‘দেশি গার্ল’র তালে ঐশ্বরিয়া কন্যার নাচ



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
বাবা-মায়ের সঙ্গে আরাধ্য বচ্চন

বাবা-মায়ের সঙ্গে আরাধ্য বচ্চন

  • Font increase
  • Font Decrease

মেয়ের আরাধ্য বচ্চনের হাত ধরে হাঁটার কারণে প্রায় সময়ই খবরের শিরোনামে আসে ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনের নামটি। এমনকি আজেবাজে নানা প্রশ্নেরও সম্মুখিন হতে হয় বলিউডের এই অভিনেত্রী। আবার কেউ কেউ তো মন্তব্য করে যে, আরাধ্যর পায়ে সমস্যা থাকার কারণেই নাকি অ্যাশ সবসময় তার হাতটি ধরে রাখেন।

তবে সেসব আজেবাজে প্রশ্নের কড়া জবাব দিয়ে দিয়েছে আরাধ্য বচ্চন। বলিউডের জনপ্রিয় গান ‘দেশি গার্ল’-এর তালে কোমর দোলাতে দেখা গেছে আরাধ্যকে। আর সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়তেই রীতিমতো ভাইরাল হয়ে গেছে।

সম্প্রতি স্বামী অভিষেক বচ্চন ও মেয়ে আরাধ্য বচ্চনকে নিয়ে এক কাজিনের বিয়েতে অংশ নিয়েছিলেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। সেখানেই ‘দেশি গার্ল’র তালে বাবা-মায়ের পাশাপাশি কোমর দোলাতে দেখা গেছে আরাধ্যকে।

অভির কথা ও সুরে মাহাদিয়ার প্রথম মৌলিক গান, নির্দেশনায় নামিরা



কামরুজ্জামান মিলু, কন্ট্রিবিউটিং এডিটর, বার্তা ২৪.কম
অভির কথা ও সুরে মাহাদিয়ার প্রথম মৌলিক গান, নির্দেশনায় নামিরা

অভির কথা ও সুরে মাহাদিয়ার প্রথম মৌলিক গান, নির্দেশনায় নামিরা

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের সবচেয়ে সফল-সুখী-আদর্শ তারকা দম্পতি নাইম-শাবনাজ। তাদের দুই কন্যা নামিরা ও মাহাদিয়া। ছোট মেয়ে মাহদিয়ার ছোট বেলা থেকেই গানের প্রতি ছিল ভালোলাগা, ভালোবাসা।  এবার মাহাদিয়া আসছে তার জীবনের প্রথম মৌলিক গান নিয়ে। গানের শিরোনাম ‘দিনগুণে’। গানটি লিখেছেন ও সুর করেছেন সাংবাদিক অভি মঈনুদ্দীন।

গানের শিরোনাম ঠিক করেছেন মাহাদিয়ার বড় বোন নামিরা নাইম। গানের সার্বিক তত্ত্বাবধান এবং অনুপ্রেরণায় রয়েছেন মাহাদিয়া ও নামিরার বাবা-মা নাইম-শাবনাজ।

জীবনের প্রথম মৌলিক গান প্রসঙ্গে মাহাদিয়া বলেন, ‘অভি আঙ্কেলের সঙ্গে আমাদের পরিবারের সম্পর্কটা একেবারেই পারিবারিক। সেই ছোট্টবেলা থেকেই অভি আঙ্কেলকে দেখে আসছি। কিছুদিন আগে এক ঘরোয়া আড্ডায় অভি আঙ্কেল-ইউসুফ আঙ্কেলের সঙ্গে বসে গান নিয়ে পরিকল্পনা করা হয়।

তখনই মূলত দিনগুণে গানটি আমার শোনা হয়। আমি যে ধরনের গান করার কথা ভাবছিলাম, ঠিক সে ধরনেরই গান এটি। গানের কথা খুব সহজ সুন্দর এবং গানের সুরও আমার কাছে ভীষণ ভালো লেগেছে। তাই এই গানটি করা। জীবনের প্রথম মৌলিক গান নিয়ে নিজের মধ্যে ভীষণ উচ্ছ্বাস কাজ করছে। সবার প্রতি গানটি শোনার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল।’

নামিরা বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আসলে আমি ক্যামেরার পেছনে থাকতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করতাম। বাবা যখন নাটক নির্মাণ করতেন, তখন আমি ক্যামেরার পেছনে বা মনিটরের সামনে বসে থাকতাম। সেখান থেকেই আসলে নির্মাণের প্রতি আমার আগ্রহ। নিজের বোনের প্রথম মৌলিক গান, ভালোলাগা থেকেই আসলে তার গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণের পরিকল্পনা, শুটিং লোকেশন ঠিক করা, সর্বোপরি সবই আমার করা।

গানটির মধ্যে একধরনের তারুণ্যের উদ্যমতা রয়েছে। আমার সৃষ্টি আশা করি সবার ভালো লাগবে। আর বাবা-মায়ের আশীর্বাদ তো রয়েছেই।’

