বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হলো বাংলাদেশ ই-কমার্স সামিট



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে গত ২৮ মে রাজধানীর রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে অনুষ্ঠিত হয়েছে দারাজের সৌজন্যে বাংলাদেশ ই-কমার্স সামিটের দ্বিতীয় অধিবেশনের। আয়োজনটির সঞ্চালনায় ছিলো ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, সহযোগিতায় এটুআই - এসপায়ার টু ইনোভেট এবং সম্পৃক্ততায় মাস্টারকার্ড, দ্য ডেইলি স্টার ও উইমেন এন্ড ই-কমার্স। দিনব্যাপী এই আয়োজনে দেশ এবং বিদেশের ই-কমার্স সেক্টরে কর্মরত বিশেষজ্ঞ, সিদ্ধান্ত প্রণেতা এবং চিন্তাবিদেরা অংশগ্রহণ করে আলোচনা এবং মত বিনিময় করেন। আধুনিক যুগের জন্য ই-কমার্সকে নতুনভাবে গড়ে তোলার মূলমন্ত্র নিয়েই আলোচনা গুলো আবর্তিত হয়।

৪টি কিনোট সেশন, ৩টি প্যানেল ডিসকাশন, ২টি ইনসাইট সেশন, ২টি কেস স্টাডি এবং ১টি পলিসি ডায়লগের সমন্বয়ে এই বছরের ই-কমার্স সামিটটি আয়োজিত হয়। বিশেষজ্ঞ আলোচকেরা উন্নয়নশীল প্রযুক্তি, জালিয়াতি নিরাপত্তা, ভোক্তা পুনরাবৃত্তি, লজিস্টিক ম্যানেজমেন্ট, পেমেন্টসহ ই-কমার্স সম্পৃক্ত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোচনা করেন। ই-কমার্সের মতো নিত্য পরিবর্তনশীল সম্ভাবনাময় ক্ষেত্রে সাফল্যের সাথে কার্য পরিচালনার জন্য এইসকল আলোচনা সামিটে আগত পেশাজীবীদের দিক নির্দেশনার মতো কাজ করবে। সামিটে কিনোট বক্তা হিসেবে নিজদের মূল্যবান মতামত ও অভিজ্ঞতা আলোচনা করেন বিশ্বপ্রিয় ভট্টাচার্য, ডিরেক্টর, বিটুবি এন্ড টেকনোলজি, ইনসাইটস ডিভিশন, কানটার; দাতো এরিক কু ইয়ি ফিই,, ডেপুটি চেয়ারম্যান, ডিজিটাল ইকোনমি কমিটি, এসিসিআইএম; এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর, আইট্রেন (এম) এসডিএন. বিএইচডি; জাকারিয়া বেগ, সাবেক গ্লোবাল মার্কেটিং ডিরেক্টর, রেকিট; জ্যাক ইয়াও, সেক্রেটারি জেনারেল, চায়না কাউন্সিল ফর প্রমোশন অফ ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড, প্রেসিডেন্ট, এশিয়া কাউন্সিল ফর স্মল বিজনেস, ১ম ভাইস প্রেসিডেন্ট, এশিয়া মার্কেটিং ফেডারেশন; চেয়ারপারসন, আইসো/টিসি ৩৪২ (ম্যানেজমেন্ট কনসালটান্সি)।

২য় বাংলাদেশ ই-কমার্স সামিটটির দিনব্যাপী কর্মসূচির উদ্বোধন করেন ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের সভাপতি শমী কায়সার। তার বক্তব্যে উঠে আসে বাংলাদেশের ই-কমার্স খাতের প্রবৃদ্ধিসহ বাংলাদেশ ই-কমার্স সামিট আয়োজনটির প্রাসঙ্গিকতা ও প্রয়োজনীয়তা। এছাড়াও আয়োজনটির পৃষ্ঠপোষক বক্তব্যে কথা তালাত রহিম, চিফ মার্কেটিং অফিসার, দারাজ বাংলাদেশ এবং সৈয়দ মোহাম্মদ কামাল, কান্ট্রি ম্যানেজার, মাস্টারকার্ড বাংলাদেশ এবং চোংয়া ওয়াং, এসিস্টেন্ট রিসার্চার, চায়না কাউন্সিল ফর দ্য প্রমোশন অব ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড (সিসিপিআইটি)।

