শপথ গ্রহণকারীরা জনগণের থুতুর ঢলে ভেসে যাবেন: গয়েশ্বর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট ঢাকা বার্তা২৪.কম
মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় / ছবি: বার্তা২৪

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় / ছবি: বার্তা২৪

  • Font increase
  • Font Decrease

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, ‘দলীয় সিদ্ধান্ত, বিএনপির নির্বাচিত প্রার্থীরা পার্লামেন্টে (সংসদ) যাবে না। সেই সিদ্ধান্ত যিনি অমান্য করবেন তারা দলের লোক হিসেবে বিবেচিত হবেন না। জনগণের থুতুর ঢলে তারা এক সময় ভেসে যাবেন।’

বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানবন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন। গণমাধ্যম বিরোধী কালো আইন বাতিল, সাংবাদিক হত্যা, বন্ধ গণমাধ্যম খুলে দেওয়া ও বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক অ্যাসোসিয়েশন (বিআরজেএ)।

ঠাকুরগাঁ-৩ আসনের বিএনপি থেকে নির্বাচিত জাহিদুর রহমানের সংসদে শপথ নেওয়ার বিষয়ে সমালোচনা করেন গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেন, ‘জনগণের সঙ্গে যিনি থাকতে পারেন না তিনি কোথায় শপথ নিলেন, কোথায় নিলেন না সেটা বিবেচনার বিষয় না। ১৬ কোটি মানুষ ভোট দিতে পারে নাই। জনগণ যেখানে ভোট দিতে পারেন নাই, সেখানে ৩০০ আসনে কেউ জয়লাভ করতে পারে না, করে নাই এবং কেউ পরাজিতও হয় নাই। সুতরাং দলের সিদ্ধান্ত, আদর্শ ও নেত্রীকে জেলখানায় রেখে কেউ যদি শপথ নিয়ে থাকে বা ভবিষ্যৎতে নেয়, তারা জাতীয়তাবাদী শক্তির সঙ্গে চলার যোগ্যতা রাখে না। তারা হবে গণদুশমন। জনগণই তাদের বিচার সময়মত করবে। সেটার জন্য তাদের অপেক্ষা করতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের দলীয় সিদ্ধান্ত যে আমরা পার্লামেন্টে যাবো না। দলের সিদ্ধান্ত যিনি অমান্য করবেন তারা দলের লোক হিসেবে বিবেচিত হবে না। এই সহজ কথাটি আপনারা বুঝে নেন। এতে আমরা ক্লান্ত নই, ভীত নই। ৩০০ আসনই যেখানে নির্বাচিত নয়। এর সবাই যদি এক সঙ্গে হয়ে বলে, আমরা নির্বাচিত, তাহলে জনগণ যে থুতু মারবে, সেই থুতুর ঢলে তারা একসময় ভেসে যাবে। সেদিন বুঝতে পারবে জনগণের সঙ্গে প্রতারণার পরিণতি কি।’

একই সঙ্গে খালেদা জিয়ারও মুক্তির দাবি জানান তিনি। এ সময় আয়োজক সংগঠনের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

আপনার মতামত লিখুন :