চবিতে ‘বঙ্গোপসাগরের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
চবিতে ‘বঙ্গোপসাগরের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার। ছবি: বার্তা ২৪.কম

চবিতে ‘বঙ্গোপসাগরের গুরুত্ব’ শীর্ষক সেমিনার। ছবি: বার্তা ২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগে ‘বঙ্গোপসাগরের ভূ-রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক গুরুত্ব’ শীর্ষক এক সেমিনার রোববার (৫ ডিসেম্বর) দুপুরে অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে এমফিল গবেষক নুসরাত জাহান ডায়না তার গবেষণাকর্মের আলোকে পাওয়ার পয়েন্ট প্রেজেন্টেশন উপস্থাপন করেন।

প্রফেসর ড. মাহফুজ পারভেজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ভূঁইয়া মো. মনোয়ার কবির, গবেষণা তত্ত্বাবধায়ক প্রফেসর ড. আনোয়ারা বেগম, প্রফেসর এনায়েতউল্ল্যাহ পাটোয়ারী, প্রফেসর ড. মো. সফিকুল ইসলাম, ড. জহিরুল কাইয়ূম, এজিএম নিয়াজউদ্দিন, আক্কাস আহমদ, মোহাম্মদ ইসহাক, উম্মে হাবিবা প্রমুখ।

বক্তারা বাংলাদেশের জাতীয় স্বার্থের আলোকে বঙ্গোপসাগরের ভূ-রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক গুরুত্বকে যথাযথভাবে কাজে লাগানোর আহ্বান জানিয়ে বলেন, মৎস্য সম্পদ, পর্যটন, বিশ্ব বাণিজ্য, নিরাপত্তাসহ নানাবিক কারণে দক্ষিণের সমুদ্র সম্ভাবনার বিশাল সুযোগ উন্মোচিত করেছে। বাংলাদেশের চলমান উন্নয়ন-অগ্রযাত্রাকে বেগবান করতে সমুদ্রের বহুমাত্রিক সুযোগ ও সম্পদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে।

শাবিপ্রবি অনশনরতদের মেডিকেল সাপোর্ট বন্ধের অভিযোগ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিলেট
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) অনশনরত শিক্ষার্থীদের মেডিকেল সাপোর্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) ভোররাত আড়াইটার দিকে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের জরুরি প্রেস ব্রিফিংয়ে এ সব তথ্য জানানো হয়।

আন্দোলনকারীদের এক মুখপাত্র চিকিৎসকদের বরাত দিয়ে বলেন, অনশনরত শিক্ষার্থীদের সবার অবস্থার অবনতি হচ্ছে এবং তারা ধীরে ধীরে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন। তারা সবাই খিঁচুনি, ব্লাডে অক্সিজেন ও সুগার লেভেল কমে যাওয়া, ব্লাড প্রেশারসহ নানা শারীরিক জটিলতায় পড়ছেন। তারা অর্গান ড্যামেজের ঝুঁকিতে আছেন।

তিনি আরও বলেন, অনশনকারীদের মেডিকেল রিপোর্ট বিশ্লেষণ করে সিনিয়র চিকিৎসকরা আরও জানিয়েছেন, অনশন দীর্ঘায়িত হলে যেকোনো মুহূর্তে হার্ট ফেইলিওরসহ কোমায় চলে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এরআগে, সোমবার (২৪ জানুয়ারি) রাতে আন্দোলনকারীরা অভিযোগ করে বলেন, তাদের আর্থিক সহায়তা আসা ৬টি একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিশ্ববিদ্যলয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা ব্যাংক একাউন্ট, বিকাশ, নগদ ও রকেটের মোট ৬টি একাউন্টের মাধ্যমে সহায়তার অর্থ পাঠান। এসব অর্থ দিয়ে প্রায় ৩ হাজার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীর খাবার ও আনুসাঙ্গিক খরচ চলে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দু'জন শিক্ষার্থী জানান, প্রতিদিন একাউন্টগুলোতে লাখ দুয়েক টাকার মতো আসতো। তবে আজ থেকে এ একাউন্টগুলোতে আমরা কোনো লেনদেন করতে পারছি না। ব্যাংক একাউন্টসহ সবগুলো একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। একাউন্ট বন্ধ করার ব্যাপারে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। আমার স্থানীয়ভাবে বিকাশ অফিসে যোগাযোগ করেও কোনো সদুত্তর পাইনি।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ দাবিতে গত বুধবার দুপুর আড়াইটা থেকে আমরণ অনশনে বসেন শাবিপ্রবির ২৪ জন শিক্ষার্থী। এরমধ্যে একজনের বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ায় তিনি অনশন শুরুর পরের দিনই বাড়ি চলে যান। শনিবার রাতে গণঅনশনের অংশ হিসেবে নতুন করে যোগ দেন আরও ৪ জন। সবমিলে এখন অনশনে আছেন ২৮ জন।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদের বিরুদ্ধে অসদাচরণের। অভিযোগ তুলে তাঁর পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন হলের কয়েক শ ছাত্রী। শনিবার সন্ধ্যার দিকে হলের ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ। রোববার ছাত্রীরা উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে ভিসিকে মুক্ত করে। এতে অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন। এরপর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবি উঠে।

;

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় (বাউবি) পরিচালিত সব পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। স্থগিত এসব পরীক্ষার সময়সূচি পরবর্তীতে জানানো হবে।

পরীক্ষাগুলো হলো- সিএসই, এইচএসসি (নিশ-২), এমবিএ এবং আগামী ২৮ ও ২৯ জানুয়ারি ২০২২ অনুষ্ঠিতব্য এসএসসি (নিশ-১), এইচএসসি (নিশ-১), বিএ, বিএসএস এবং ল (অনার্স), বিবিএ, এমএ অ্যান্ড এমএসএস (প্রিলিমিনারি অ্যান্ড ফাইনাল) পরীক্ষাসহ চলমান সব পরীক্ষা।

