অটো-পেইন্টারদের জন্য বার্জারের অটো-রিফিনিশিং বুথ ও প্রশিক্ষণ সুবিধা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
অটো-পেইন্টারদের জন্য বার্জারের অটো-রিফিনিশিং বুথ

অটো-পেইন্টারদের জন্য বার্জারের অটো-রিফিনিশিং বুথ

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের অটোমোবাইল পেইন্টারদের জন্য সর্বাধুনিক অটো-রিফিনিশিং বুথ ও তাদের বিশ্বমানের প্রশিক্ষণ সুবিধা দিতে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশে লিমিটেড (বিপিবিএল) এবং পিপিজি কোটিংস (এম) এসডিএন.বিএইচডি.এসইএ চালু করেছে ‘বার্জার পিপিজি অটো রিফিনিশ ট্রেনিং সেন্টার’। এ উদ্যোগের ফলে, স্থানীয় গাড়ি মেরামতের দোকান, গ্যারাজ এবং গাড়ির কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত ব্যক্তিরা এ বিষয়ে তাদের কারিগরি জ্ঞান বর্ধিত করার সুযোগ পাবেন।

সম্প্রতি বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুপালী চৌধুরী বার্জার পেইন্টসের তেজগাঁও সেলস অফিসে এ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

প্রযুক্তির উৎকর্ষতা দেশের ভেহিকেল ইন্ডাস্ট্রিতে এক আমূল পরিবর্তন নিয়ে এসেছে, যা ইতিমধ্যে ব্যবহারকারীর গাড়ির রক্ষণাবেক্ষণ সংক্রান্ত প্রথাগত ধ্যানধারণায় পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। ফলে, দেশের গাড়ি নির্মাণ শিল্পে ইতিমধ্যেই রূপান্তর শুরু হয়েছে; গাড়ি মেরামতের দোকানগুলোও এ উন্নতমানের প্রযুক্তি গ্রহণ করছে। দেশের বাজারে প্রবেশ করা নতুন গাড়িগুলো আগে থেকেই গুণগত মানের রঙে আবৃত থাকে, যার ফলে সেগুলোকে পুনরায় রঙ করার ক্ষেত্রে বিশেষ পদ্ধতি অবলম্বন করার প্রয়োজন পড়ে। ফলে, উন্নত পদ্ধতিতে গাড়ি রিফিনিশ (পুনরায় রঙ) করার চাহিদা ক্রমশ বেড়ে চলছে।

অন্যদিকে, এ আধুনিক পদ্ধতিসমূহ প্রয়োগের ক্ষেত্রে সম্যক ধারণা রাখে, এমন কারিগরের সংখ্যাও অপ্রতুল। ফলশ্রুতিতে, গাড়ির মালিকরা তাদের গাড়িতে রঙ করানোর সময় রঙের নিখুঁত ফিনিশিং কিংবা অন্যান্য সমস্যার মুখোমুখি হয়। অনেক সময় সুদক্ষ, পেশাদার ও নির্ভরযোগ্য রঙের কারিগর পাওয়া কঠিন হয়ে পড়ে।

দেশে সুদক্ষ ও পেশাদার অটো রিফিনিশ রঙ মিস্ত্রি ও কারিগরদের শূন্যতা পূরণের লক্ষ্যেই ‘বার্জার পিপিজি অটো রিফিনিশ ট্রেনিং সেন্টার’ চালু করা হয়েছে। এই প্রশিক্ষণের আওতায় রঙের কারিগরদের এফিশিয়েন্ট রিপেয়ার প্রসেস, ফাস্ট রিপেয়ার, ড্রাই স্যান্ডিং প্রসেস, আইআর কিউরিং, ওয়ার্ক ফ্লো, পেইন্ট ম্যানেজারTM, র‌্যাপিড ম্যাচিং TM, কালার ম্যাচিং, ব্লেন্ডিং টেকনিকস এবং পলিশিং প্রসেস সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা দেওয়া হবে। প্রশিক্ষণ পর্বটি পরিচালিত হবে চারটি মূল উপাদানের ওপর ভিত্তি করে, এগুলো হলো- প্রসেস ইম্প্রুভমেন্ট, টেকনিক্যাল ট্রেনিং, পেইন্ট ম্যানেজার সফটওয়্যার এবং ডিস্ট্রিবিউটরস ট্রেনিং।

