‘টোনাটুনির ভালোবাসা’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
‘টোনাটুনির ভালোবাসা’ নাটকের দৃশ্য

‘টোনাটুনির ভালোবাসা’ নাটকের দৃশ্য

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলা নববর্ষ উপলক্ষ্যে নির্মিত হলো বিশেষ নাটক ফাল্গুনে ভালোবাসা বৈশাখে প্রেম ‘টোনাটুনির ভালোবাসা’।

সাগর জাহানের রচনা ও পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করেছে তাহসান খান এবং তানজিন তিশা।

গল্পে দেখা যাবে- আবির (তাহসান) পায়ে ফ্রেকচার নিয়ে ঘরে বসা আজকে প্রায় তিন মাস। আর যেন ঘরে মন টেকেনা। কিন্তু কুয়াশা (তানজিন তিশা) কোন ভাবেই ডাক্তারের কথা মতো তিন মাস রেস্ট ছাড়া আবিরকে ছাড়বে না। শেষ কয়টা দিন ঘরে আটকানোর জন্য কুয়াশা আরো কঠিন হয়। আর তারা কি ভাবে চলবে সেটার একটা লিস্ট করে এবং সাথে একটা গেইম খেলে আবিরকে ব্যস্ত থাকার ব্যবস্থা করে কুয়াশা।

যে গেইমটা একজন আরেকজনকে এমন প্রশ্ন করবে যেটা আবির কুয়াশার অজানা। সেই না জানা উত্তর জানতে গিয়ে তাদের ব্যক্তিগত জীবনের জটিল বিষয় বের হয়ে আসে। তেমন দুইটা প্রশ্নের একটা প্রশ্ন বলা যেতে পারে। দুজন দুজনের প্রশ্নই কমন।

প্রশ্ন- এমন গোপন কথা বলতে যেটা কোন দিন কেউ কাউকে বলিনি। তখন কুয়াশা উত্তরে বলে ক্লাশ সেভেন এইটের দিকে কারো কারো একটা টিনেজ প্রেম হয়.. যেটা ইমমেচুয়ূর্ট প্রেম.. যে প্রেমটা টেকেও না বেশীর ভাগ সময়.. তেমন একটা প্রেম কুয়াশার হয়। যেটা স্কুল লাইফে দুই পরিবার জানাজানির মধ্যে দিয়ে শেষ হয়ে গিয়েছিল।

কিন্তু প্রবলেম হচ্ছে অনেক বছর পর মানে যেদিন কুয়াশার হলুদ সেদিন সেই স্কুল লাইফের প্রেমিক তারেক কুয়াশাকে ফোন দেয়। বিয়ের দিনও ফোন দেয়। ফোন দিয়ে শুধু তারেক বলে সে এখনও তাকে ভালবাসে আর বিয়ে করতে প্রস্তত। তাই কুয়াশাকে বিয়ে না করে তার কাছে চলে আসতে বলে। কিন্তু ততক্ষনে অনেক দেরি হয়ে যায়। কুয়াশারও বিয়ে হয়ে যায়।

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে বিয়ের পরেও তারেক ফোন দিত, আর কুয়াশাও কথা বলত আবিরকে না জানিয়ে। একটা অন্যরকম ভালবাসা শুরু হয় কুয়াশা আর তারেকের। কিন্তু যখন কুয়াশা বুঝতে পারে বিষয়টা ঠিক হচ্ছে না তখন কুয়াশা সরে আসার চেষ্টা করে। এই সত্য গোপন কথাটাই বলে। আর সেই সত্যই কাল হয়ে দাঁড়ায়। যদিও গল্পে এক সময় আবিরও একটা কথা বলে যেটা কুয়াশা জানত না, মেনে নিতে কষ্ট হয়। এই জানা জানির শেষ কোথায় দেখতে হলে নাটকের শেষ পর্যন্ত দেখতে হবে...।

১৪ এপ্রিল রাত ১০টায় আরটিভিতে প্রচার হবে নাটকটি।