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক; শরিফুল ইসলাম, সম্মেলনটির স্বাগত বক্তৃতায় বলেন, ""ই-কমার্স একটি দ্রুত অগ্রগতিশীল খাত। প্রতি বছরই আমরা এই খাতে অনেক আধুনিক উদ্ভাবন ও অনুশীলন লক্ষ্য করেছি। তাই, এসকল পরিবর্তনগুলির যথাযথভাবে বাস্তবায়ন সম্পর্কে আলোচনা করা আমাদের দায়িত্ব। এই সম্মেলনটি ই-কমার্স খাতকে অভিনব যাবতীয় পরিবর্তনের সাথে সমন্বয় ঘটিয়ে এগিয়ে নিয়ে যেতে সাহায্য করবে।

এছাড়াও সামিটের অন্যান্য আলোচনায় বক্তা হিসেবে ছিলেনঃ ডঃ সৈয়দ ফেরহাত আনোয়ার, প্রেসিডেন্ট, এশিয়া মার্কেটিং ফেডারেশন (এএমএফ); প্রফেসর এবং ইমিডিয়েট পাস্ট ডিরেক্টর, আইবিএ - ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়; ড. দেওয়ান এম হুমায়ুন কবির, প্রজেক্ট ডিরেক্টর (এডিশনাল সেক্রেটারি), এটুআই -এসপায়ার টু ইনোভেট; রাসেলটি. আহমেদ, প্রেসিডেন্ট, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস); রাফেজা আক্তার কান্ত, এডিশনাল ডিরেক্টর, বাংলাদেশ ব্যাংক; এবং এ এইচ এম হাসিনুল কুদ্দুস রুশো, চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার, দারাজ বাংলাদেশ।

বাংলাদেশে ক্রমবর্ধনশীল ই-কমার্সের গতিবিধি ও দিকনির্দেশনা প্রণয়নে আলোচিত হয়েছে উপমহদেশীয় ই- কমার্সের সংস্কৃতি সহ ওপেন ডিজিটাল কমার্স, ই-কমার্সের স্থানীয় ও ক্রস বর্ডার লজিস্টিক সমাধান, ই- কমার্সের চ্যাট জিপির প্রয়োগ এবং বাংলাদেশে এফ-কমার্সের প্রসারের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াবলি। দারাজের সৌজন্যে বাংলাদেশ ই-কমার্স সামিটের দ্বিতীয় অধিবেশনটি বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের একটি উদ্যোগ। আয়োজনটির সঞ্চালনায় ছিলো ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ, সহযোগিতায় এটুআই -এসপায়ার টু ইনোভেট এবং সম্পৃক্ততায় মাস্টারকার্ড, দ্য ডেইলি স্টার ও উইমেন এন্ড ই-কমার্স। এছাড়াও আয়োজনটির অংশীদারিত্বে ছিলো চায়না কাউন্সিল ফর দ্য প্রোমোশন অব ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড। সাপোর্টেড বাই- বাই হেয়ার নাও; স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার-এশিয়া কাউন্সিল ফর স্মল বিজনেস, মার্কেটার্স ইন্সটিটিউট বাংলাদেশ, স্টাইজেন, সাসটেইনাবিলিটি পার্টনার- বাজার ৩৬৫; নলেজ পার্টনার-এশিয়া মার্কেটিং ফেডারেশন, মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ; হসপিটালিটি পার্টনার-রেডিসন ব্লু ঢাকা ওয়াটার গার্ডেন; টেকনোলজি পার্টনার - আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড; পিআর পার্টনার - ব্যাকপেজ পিআর।

   

ইসলামী ব্যাংকের শরী‘আহ পরিপালন আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ পিএলসি-এর বগুড়া জোনের গ্রাহকদের নিয়ে “ব্যাংকিং কার্যক্রমে শরী‘আহ পরিপালন” শীর্ষক আলোচনা সভা সম্প্রতি বগুড়ার বড়গোলা শাখা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ব্যাংকের শরী‘আহ সুপারভাইজরি কমিটির সদস্য ড. মোঃ রুহুল আমিন রব্বানী প্রধান অতিথি এবং ডেপুটি ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মুহাম্মদ সাব্বির বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন। ব্যাংকের বগুড়া জোন প্রধান মোঃ রেজাউল ইসলামের সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন বগুড়া শাখা প্রধান মোঃ আফজাল হোসেন।

মূল বিষয়ের ওপর আলোচনা উপস্থাপন করেন শরী‘আহ সেক্রেটারিয়েট-এর ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান। কর্মশালায় জোনের নির্বাহী, কর্মকর্তা ও গ্রাহকগণ অংশগ্রহণ করেন।

;

