টাকা ফেরত পাবে ৩৯ হাজার ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম, ময়মনসিংহ
৭ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো, ছবি: সংগৃহীত

৭ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের লোগো, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

প্রতিবাদের মুখে ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন করেও পরীক্ষা দেওয়ার সুযোগ না পাওয়া শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরত দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কৃষি বিষয়ক ৭টি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা কমিটি।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সমন্বিত ভর্তি কার্যক্রমের ওয়েবসাইটে এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, বাছাই করার কারণে যে সকল প্রার্থী প্রবেশপত্র পায়নি ভর্তি পরীক্ষার পর তাদেরকে আংশিক খরচ বাদ দিয়ে অবশিষ্ট আবেদন ফি ফেরত দেয়া হবে।

ভর্তি কমিটি সূত্রে জানা গেছে, ভর্তি বিজ্ঞপ্তিতে আসনসংখ্যার ১০ গুণ পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষার সুযোগ দেওয়ার কথা বলা হয়েছিল। এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষায় চতুর্থ বিষয় ছাড়া মোট জিপিএ ন্যূনতম ৭ থাকলে আবেদন করতে পারতেন পরীক্ষার্থীরা। ফি নির্ধারিত ছিল এক হাজার টাকা। নির্দিষ্ট সময়ে আবেদন পড়ে ৭৫ হাজার।

তবে মোট জিপিএ ৯.১৫ ও তদূর্ধ্ব প্রাপ্ত ৩৬ হাজার শিক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এতে বাদ পড়া ৩৯ হাজার আবেদনকারীর টাকাও ফেরত দেওয়া হচ্ছিল না।

এনিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনা ও প্রতিবাদের মুখে পড়ে ভর্তি কমিটি। সব আবেদনকারীকে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার সুযোগ দিতে অথবা অনির্বাচিত শিক্ষার্থীদের টাকা ফেরত দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভাও হয়েছে বেশ কয়েকবার। এ দাবির পরিপ্রেক্ষিতে ভর্তি কমিটি অবশেষে পরীক্ষায় বসার সুযোগ না পাওয়া শিক্ষার্থীদের আবেদনের টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উল্লেখ্য, আগামী ৩০ নভেম্বর কৃষি বিষয়ক ৭টি সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে সমন্বিতভাবে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

আপনার মতামত লিখুন :