‘আমরা প্রত্যেকেই কোনো না কোনো ভাবে সংখ্যালঘু’



বিনোদন ডেস্ক, বার্তা ২৪.কম
ছবি: সংগ্রহ

ছবি: সংগ্রহ

  • Font increase
  • Font Decrease

কুমিল্লার পূজামণ্ডপে মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন শরীফ পাওয়া এবং সেটিকে কেন্দ্র করে দেশে বেশ কয়েকটি মন্দিরে হামলা ও পুলিশের সাথে হামলাকারীদের সংঘর্ষের ঘটনা নিয়ে সামাজিক মাধ্যম সরব। গুজবও ছড়ানো হচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের অনেকেই বিষয়টি নিয়ে সকলকে সচেতনত ও পরমতসহিষ্ণু হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। তারই মধ্যে একজন নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকী। সকল মতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়ার বিষয়টি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই নানা ইস্যুতে লিখছেন তিনি। এ ইস্যুতেও তিনি লিখেছেন।

প্রতিটি ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করে ফারুকী লিখেছেন- এখন আমরা কি করতে পারি? ঘটনা যা যা ঘটেছে সেটা ঠিকঠাক তদন্ত করে সবার সামনে তুলে ধরা। দ্রুততার সাথে এই হামলার ঘটনাগুলার সাথে যারা যারা জড়িত তাদের শাস্তির ব্যবস্থা করা। আগামীতে যেনো এইরকম কিছু না ঘটে তার জন্য যা যা ব্যবস্থা নেয়ার সেটা নেয়া।”

“আলেম সম্প্রদায়ের উচিত এই ঘটনার নিন্দা করে বয়ান দেয়া।”-যোগ করেন ফারুকী।

তবে, সবচেয়ে যে বিষয়টির উপর তিনি জোর দিয়েছেন তা হলো সংখ্যা লঘু সম্প্রদায়ের উপর এ ধরণের হামলার সমালোচনা করা। সংখ্যালঘু হলেও তারা যে একা নন তা মনে করিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন ফারুকী। তিনি বলেন, “সবচেয়ে বেশী দরকার যেটা সেটা হচ্ছে, প্রত্যেকেই যার যার জায়গা থেকে এই ঘটনার নিন্দা করা। হিন্দু বন্ধু এবং প্রতিবেশীকে জানানো, তুমি একা নও! এখন তাকে একা বোধ না করতে দেয়াই হচ্ছে সবচেয়ে বড় কাজ ! এই সময় এক জগতবিধ্বংসী ক্ষোভ-অভিমান চেপে বসে। তার হাতটা চেপে ধরে বলি চলেন, ‘ইউ আর নট অ্যালোন’।”

শুধু ধর্মীয় প্রেক্ষাপটেই নয়, নানা ক্ষেত্রে আমরা নিজেরাও কখনো কখনো সংখ্যালঘু হয়ে পড়ি। বিষয়টি উপলব্ধি করার আহ্বান জানিয়েছেন স্যোসাল মিডিয়ায় দারুণ জনপ্রিয় এ নির্মাতা।

“আমরা প্রত্যেকেই কোনো না কোনো ভাবে সংখ্যালঘু। কেউ রাজনৈতিক সংখ্যালঘু, কেউ সামাজিক সংখ্যালঘু, কেউ অর্থনৈতিক সংখ্যালঘু। ফলে দুর্বলের বেদনা, মজলুমের জ্বালাতো আমাদের না বোঝার কথা না! আল্লাহ যেনো আমাদেরকে সকল প্রকার মজলুমের বেদনা উপলব্ধি করার তৌফিক দান করেন। অন্য দেশে সংখ্যালঘু মুসলমানকে অত্যাচার করলে আমাদের হৃদয় যেমন ব্যথিত হয়, নিজের দেশে সংখ্যালঘু হিন্দু বা অন্য কেউ অত্যাচারিত হলেও আমাদের হৃদয় যেনো সেটা একই ভাবে উপলব্ধি করতে পারে, আল্লাহ যেনো আমাদের এই তৌফিক দান করেন।”

 ফারুকীর স্ট্যাটাসটি প্রকাশ করার দু’ঘন্টার মধ্যেই তা ভাইরাল হয়েছে। প্রতিবেদনটি লেখার সময় পর্যন্ত প্রায় দশ হাজার লাইক ও সাড়ে পাঁচশ শেয়ার হয়েছে এটি।