জাবিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদ আসাদকে স্মরণ



জাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
জাবিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদ আসাদকে স্মরণ

জাবিতে মোমবাতি জ্বালিয়ে শহীদ আসাদকে স্মরণ

  • Font increase
  • Font Decrease

স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে শহীদ আসাদকে স্মরণ করে মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি পালন করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের নেতাকর্মীরা।

সোমবার (২০ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে মোমবাতি প্রজ্বলন কর্মসূচি পালন করা হয়। এ সময় তারা শহীদ আসাদ ও খুলনা বিএল কলেজ শিক্ষার্থী বিপ্রদাস রায়কে স্মরণ করে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

মোমবাতি প্রজ্বলন শেষে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সভাপতি মিখা পিরেগু বলেন, ‘ঊনসত্তরের গণআন্দোলন শুরু হয়েছিল একটি মৃত মানুষকে কেন্দ্র করে, সে সময় আমাদের নেতাকর্মীরা নিজের শরীরের লাল শার্টকে রক্তে রঞ্জিত করে স্বৈরাচারকে হটাতে সক্ষম হয়েছিল। আজকেও দেখা যাচ্ছে গণতন্ত্রের নামে স্বৈরাচারী কায়দায় ক্ষমতার মসনদে বসে আছে বর্তমান সরকার।’

তিনি আরও বলেন, ‘শহীদ আসাদ যেই আদর্শ, দর্শন ও সমাজব্যবস্থাকে বুকে ধারণ করে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছিল সেটি ধারণ করে আমরা শোষণ-নিপীড়নের যে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছি এতে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার আন্দোলন আরও বেগবান হবে। ২০০১ সালের সিপিবির সমাবেশে সন্ত্রাসীরা যে হামলা করেছিল তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানাচ্ছি।’

উল্লেখ্য, ১৯৬৯ সালের ২০ জানুয়ারি স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে শহীদ হন আমানুল্লাহ মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান (আসাদ)। তিনি তৎকালীন সময়ে ছাত্র ইউনিয়নের একজন কর্মী ছিল। এছাড়া ২০০১ সালের ২০ জানুয়ারি রাজধানীর পল্টন ময়দানে সিপিবি’র মহাসমাবেশে বোমা হামলা চালানো হয়। এ হামলায় আহত হয় ছাত্র ইউনিয়ন নেতা খুলনা বিএল কলেজের শিক্ষার্থী কমরেড বিপ্রদাস রায়। পরবর্তীতে একই বছরের দুই ফেব্রুয়ারি ঢাকার বক্ষব্যাধি হাসপাতালে মারা যান তিনি।