অভি মঈনুদ্দীন বলেন, ‘মাহদিয়ার প্রজন্মের শোতা-দর্শকের জন্য উপযোগী একটি সুন্দর গান হয়েছে। শ্রোতাদের আশা করছি ভালো লাগবে। আমি নাইম ভাইয়া ও শাবনাজ আপুর প্রতি কৃতজ্ঞ আমাকে মাহাদিয়ার জন্য গান লেখা ও সুর করার সুযোগ করে দেয়ার জন্য।’

গানের সংগীত পরিচালনায় আছেন ইউসুফ আহমেদ খান এবং সংগীতায়োজনে সাউন্ডহ্যাকার। গানটির মিউজিক ভিডিও নির্মাণ করেছেন নামিরা নাইম, সিনেমাটোগ্রাফি ও সম্পাদনায় আছেন আবির স্বপ্নবাজ।

মাহদিয়া জানান, ৬ জুলাই দুপুরের পর তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলের পাশাপাশি Spotifz, Apple Music, Amazon Music প্ল্যাটফরমেও গানটি প্রকাশ পায়। উল্লেখ্য, নামিরা ও মাহাদিয়াকে মিউজিক ভিডিও নির্মাণে সহযোগিতা করেছেন তাদের দুই সহকারী মোমিন ও কমলা।

;

মণিরত্নমের ‘পুণ্যিয়ানি সেলভানে' রানি নন্দিনী ঐশ্বরিয়া



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা ২৪.কম
ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন

ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন

  • Font increase
  • Font Decrease

দীর্ঘ বিরতির পর আবার পর্দায় ফিরছেন বলিউড তারকা বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। ‘পুণ্যিয়ানি সেলভান’ দিয়ে পর্দায় কামব্যাক করছেন তিনি। মণিরত্নম পরিচালিত এই তামিল ছবির প্রধান চরিত্র নন্দিনী। ছবিতে নন্দিনী এবং তার মা মন্দাকিনী দেবী, দ্বৈত চরিত্রে অভিনয় করেছেন ঐশ্বরিয়া।

এই পিরিয়ডিক ড্রামায় 'নন্দিনী'-র বেশে ঐশ্বর্যর ফার্স্ট লুক প্রকাশ্যে এসেছে। লাইকা প্রযোজনা সংস্থার তরফে টুইট করা হয়েছে নীল নয়না সুন্দরীর এই লুক। লেখা রয়েছে, 'প্রতিহিংসার সুন্দর মুখ! দেখা করুন নন্দিনীর সঙ্গে, পাজুভোর-এর রানি।' ছবিতে ঐশ্বর্য ছাড়া আরও অভিনয় করছেন বিক্রম, কার্তি, জয়াম রবি, তৃষা কৃষ্ণন এবং মোহন বাবু।

তামিল লেখক কল্কি কৃষ্ণমূর্তির ঐতিহাসিক উপন্যাস ‘পুণ্যিয়ানি সেলভান’ অবলম্বনে তৈরি এই ছবি। ছবির গল্প দশম শতাব্দীতে চোল সাম্রাজ্যের একটি উত্তাল সময়ের প্রেক্ষাপটে তৈরি। যখন শাসক পরিবারের অন্তর্দ্বন্দ্বের ফলে সম্রাটের সম্ভাব্য উত্তরসূরিদের মধ্যে হিংসাত্মক পরস্থিতির সৃষ্টি হয়।

;

আবার একসাথে হিমি-সালমান



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা ২৪.কম
আবার একসাথে হিমি-সালমান

আবার একসাথে হিমি-সালমান

  • Font increase
  • Font Decrease

 

সালমান মুক্তাদির ও জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি। নতুন এই করে এক সাথে কাজ করলেন। কোরবানির ঈদ উপলক্ষে তাদের একসঙ্গে দেখা যাচ্ছে ‘আমি প্রেমিক হতে চাই’ নামের নাটকে। মিষ্টি প্রেমের গল্পে নাটকটি রচনা করেছেন লিমন আহমেদ। নাটকটি পরিচালনা করেছেন জিয়াউদ্দিন আলম। সম্প্রতি এই নাটকের দৃশ্যধারণের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এটি প্রচার হচ্ছে রবি বিঞ্জ অ্যাপে।

নাটকটিতে সালমান ও হিমি ছাড়াও অভিনয় করেছেন মাসুম রেজওয়ান, জাকি আহমেদ জারিফ, আলভী প্রীতি, রাসেল আহমেদ, ডিকন প্রমুখ।

পরিচালক জিয়াউদ্দিন আলম বলেন, ঈদ উৎসবে দর্শক যে ধরণের গল্প পছন্দ করেন তেমন একটি নাটক ‘আমি প্রেমিক হতে চাই’। পারিবারিক বন্ধন, বন্ধুত্ব, প্রেম; এসব নিয়ে নাটকের গল্পটি। দর্শক উপভোগ করলেই আমাদের শ্রম স্বার্থক হবে।

