‘জনগণ ভোট কেন্দ্রে গেলে অপকৌশল কাজে দিবে না’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন

বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন

  • Font increase
  • Font Decrease

আসন্ন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন বলেছেন, আপনারা ৩০ তারিখ ভোট কেন্দ্রে যাবেন। আপনাদের পরিবার-পরিজনসহ এলাকার যারা আছে সবাইকে একই কথা বলবেন। কারণ জনগণ যদি ভোট কেন্দ্রে উপস্থিত হয় তাহলে কোনো ধরনের অপকৌশল কাজে দিবে না। সকল অপকৌশল ভেসে যাবে জনগণের জোয়ারে।

তিনি বলেন, গত ৯ বছরে ঢাকার পরিস্থিতি কোন দিকে গিয়েছে আপনারা ভালো করেই দেখছেন। আমি মেয়র নির্বাচিত হলে ঢাকা শহরকে একটি বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তোলার কাজ করব।

শনিবার (১৮ জানুয়ারি) কোতয়ালী থানাধীন বাংলাবাজার চৌরাস্তা মোড় থেকে গণসংযোগ শুরুর আগে সংক্ষিপ্ত পথসভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ইশরাক বলেন, আমি গতকাল যাত্রাবাড়ী, শ্যামপুর, কদমতলীসহ বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখেছি। সেখানে যে ময়লা, নোংরা-আবর্জনাকর পরিস্থিতি দেখি, আসলে মানুষের বসবাসের যোগ্য নয়। এ পরিস্থিতি শুধু যাত্রাবাড়ী, শ্যামপুর, কদমতলীতে নয় এরকম পরিস্থিতি পুরান ঢাকায়। এমন একটা পরিস্থিতির মধ্যে বসবাস করেও আমরা কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ দেখতে পাই নাই। এর কারণ, বর্তমান ক্ষমতাসীনরা অনির্বাচিত। ভোটে নির্বাচিত হলে জনগণের কাছে সরকারের দায়বদ্ধতা থাকে। অনির্বাচিত সরকার ও মেয়রের জবাবদিহিতা না থাকায় ঢাকার এই বেহাল অবস্থা।

সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার ছেলে বলেন, আমি যদি মেয়র নির্বাচিত হয় তাহলে একদিকে আপনাদের অধিকারের আন্দোলন চালিয়ে যাব, গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠার আন্দোলন চালিয়ে যাব, অন্যদিকে ঢাকা নগরীকে একটি বাসযোগ্য নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো। আমরা পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা বজায় রেখে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা আধুনিকায়ন করব। নিরাপদ পানির ব্যবস্থাসহ সকল সমস্যার সমাধান আমি করতে চাই।

এসময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব-উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, এসএম জিলানী, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, সিনিয়র সহ-সভাপতি মোরতাজুল করিম বাদরু, রফিক শিকদার, শরিফ হোসেনসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী এবং স্থানীয় বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।