ভিসা এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড জিতল নগদ



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

দেশের ডিজিটাল পেমেন্ট বৃদ্ধিতে অনবদ্য ভূমিকা রাখার জন্য সবচেয়ে দ্রুতবর্ধনশীল এমএফএস নগদ ভিসা এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২৩ অর্জন করেছে। ভিসার সম্মানজনক এই অ্যাওয়ার্ড নগদ-এর পাশাপাশি দেশের মূলধারার কয়েকটি ব্যাংকও অর্জন করেছে।

সম্প্রতি ঢাকার একটি পাঁচতারকা হোটেলে ‘টুওয়ার্ডস আ ক্যাশলেস, স্মার্ট বাংলাদেশ’ শিরোনামে এই পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ভিসা বাংলাদেশ। এবারের ‘ভিসা লিডারশিপ কনক্লেভ-২০২৩-’এ ক্রেডিট কার্ড বিল পেমেন্ট এবং ডেবিট কার্ডে টাকা ট্রান্সফারের ক্ষেত্রে ‘এক্সিলেন্স ইন সাইবারসোর্স-পে আউট,’ ক্যাটাগরিতে নগদ পুরস্কার অর্জন করেছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় পরিকল্পনা মন্ত্রী জনাব এম এ মান্নান, এমপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট বিভাগের পরিচালক মো: শরাফাত উল্লাহ খান।

এ ছাড়া ভিসা বাংলাদেশ, নেপাল ও ভুটানের কান্ট্রি ম্যানেজার সৌম্য বসু ও ভিসার অন্যান্য কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন পর্যায়ের আমন্ত্রিত অতিথিরা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে নগদ-এর পক্ষে প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ আমিনুল হক, চিফ কমার্শিয়াল অফিসার সিহাব উদ্দীন চৌধুরী ও হেড অব প্রোডাক্ট ডেভেলপমেন্ট গোলাম জামিল আহমেদ পুরস্কার গ্রহণ করেন।

পুরস্কার প্রাপ্তির বিষয়ে নগদ-এর চিফ কমার্শিয়াল অফিসার সিহাব উদ্দীন চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের পার্টনার ভিসার কাছ থেকে পাওয়া এমন স্বীকৃতি আমাদের জন্য সম্মানের। দেশের ডিজিটাল লেনদেন ব্যবস্থার ইতিবাচক পরিবর্তন করতে এবং গ্রাহকের সুবিধামতো সেবা দেওয়ার জন্য আরো প্রোডাক্ট নিয়ে আসতে এই স্বীকৃতি আমাদের সাহায্য করবে।’

বাৎসরিক এই কনক্লেভ-এ ভিসা তাদের পার্টনার ব্যাংক, ফিনটেক কোম্পানি, মার্চেন্ট এবং অন্যান্য অংশীদারদের সম্মাননা জানায়। ক্রস বর্ডার পেমেন্ট, প্রোডাক্ট ইনোভেশন, ফিনটেক পার্টনারশিপ, সাইবারসোর্স, ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসেসসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে তারা এসব পুরস্কার দিয়ে থাকে।

এবারের আয়োজনে ফিনটেকের পাশাপাশি ইসলামি ব্যাংক বাংলাদেশ, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, দ্য সিটি ব্যাংক, হংকং সাংহাই ব্যাংকিং করপোরেশন (এইচএসবিসি), ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, দ্য প্রিমিয়ার ব্যাংক, ঢাকা ব্যাংক এবং ডাচ বাংলা ব্যাংক বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার অর্জন করেছে।

;

নভোএয়ার সময়ানুযায়ী ফ্লাইট পরিচালনায় সেরা এয়ারলাইন



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
নভোএয়ার সময়ানুযায়ী ফ্লাইট পরিচালনায় সেরা এয়ারলাইন

নভোএয়ার সময়ানুযায়ী ফ্লাইট পরিচালনায় সেরা এয়ারলাইন

  • Font increase
  • Font Decrease

নভোএয়ার অভ্যন্তরীণ রুটে সময়ানুযায়ী ফ্লাইট পরিচালনায় সেরা এয়ারলাইন হিসেবে ২০২৩ সালের ‘বেস্ট অন টাইম পারফরমেন্স এয়ারলাইন’ ক্যাটাগরিতে গোল্ড পুরস্কার পেয়েছে। এছাড়া বেস্ট ডমেস্টিক এয়ারলাইন, মোস্ট কাস্টমার ফ্রেন্ডলি এয়ালাইন (ডমেস্টিক), বেস্ট ইন-ফ্লাইট সার্ভিস (ডমেস্টিক) এই তিন ক্যাটাগরির প্রত্যেকটিতে সিলভার পুরস্কার লাভ করেছে।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত ‘শেয়ারট্রিপ-মনিটর এয়ারলাইন অফ দ্য ইয়ার-২০২৩’ অনুষ্ঠানে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী’র হাত থেকে এই পুরস্কারগুলো গ্রহন করেন নভোএয়ারের হেড অব মার্কেটিং এন্ড সেলস মেজবাউল ইসলাম।