সোমবার বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য ও গণসংযোগ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক ড. আ ফ ম মেজবাহ উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন।

;

শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল



শাবিপ্রবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল

শাবিপ্রবি ভিসির পদত্যাগের দাবিতে মশাল মিছিল

  • Font increase
  • Font Decrease

ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে।

সোমবার রাত ৯টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ক্যাম্পাসে এক ঘণ্টা মশাল মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। তিন শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে মশাল মিছিলটি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে মুক্তমঞ্চে গিয়ে শেষ।

এতে শিক্ষার্থীরা বলেন, এই মিছিলটি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক-বর্তমান শিক্ষার্থীদের সিলেট আসার আহবান মিছিল। এ সময় শিক্ষার্থীরা- 'সব সাস্টিয়ান সিলেট আয়, বোমা ফরিদ ভয় পায়', 'এক দুই তিন চার, ভিসির ঘর অন্ধকার', 'এক দুই তিন চার, এই মুহূর্তে গদি ছাড়' ইত্যাদি নতুন স্লোগান দিতে থাকে।

এদিকে সোমবার বিকেল সাড়ে ৫টায় প্রক্টর ড. আলমগীর কবিরসহ প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা ভিসির বাস ভবনে প্রবেশের চেষ্টা করেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশ করতে দেয়নি। এ সময় প্রক্টর বলেন, ভিসি স্যার হার্টের রোগী। উনার জন্য আমরা কিছু ঔষধ নিয়ে আসছিলাম। এছাড়া শিক্ষকদের ডর্মে একজন অসুস্থ শিক্ষককে দেখতে চাচ্ছিলাম। আমরা অনশনরত শিক্ষার্থীদের জন্যও খাবার নিয়ে আসছিলাম কিন্তু ভেতরে যেতে পারিনি।

এদিকে অনশনরত ২৮ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে অসুস্থ ১৭ জনকে হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে ও ১১ জন ক্যাম্পাসে রয়েছে এবং তারা সবাই এখনো অনশন করছে।

উল্লেখ্য, রোববার সন্ধ্যায় ভিসির বাস ভবনের বিদ্যুৎ ও গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করে দেয় শিক্ষার্থীরা।

;

শাবিপ্রবি আন্দোলনকারীদের অর্থ সংগ্রহের ৬ অ্যাকাউন্ট বন্ধ



ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, সিলেট
ছবি: বার্তা২৪.কম

ছবি: বার্তা২৪.কম

  • Font increase
  • Font Decrease

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) আন্দোলনকারীদের আর্থিক সহায়তা আসা ৬টি অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সোমবার (২৪ জানুয়ারি) থেকে সবগুলো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যলয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা ব্যাংক, বিকাশ, নগদ ও রকেটের মোট ৬টি অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সহায়তার অর্থ পাঠান। এসব অর্থ দিয়ে প্রায় ৩ হাজার আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীর খাবার ও আনুসাঙ্গিক খরচ চলে।

আন্দোলনকারীদের ফেসবুক পেজ থেকেও এমন তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়- সকলের অবগতির জন্য জানাচ্ছি, আন্দোলনকারীদের খাবার ও চিকিৎসার জন্য যেসব ভাই-আপুরা অর্থ সহায়তা পাঠাচ্ছিলেন সেগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে এসব অ্যাকাউন্টে কেউ টাকা পাঠাবেন না।

আন্দোলনকারীরা জানান, তাদের খাবার-দাবারসহ কিছু আনুসাঙ্গিক খরচের জন্য শাবিপ্রবির সাবেক শিক্ষার্থীরা আর্থিক সহযোগিতা করেন। ইস্টার্ন ব্যাংকের একটি অ্যাকাউন্ট, তিনটি বিকাশ অ্যাকাউন্ট, একটি রকেট ও একটি নগদ অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে এ অর্থ সহায়তা আসতো।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দু'জন শিক্ষার্থী জানান, প্রতিদিন অ্যাকাউন্টগুলোতে লাখ দুয়েক টাকার মতো আসতো। তবে আজ থেকে এ অ্যাকাউন্টগুলোতে আমরা কোনো লেনদেন করতে পারছি না। ব্যাংক অ্যাকাউন্টসহ সবগুলো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার ব্যাপারে আমাদের কিছু জানানো হয়নি। আমার স্থানীয়ভাবে বিকাশ অফিসে যোগাযোগ করেও কোনো সদুত্তর পাইনি।

এ ব্যাপারে বিকাশের সিলেটের ডিস্ট্রিবিউটর নাসিম হোসাইন বলেন, অ্যাকাউন্ট বন্ধ করার বিষয়ে আমি কিছু জানি না। তবে বিকাশে লেনদেনের কিছু নিয়ম আছে। ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে সর্বোচ্চ ২৫ হাজার টাকা ও ব্যাবসয়িক অ্যাকাউন্ট থেকে সর্বোচ্চ ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত লেনদেন করা যায়। এর বেশি হলে অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যেতে পারে।

প্রসঙ্গত, গত ১৩ জানুয়ারি রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদের বিরুদ্ধে অসদাচরণের। অভিযোগ তুলে তাঁর পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন হলের কয়েক শ ছাত্রী। শনিবার সন্ধ্যার দিকে হলের ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায় ছাত্রলীগ। রোববার ছাত্রীরা উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে পুলিশ লাঠিচার্জ ও রাবার বুলেট ছুঁড়ে ভিসিকে মুক্ত করে। এতে অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন। এরপর থেকে উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন করছেন শিক্ষার্থীরা।

;