ইউজিসির প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার, শনিবার ফের বৈঠকে বসছে রাবি

রাবি করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ছবি: সংগৃহীত

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনা ভাইরাসের কারণে ১৫ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখতে নিজেদের জারিকৃত প্রজ্ঞাপন প্রত্যাহার করেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)। ইউজিসি থেকে মৌখিকভাবে জানানো হয়েছে, কবে থেকে ক্যাম্পাস খুলে শিক্ষা কার্যক্রম শুরু করবে, তা স্ব স্ব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ নিজেরা বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নেবে।

এদিকে, ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ইউজিসির দুই রকম নির্দেশনায় বিপাকে পড়েছে রাবি কর্তৃপক্ষ। ১৫ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখতে নির্দেশনা দিয়ে জারিকৃত প্রজ্ঞাপনের আলোকে শুক্রবার (২৯ মে) বিকেলে অনির্ধারিত বৈঠক করে রাবি প্রশাসনের শীর্ষ কর্তাব্যক্তিরা।

সেখানে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়- ইউজিসির নির্দেশনা মেনে ১৫ জুন পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ রাখা হবে। বৈঠক থেকে বের হয়ে উপ-উপাচার্য আনন্দ কুমার সাহা গণমাধ্যমে জানিয়েছিলেন- ‘আগামী ১৫ জুনের আগে ক্যাম্পাস খোলা হচ্ছে না।’

সিনিয়র অধ্যাপকরা বলছেন, হুট করে ইউজিসি দুই ধরনের লিখিত ও মৌখিক আদেশ দেওয়ায় ভিন্নভাবে ভাবতে হচ্ছে রাবি কর্তৃপক্ষকে। কারণ এরই মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ৩১ মে থেকে সীমিত পরিসরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম শুরুর ঘোষণা দিয়েছেন।

ইউজিসি সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার পর কী ভাবছে প্রায় ৩৬ হাজার শিক্ষার্থীর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়? শুক্রবার (২৯ মে) রাতে ফের কথা হয় উপ-উপাচার্য অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহার সাথে। তিনি বলেন, ‘একবার তো বৈঠকে আমরা সিদ্ধান্ত নিলাম- ইউজিসির নির্দেশনা মেনে ১৫ তারিখ পর্যন্ত ক্যাম্পাস খুলবো না। কিন্তু এখন তো ভিন্ন নির্দেশনার কথা শুনছি।’

অধ্যাপক আনন্দ কুমার সাহা বলেন, ‘নতুন করে ইউজিসি চেয়ারম্যান বলেছেন, দেশের পাবলিক ও প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেরাই সিদ্ধান্ত নেবে, তারা কবে ক্যাম্পাস খুলবে। ফলে রাবি খোলার বিষয়ে শনিবার (৩০ মে) ফের উপাচার্য আমাদেরকে ডেকেছেন। সেখানে পুনরায় বৈঠক করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন সিনিয়র অধ্যাপক ও প্রশাসনের দু’জন কর্তাব্যক্তি নাম প্রকাশ না করে প্রতিবেদককে জানান, যেহেতু ইউজিসি সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছে। আবার দেশের শীর্ষ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সীমিত পরিসরে খুলে দেওয়া হচ্ছে। ফলে রাবিও সীমিত পরিসরে দ্রুত খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তে আসতে পারে কর্তৃপক্ষ। তবে সেটা শনিবারের বৈঠক শেষে চূড়ান্তভাবে নিশ্চিত হওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, সরকার অফিস, আদালত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরপরই সীমিত পরিসরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এছাড়া ২ জুন থেকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় কার্যক্রম শুরু করবে বলে জানা গেছে।

করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে গত ১৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পরবর্তীতে অনির্দিষ্টকালের জন্য ক্যাম্পাস বন্ধ ঘোষণা করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

আপনার মতামত লিখুন :