গাড়ি রঙ করার কারিগর, গ্যারাজ মালিক, ব্যবস্থাপক এবং প্রকৌশলী, বডি শপ প্রোডাকশন সুপারভাইজার/ফোরম্যান, কালার ম্যাচারস এবং কার পেইন্ট ডিলারস ও তাদের কর্মচারীরা বার্জার পিপিজি অটো রিফিনিশ ট্রেনিং সেন্টারে প্রশিক্ষণ গ্রহণের জন্য তালিকাভুক্ত ও নির্বাচিত হওয়ার সুযোগ পাবেন, এবং এই কার্যক্রমটি ধাপে ধাপে অনুষ্ঠিত হবে। বিভিন্ন প্রকৌশল প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষানবিশ প্রকৌশলীগণও অটো রিফিনিশ পেইন্টিং প্রক্রিয়া ও রঙের ক্ষেত্রে প্রযুক্তির ব্যবহার প্রসঙ্গে ধারণা লাভ করতে পারবেন। বিশ্বখ্যাত রঙ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান পিপিজি এবং বার্জার বিগত দশ বছর ধরে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন অটো রিফিনিশিং সুবিধা সরবরাহের লক্ষ্যে একযোগে কাজ করে যাচ্ছে। এবার এই খাতের সাথে সম্পৃক্ত সকলকে অটো রিফিনিশিং পেইন্টিং প্রক্রিয়া সম্পর্কে প্রাসঙ্গিক জ্ঞান প্রদানের লক্ষ্যে তারা এমন যৌথ উদ্যোগ নিয়েছে। এই বিশেষ প্রশিক্ষণের ফলে খ্যাতনামা গাড়ি উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রতিনিধিরা উপকৃত হবে, কারণ এটি সংশ্লিষ্ট খাতের উৎপাদনশীলতা ও কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি, কর্মীদের দক্ষতার অগ্রগতি সাধন এবং আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত পেইন্টিং প্রক্রিয়া ও মানদণ্ড অনুসরণ, পেশাদারিত্ব এবং অটোমেশনের আওতায় গুণগত সেবা প্রদানে ভূমিকা রাখবে।

এ ভিন্নধর্মী উদ্যোগ নিয়ে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশে লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রুপালী চৌধুরী বলেন, নিজের প্রিয় গাড়িটির রক্ষণাবেক্ষণের জন্য বাংলাদেশে গাড়ির মালিকরা বড় অঙ্কের অর্থ ব্যয় করে থাকেন। কেনার পরই যদি একটি গাড়ির বাহ্যিক কোটিংয়ে সমস্যা দেখা দেয়, তাহলে তা একদিকে যেমন গাড়ির ব্র্যান্ডের ভাবমূর্তি বিনষ্ট করে, তেমনি গাড়ির ক্রেতার মাঝেও অসন্তোষ সৃষ্টি করে। দেশের অসংখ্য যুগান্তকারী পরিবর্তনের বাহক বার্জার এবার এক অত্যাধুনিক ট্রেনিং সেন্টার চালু করেছে, যা রঙের কারিগরদেরকে দক্ষ করে তুলবে এবং যা প্রকারান্তে গাড়ির মালিকদের জন্য সুবিধা বয়ে আনবে। আমাদের প্রত্যাশা, বার্জার পিপিজি অটো রিফিনিশ ট্রেনিং সেন্টার থেকে স্বীকৃতিপ্রাপ্ত কারিগররা তাদের কাজের দক্ষতা দিয়ে দেশের অটো রিফিনিশ ইন্ডাস্ট্রিতে পরিবর্তনের স্বাক্ষর রাখতে সক্ষম হবেন।

প্রশিক্ষণ কেন্দ্র উদ্বোধনকালে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এদের মধ্যে সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার সেলস অ্যান্ড মার্কেটিংয়ের মহসিন হাবিব চৌধুরী, জেনারেল ম্যানেজার (মার্কেটিং) এ কে এম সাদেক নাওয়াজ, হেড স্পেশাল কোটিংস মোখলেচুর রহমান, হেড ভেহিকেল রিফিনিশ সুব্রত পাল এবং মো. আব্দুল্লাহ-আস-সালাম, ব্র্যান্ড ম্যানেজার, মার্কেটিং।

২-৫ দিন মেয়াদি দিনব্যাপী ট্রেনিং সেশনগুলোতে প্রশিক্ষণ প্রদান করবেন পিপিজি পেইন্টস, এসইএ এবং বিপিবিএল’র আন্তর্জাতিক প্রশিক্ষকবৃন্দ। সফলভাবে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা প্রত্যেক প্রশিক্ষণার্থীকে সার্টিফিকেট প্রদান করবে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লিমিটেড ও পিপিজি পেইন্টস।