দেশীয় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল থেকে বিনিয়োগ পেল বেস্ট এইড



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
দেশীয় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল থেকে বিনিয়োগ পেল বেস্ট এইড

দেশীয় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল থেকে বিনিয়োগ পেল বেস্ট এইড

  • Font increase
  • Font Decrease

YY ভেঞ্চারস থেকে বাংলাদেশের অন্যতম হেলথ টেক স্টার্টআপ বেস্ট এইড লিমিটেড বিনিয়োগ পেলো ৷ রোববার (২৩ জানুয়ারি) এ তথ্য বেস্ট এইডের প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আলামিন প্রান্ত নিশ্চিত করেছেন।

গ্রামীণ টেলিকম ভবনে YY ভেঞ্চারের অফিসে চুক্তি স্বাক্ষর করেন বেস্ট এইডের সিইও জনাব মীর হাসিব মাহমুদ ও YY ভেঞ্চারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এস এম খাইরুল ইসলাম।

বেস্ট এইড ২০২০ থেকে ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে ১৩ জনের টিম, ৬৭ জন বিশেষজ্ঞ ডাক্তার প্যানেল, ১০০+ এজেন্ট এবং ইন্টার্ন - এম্বাসেডর আছে ৭০ জন।  এখন পর্যন্ত যেসকল সাফল্য অর্জন করেছে বেস্ট এইড তা হল: আইসিটি ফান্ড, জাতীয় কভিড পোর্টাল corona.gov.bd তে অর্ন্তভুক্তি, অন্ট্রাপ্রনারশিপ ওয়ার্ল্ডকাপ ২০২১ ফাইনালিস্ট, ইমাজিন ইফ বাংলাদেশের ২য় রানারআপ, সিমকিউবেটর ২০২১ এর ১ম রানারআপ, ইমপেক্ট হাব গ্লোবাল কো হোর্ট এর ফাইনালিস্ট।

বেস্ট এইডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মীর হাসিব মাহমুদ বলেন, বিনিয়োগ নিয়ে YY ভেঞ্চারের সাথে গতবছর থেকেই কথা চলছিলো। সর্বশেষ ২০২২ এর জানুয়ারী মাসে বিনিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করে YY ভেঞ্চার। আমরা বিনিয়োগের টাকায় স্বাস্থ্যসেবায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে আসবো। আমরা আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স(AI) এর মাধ্যমে মেডিক্যাল হেলথ এসিস্ট্যান্ট নিয়ে আসবো। এছাড়াও সাধারণ সেবা এবং IOT এর সংমিশ্রণে কিভাবে উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদান করা যায় তা নিয়েও আমাদের গবেষণা চলছে।

বিনিয়োগের ধরন সম্পর্কে হাসিব মাহমুদ বলেন, সম্পুর্ণ বিনিয়োগটি কনফিডেনসিয়াল। এখনি আমরা কিছু জানাচ্ছি না। তবে আমরা খুবই আশাবাদী বেস্ট এইড এবং YY ভেঞ্চারের যৌথ পার্টনারশিপে স্বাস্থ্যসেবায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে অনেক কাজ করা সম্ভব।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন বেস্ট এইডের প্রধান অপারেশন কর্মকর্তা আহমেদ ওমর ইউসুফ, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা আলামিন প্রান্ত ও YY ভেঞ্চারের ফাইন্যান্স এবং একাউন্ট ম্যানেজার শেহফাজ বিন রাহিম।

ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের সঙ্গে ‘নগদ’-এর মতবিনিময় সভা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের সঙ্গে ‘নগদ’-এর মতবিনিময় সভা

ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগের সঙ্গে ‘নগদ’-এর মতবিনিময় সভা

  • Font increase
  • Font Decrease

মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সেক্টরে গ্রাহকদের আর্থিক নিরাপত্তার বিষয়টিকে প্রাধান্য দিয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভা করেছে ‘নগদ’। প্রতিষ্ঠানটির এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স ডিভিশনের উদ্যোগে আয়োজিত এই সভায় আলোচকেরা এমএফএস খাতের বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করেন।