ভ্রমণ ও পর্যটন বিষয়ক পাক্ষিক দ্য বাংলাদেশ মনিটর পরিচালিত আকাশপথে নিয়মিত ভ্রমণকারীদের অনলাইনে মতামত জরিপের ভিত্তিতে এ পুরস্কার দেওয়া হয়েছে।

নভোএয়ারের হেড অব মার্কেটিং এন্ড সেলস মেজবাউল ইসলাম বলেন, এই স্বীকৃতি আগামীর পথচলায় আমাদের উৎসাহ জোগাবে। নভোএয়ার শুরু থেকেই যাত্রীদের সর্বোচ্চ সেবা দেওয়ার জন্য বদ্ধপরিকর। নভোএয়ার সময়ানুযায়ী ফ্লাইট পরিচালনায় ও নিরাপদ ভ্রমণে যাত্রীদের বিশ্বস্ততা অর্জন করেছে। পূর্ণ যাত্রী সন্তুষ্টি এবং উন্নততর সেবার প্রতিশ্রুতি আমাদের পরিচালনার সকল স্তরে অব্যাহত থাকবে।

নভোএয়ার বর্তমানে প্রতিদিন ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সৈয়দপুর, যশোর, সিলেট, রাজশাহী ও কলকাতায় ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

;

ইন-ফ্লাইট সার্ভিস ক্যাটাগরিতে গোল্ড পুরস্কার পেল এয়ার এ্যাস্ট্রা



নিউজ ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ইন-ফ্লাইট সার্ভিস ক্যাটাগরিতে গোল্ড পুরস্কার পেল এয়ার এ্যাস্ট্রা

ইন-ফ্লাইট সার্ভিস ক্যাটাগরিতে গোল্ড পুরস্কার পেল এয়ার এ্যাস্ট্রা

  • Font increase
  • Font Decrease

‘মনিটর এয়ারলাইন অব দ্য ইয়ার ২০২৩’- এ বেস্ট ইন-ফ্লাইট সার্ভিস ক্যাটাগরিতে সেরা হয়েছে এয়ার এ্যাস্ট্রা।

বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাতে রাজধানীর ইন্টারকন্টিনেন্টাল হোটেলে বাংলাদেশ মনিটর আয়োজিত গালা অ্যাওয়ার্ড নাইটে এয়ার এ্যাস্ট্রার সিইও ইমরান আসিফের হাতে বেস্ট ইন-ফ্লাইট সার্ভিস ক্যাটাগরির গোল্ড পুরস্কার তুলে দেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী।

যাত্রী সন্তুষ্টির প্রতিশ্রুতির জন্য পরিচিত এয়ার এ্যাস্ট্রা ২০২২ সালের ২৪ নভেম্বর যাত্রা শুরু করে বর্তমানে কক্সবাজার, চট্টগ্রাম, সৈয়দপুর ও সিলেটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। এয়ার এ্যাস্ট্রা’র বহরে বর্তমানে তিনটি এটিআর ৭২-৬০০ এয়ারক্রাফট রয়েছে, যা ফ্রান্সে নির্মিত সর্বাধুনিক প্রযুক্তির টার্বোপ্রপ এয়ারক্রাফট এবং ৭০ জন যাত্রী বহন করতে সক্ষম।

বাংলাদেশ মনিটর তাদের বাৎসরিক কার্যক্রম হিসেবে ২০০৭ সালে বাংলাদেশে ‘এয়ারলাইন অব দ্য ইয়ার’ প্রবর্তন করে। এভিয়েশন ও পর্যটনবিষয়ক প্রকাশনা ‘বাংলাদেশ মনিটর’ এর জরিপের ভিত্তিতে বিজয়ীদের নির্বাচিত করা হয়।

বিগত এক বছরে যারা কমপক্ষে তিনবার আকাশপথে ভ্রমণ করেছেন, তারা অনলাইনে নিজের পছন্দের এয়ারলাইন্সকে ভোট দিতে পেরেছেন।

;