ইভিএমে ভোট দেবেন যেভাবে



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ইভিএম, ছবি: সংগৃহীত

ইভিএম, ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রথমবারের মতো রাজধানীর সকল ভোট কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) পদ্ধতিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

ইভিএম ভীতি এড়াতে বৃহস্পতিবার (৩০ জানুয়ারি) রাজধানীর সকল ভোট কেন্দ্রে মক ভোট আয়োজন করে নির্বাচন কমিশন। এছাড়াও নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণের পর থেকেই নির্বাচন কমিশন বিভিন্নভাবে ইভিএমের প্রচার প্রচারণা চালাতে থাকে।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, একটি ইভিএমে প্রায় চার হাজার পর্যন্ত ভোট দেওয়া যায়। সর্বোচ্চ ৬৪ জন প্রার্থীর নাম দেওয়া যায়। অশিক্ষিত কিংবা অল্প শিক্ষিতরাও খুব সহজে বাটন চেপে ভোট দিতে পারেন। একটি ভোট দিতে প্রায় ১৪ সেকেন্ডের মতো সময় লাগে।

ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে একটির বেশি ভোট দিতে পারবেন না। ইভিএমেও প্রার্থীর পক্ষে পোলিং এজেন্টরা ভোটকেন্দ্রে থাকবে। মেশিনটিতে একটি পূর্ব-প্রোগ্রামিং করা মাইক্রোচিপ থাকে, যা প্রতিটি ভোটের ফল তাৎক্ষণিকভাবে হিসাব করে প্রদর্শন করে।

ইভিএমে ভোট দেবেন যেভাবে

ভোটকেন্দ্রের নির্ধারিত কক্ষে প্রিজাইডিং কর্মকর্তা আপনার জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্মার্টকার্ড, আঙুলের ছাপ, ভোটার নম্বর যাচাইয়ের উদ্দেশে কার্ডটি একটি মেশিনে প্রবেশ করাবেন। এ সময় আপনার ছবি ও তথ্যাবলি একটি মনিটরে প্রদর্শিত হবে। প্রার্থীর পোলিং এজেন্টও আপনার তথ্যাবলি দেখতে পারবেন।

ভোটার হিসেবে চিহ্নিতকরণ হয়ে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে ইভিএম মেশিনগুলো ভোট প্রদানের জন্য সচল হবে। মেশিনের ওপরে প্রার্থীদের প্রতীক বাম দিকে থাকবে। ডান পাশে প্রার্থীর নাম থাকবে। যতগুলো পদের জন্য ভোট প্রদান করতে হবে কক্ষের ভেতরে ঠিক ততগুলো ডিজিটাল ব্যালট ইউনিট রাখা থাকবে।

ভোটাররা তাদের পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে চাইলে নামের পাশে থাকা সাদা বাটনে চাপ দিতে হবে। এ সময় প্রতীকের পাশে একটি বাতি জ্বলতে দেখা যাবে। ভোট নিশ্চিত করতে চাইলে নিচে থাকা সবুজ বাটনে চাপ দিলে ভোট প্রদান প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

তবে ভুল প্রার্থী বা প্রতীককে বেছে নিলে সেটাও সংশোধনের ব্যবস্থা রয়েছে। তবে সেটা অবশ্যই সবুজ বাটন চাপ দেওয়ার আগে করতে হবে। ভুল সংশোধনের ক্ষেত্রে নিচে থাকা লাল বাটনে চাপ দিলেই ভুল হওয়া ভোটটি বাতিল বলে গণ্য হবে। এরপর আগের দেওয়া পদ্ধতি অনুসরণ করেই পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে পারবেন ভোটাররা।

সবুজ বাটন চাপ দেয়ার পর আপনার ভোট দেয়া প্রতীক ছাড়া বাকি সব প্রতীক অদৃশ্য হয়ে যাবে। এতে আপনি নিশ্চিত হবেন যে, ওই প্রতীকে আপনার ভোট প্রদান প্রক্রিয়া সঠিকভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

তবে একটি বিষয় মনে রাখতে হবে ভোটারদের, ইভিএম মেশিনের নিচের দিকে থাকা সবুজ বাটন চাপ দেওয়ার পরে কোনো অবস্থাতেই আর ভোট সংশোধন করা যাবে না।