সম্প্রতি ঢাকার একটি পাঁচতারকা হোটেলে আয়োজিত এই সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার। এসময় ডিএমপির (উত্তর) যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মুহাম্মদ হারুন অর রশিদ এবং ডিএমপির (দক্ষিণ) যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. মাহবুব আলম, ‘নগদ’ লিমিটেডের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট ও ‘নগদ’-এর নির্বাহী পরিচালক মারুফুল ইসলাম ঝলক। অনুষ্ঠানে ‘নগদ’-এর চিফ অব এক্সটার্নাল অ্যাফেয়ার্স লে. কর্নেল মো. কাওসার সওকত আলী (অব.) ধন্যবাদ বক্তব্য দেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, তিন বছরে ‘নগদ’ অনেক ভালো করেছে। ‘নগদ’-এর মতো প্রযুক্তিগতভাবে আধুনিক সেবা বাজারে যত বেশি থাকবে, মানুষ ততো বেশি উপকৃত হবে। আমরা চাই বাজারে যারা এমএফএস সেবা দিচ্ছে, তারা সবাই ভালো করুক। গ্রাহকের কষ্টার্জিত অর্থ যেন নিরাপদ থাকে, সে জন্য সবসময় আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। এ ছাড়া গ্রাহকদেরও সচেতন থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে ডিএমপির (উত্তর) যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মুহাম্মদ হারুন অর রশিদ এবং ডিএমপির (দক্ষিণ) যুগ্ম পুলিশ কমিশনার (গোয়েন্দা) মো. মাহবুব আলম বক্তব্য দেন। তাঁরা নগদ-এর ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং ভবিষ্যতে গ্রাহকের সেবা দিতে গোয়েন্দা পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে বরাবরের মতো সহেযাগিতা করার আহ্বান জানান।

‘নগদ’-এর নির্বাহী পরিচালক নিয়াজ মোর্শেদ এলিট বলেন, ‘নগদ’ শুরু থেকে একটি গ্রাহকবান্ধব সেবা হিসেবে মানুষের কাছে পরিচিত হয়ে আসছে। ‘নগদ’-এর প্রযুক্তি, লেনদেন খরচ এবং সহজলভ্যতা অন্যান্য অনেক প্রতিষ্ঠানের চেয়ে যুগোপযোগী। আমি আন্তরিকভাবে ডিএমপির গোয়েন্দা বিভাগকে ধন্যবাদ জানাতে চাই, তারা বিভিন্ন সময় আমাদের বুদ্ধি-পরামর্শ ও প্রয়োজনে সহযোগিতা করেছেন। আমার বিশ্বাস, সামনের দিনেও আমাদের পারস্পরিক এই সম্পর্ক অবিচ্ছিন্ন থাকবে।

অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা ‘নগদ’-এর প্রযুক্তিগত সক্ষমতার বিষয়ে প্রশংসা করেন। এত কম সময়ে এত বেশি গ্রাহকভিত্তি তৈরি করা এবং কোনো ধরনের ঝামেলা ছাড়া কয়েক সেকেন্ডে অ্যাকাউন্ট খোলার প্রযুক্তি নিয়ে আসার বিষয়গুলোর প্রশংসা করেন অতিথিরা।

‘নগদ’ ইতিপূর্বে বাংলাদেশ পুলিশের সার্বিক সহযোগিতায় দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সচেতনতামূলক কর্মশালার আয়োজন করেছে। তার মধ্যে মানি লন্ডারিং, সন্ত্রাসে অর্থায়ন প্রতিরোধ, উদ্যোক্তাদের সচেতনতা বৃদ্ধি, সন্দেহজনক লেনদেনসহ প্রতারণা সংক্রান্ত বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির কাজসমূহ উল্লেখযোগ্য।

এ ছাড়া মতবিনিময় সভা উপলক্ষ্যে নৈশভোজ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের পাশাপাশি ‘নগদ’-এর পক্ষ থেকে প্রধান অতিথি ও বিশেষ অতিথিদের সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

;