উল্লেখ্য, ৪ বছর আগে সর্বশেষ ২০১৮ সালে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন সালমান মুক্তাদির ও জান্নাতুল সুমাইয়া হিমি।

;

বাণিজ্যিক সিনেমায় অনুদান বন্ধের দাবির প্রতিবাদ



স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
বাণিজ্যিক সিনেমায় অনুদান বন্ধের দাবির প্রতিবাদ

বাণিজ্যিক সিনেমায় অনুদান বন্ধের দাবির প্রতিবাদ

  • Font increase
  • Font Decrease

 

বাণিজ্যিক চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান বন্ধের জন্য গুটিকয়েক নির্মাতার দাবিকে চলচ্চিত্র শিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্র ও হীন স্বার্থপর অপতৎপরতা বলে এর তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন দেশের চলচ্চিত্র শিল্পী, পরিচালক, প্রযোজক, প্রদর্শক ও চলচ্চিত্রগ্রাহক সমিতি এবং ফিল্ম এডিটরস গিল্ডসহ সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদ।

বুধবার (০৬ জুলাই) পৃথক পৃথক স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে তারা বলেন- 'গত ৪ জুলাই সোমবার রাজধানীর শাহবাগে কয়েকজন চলচ্চিত্র নির্মাতা বাণিজ্যিক চলচ্চিত্রে সরকারি অনুদান বন্ধের দাবি জানান। চলচ্চিত্র শিল্পের জন্য, দেশের জন্য এবং সর্বোপরি মানুষের সুস্থ বিনোদনের জন্য ক্ষতিকর এই দাবি আমরা কোনোভাবেই সমর্থন করি না এবং এটিকে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে চলচ্চিত্র শিল্পের ঘুরে দাঁড়ানোর বিরুদ্ধে একটি ষড়যন্ত্র। আমরা সিনেমা অঙ্গনের মতলববাজ-ধান্দাবাজদের বিচার প্রার্থনা করি।'

চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, দেশের মানুষ যে চলচ্চিত্র দেখতে চায়, হলে যায়, সেই চলচ্চিত্রকে সহায়তা দেওয়া যারা বন্ধ করতে বলে, তাদের সাথে আমরা শিল্পীরা নেই। আমরা তাদের এ ধরনের স্বার্থপর দাবির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই।

চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির সভাপতি ও সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদের নেতা সোহানুর রহমান সোহান বলেন, সরকারি নীতিমালা পুরোপুরি অনুসরণ করে দেশের চলচ্চিত্র নির্মাতা-বোদ্ধাদের নিয়ে গঠিত কমিটিই অনুদান প্রদান করে। 'সরকার যে চলচ্চিত্র শিল্পকে রক্ষার চেষ্টা করছে, একে ধ্বংসের হাত থেকে রক্ষা করতে সম্মিলিত চলচ্চিত্র পরিষদ বুকের রক্ত দিতেও দ্বিধা করবে না' বলেন তিনি।

চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির পক্ষে সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু বলেন, স্বার্থপর আন্দোলনকারীদের বক্তব্য ভিত্তিহীন, উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং স্বার্থসিদ্ধিমূলক। আমরা এ ধরণের অপতৎপরতার তীব্র প্রতিবাদ জানাই।

বাণিজ্যিক সিনেমায় না দিয়ে আর্ট ফিল্মে অনুদান দেয়াকে জনগণের অর্থে জনগণের সাথে প্রতারণা উল্লেখ করে চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস বলেন, সরকার যখন আর্ট ফিল্মের জন্য লাখ লাখ টাকা দিচ্ছে, তখন থেকেই আমরা বলে আসছি, সাধারণ দর্শক যে সিনেমা দেখার জন্য হলে আসে না, সেসব সিনেমাকে সরকারি অর্থ দেয়া প্রকৃত সিনেমাপ্রেমীদের সাথে প্রতারণা।

চলচ্চিত্র প্রযোজক সমিতির পক্ষে সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম খসরু, চলচ্চিত্রগ্রাহক সমিতির সভাপতি আবদুল লতিফ বাচ্চু এবং ফিল্ম এডিটরস গিল্ড সভাপতি আবু মুসা দেবুও পরিচালক সমিতির সঙ্গে একমত হয়ে বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন।

উল্লেখ্য তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় গত তিন বছরে (২০২০-২১-২২) ৫৭টি পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রের পাশাপাশি আর্টফিল্ম, ডকুড্রামা ও প্রামাণ্যচিত্রসহ ২৫টি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রকে অনুদান দিয়েছে, যা আগের বছরগুলোর তুলনায় সংখ্যা ও অনুদানের অর্থ দুই মাপকাঠিতেই বেশি।

;