিটি তৈমুর এবং দ্বিতীয়টি তুমি।’

পরিচালক সিদ্ধার্থ মালহোত্রা লিখেছেন, ‘রঙ ছাড়া আর কোন ভিন্নতা খুঁজ পাচ্ছি না আমি।’

সবশেষ ‘কবির সিং’ ছবিতে দেখা গেছে শহিদ কাপুরকে। এতে তার সহশিল্পী হিসেবে ছিলেন কিয়ারা আদভানি। বক্স অফিসে সুপার হিট হয়েছে ছবিটি।

এ সম্পর্কিত আরও খবর

Barta24 News

আর্কাইভ

শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র