ব্র্যাক ব্যাংক ‘তারা’র সঙ্গে গ্রিন ডেল্টা ইন্সুরেন্সের চুক্তি



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ব্র্যাক ব্যাংক ‘তারা’র সঙ্গে গ্রিন ডেল্টা ইন্সুরেন্সের চুক্তি

ব্র্যাক ব্যাংক ‘তারা’র সঙ্গে গ্রিন ডেল্টা ইন্সুরেন্সের চুক্তি

  • Font increase
  • Font Decrease

গ্রাহকদের ডিজিটাল হেলথকেয়ার প্যাকেজ সুবিধা প্রদান করতে সম্প্রতি গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির সঙ্গে একটি পার্টনারশিপ চুক্তি স্বাক্ষর করেছে ব্র্যাক ব্যাংক উইমেন ব্যাংকিং সেগমেন্ট তারা (TARA)।

এ চুক্তির আওতায় ‘TARA’ এসএমই ও রিটেইল লোন, ডিপোজিট ও ক্রেডিট কার্ডের গ্রাহকরা গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স থেকে ১২ মাসের জন্য ফ্রি ডিজিটাল হেলথকেয়ার প্যাকেজ সুবিধা পাবেন।

ডিজিটাল হেলথকেয়ার প্যাকেজের আওতায় থাকা গ্রাহকরা হাসপাতালে ভর্তির ক্ষেত্রে ৪০,০০০ টাকা এবং ম্যাটার্নিটির ক্ষেত্রে ২০,০০০ টাকা পর্যন্ত এবং গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় / দুর্ঘটনাজনিত মৃত্যুতে ১০,০০০ টাকার সুবিধা পাবেন। সেই সাথে ওপিডি সুবিধা, ডাক্তারের সাথে অডিও ও ভিডিও কল কাউন্সেলিং, ডাক্তারের অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুকিং, বিভিন্ন পার্টনার আউটলেটে ডিসকাউন্টসহ রয়েছে আরও নানান সুবিধা।

গত ১৮ মে ব্র্যাক ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড হেড অব এসএমই ব্যাংকিং সৈয়দ আব্দুল মোমেন ও হেড অব রিটেইল ব্যাংকিং মোঃ মাহীয়ুল ইসলাম। সেই সঙ্গে গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স থেকে উপস্থিত ছিলেন অ্যাডিশনাল ম্যানেজিং ডিরেক্টর অ্যান্ড কোম্পানি সেক্রেটারি সৈয়দ মঈনউদ্দীন আহমেদ ও হেড অব ইম্প্যাক্ট বিজনেস অ্যান্ড এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট শুভাশিস বড়ুয়া। ব্র্যাক ব্যাংক থেকে হেড অব উইমেন ব্যাংকিং (TARA অ্যান্ড আগামী) - মেহরুবা রেজা ও হেড অব উইমেন এন্ট্রপ্রেনর সেল - খাদিজা মরিয়মসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দও উপস্থিত ছিলেন।

এ চুক্তি সম্পর্কে সৈয়দ আব্দুল মোমেন বলেন, ব্যক্তি বা উদ্যোক্তা সমাজের সব শ্রেণির নারীদের ব্যাংকিং সেবা প্রদান করছে ‘TARA’। একই সাথে এটি নারীদের সঠিক অর্থায়ন পরিকল্পনা, অর্থনৈতিক স্বাধীনতা অর্জন ও জীবনের লক্ষ্য অর্জনে সাহায্য করছে। ‘TARA’ কেবলমাত্র একটি ব্যাংকিং সেবা নয়, এটি নারীর অমিত সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপ দেওয়ার একটি কার্যকরী সমাধান। ‘TARA’ সবসময় নারীর স্বপ্নপূরণের পথে সহায়ক ভূমিকা পালন করে আসছে।

মো. মাহীয়ুল ইসলাম বলেন, বিমা সুবিধাসহ ‘TARA’র এসএমই ও রিটেইল ব্যাংকিং সেবা নারী গ্রাহকদের জন্য অনেক বেশি সহায়ক হবে।হসপিটালাইজেশন, ম্যাটার্নিটি সেবা, লাইফ ইন্স্যুরেন্স, ওপিডি সুবিধা ‘TARA’-কে পূণার্ঙ্গ ব্যাংকিং সেবায় পরিণত করেছে, যা আর্থিক সেবা প্রদানের পাশাপাশি নারীদের সুস্বাস্থ্য নিয়েও যত্নশীল। এসকল সুবিধাসমূহ ‘TARA’-কে বাংলাদেশের অন্যতম পূর্ণাঙ্গ নারী ব্যাংকিং সেবার মর্যাদা এনে দিয়েছে।

সৈয়দ মঈনউদ্দীন আহমেদ বলেন, গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি দীর্ঘ সময় ধরে নারীকেন্দ্রিক বিভিন্ন পণ্যের বিকাশ ও উদ্ভাবন নিয়ে একনিষ্ঠভাবে কাজ করে আসছে, যেগুলোর মধ্যে উল্লেখযোগ্য এবং বিশ্বপর্যায়ে পুরস্কৃত একটি পণ্য হচ্ছে - নিবেদিতা। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে ব্র্যাক ব্যাংক ‘TARA’-এর সাথে এই চুক্তির ফলে ব্যাংকিং এবং স্বাস্থ্য খাতে অবদান রাখার পাশাপাশি বিমা সেবা প্রদানের মাধ্যমে দেশের মানুষের বিমা অন্তর্ভুক্তি ও বাংলাদেশের টেকসই উন্নয়নে আমরা ভূমিকা রাখতে পারবো।

;

হজযাত্রীদের জন্য ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা থাকবে আজ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে হজ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত ব্যাংকের শাখা আজ শনিবার খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ জন্য ব্যাংকের প্রধান প্রধান শাখা এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের প্রয়োজনীয় শাখা পূর্ণ দিবস খোলা রাখতে হবে।

শুক্রবার রাতে এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এই প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর আগে একই কারণে গত শনিবারও ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা ছিল। ওই সময় প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল, সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে হজ কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শাখা/উপশাখাগুলো পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করে সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পূর্ণ দিবস খোলা রাখার বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হলো।

সাধারণত ব্যাংকের বৈদেশিক বাণিজ্যের সঙ্গে যুক্ত শাখা শনিবার অর্ধদিবস খোলা থাকে। এখন এই নির্দেশনার কারণে শনিবার কোন কোন শাখা খোলা থাকবে, ব্যাংকগুলোকে রাতের মধ্যে সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তে ক্ষোভ জানিয়েছেন ব্যাংকাররা।

;

হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে শনিবার ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা থাকবে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে শনিবার ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা রাখার নির্দেশ

হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে শনিবার ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা রাখার নির্দেশ

  • Font increase
  • Font Decrease

সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে হজ কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত ব্যাংকের শাখা  শনিবার (২৮ মে) খোলা রাখার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ জন্য ব্যাংকের প্রধান প্রধান শাখা এবং জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের প্রয়োজনীয় শাখা পূর্ণ দিবস খোলা রাখতে হবে।

শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ ব্যাংক এক প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য জানিয়েছে। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে এই প্রজ্ঞাপন জারি করেছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর আগে একই কারণে গত শনিবারও ব্যাংকের কিছু শাখা খোলা ছিল। ওই সময় প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছিল, সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনার স্বার্থে হজ কার্যক্রমের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকের শাখা/উপশাখাগুলো পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নিশ্চিত করে সাপ্তাহিক ছুটির দিনে পূর্ণ দিবস খোলা রাখার বিষয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেওয়া হলো।

সাধারণত ব্যাংকের বৈদেশিক বাণিজ্যের সঙ্গে যুক্ত শাখা শনিবার অর্ধদিবস খোলা থাকে। এখন এই নির্দেশনার কারণে শনিবার কোন কোন শাখা খোলা থাকবে, ব্যাংকগুলোকে রাতের মধ্যে সেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। তবে হঠাৎ এমন সিদ্ধান্তে ক্ষোভ জানিয়েছেন ব্যাংকাররা।

;