করোনাভাইরাস কোন জিনিসে কতদিন বাঁচে

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
করোনাভাইরাস

করোনাভাইরাস

  • Font increase
  • Font Decrease

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সচেতনতার অংশ হিসাবে আমরা ঘনঘন সাবান দিয়ে হাত ধুয়ে নিচ্ছি। বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করছি। অনেকে গ্লাভস ব্যবহার করছি। কিন্তু মাস্ক কিংবা গ্লাভসের ভিতরও কি বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস? বাতাসেও কি বেঁচে থাকে তারা? বেঁচে থাকলে কতক্ষণ?

দেখা গেছে পলিপ্রোপিলিন নামক এক ধরনের প্লাস্টিকে সবচেয়ে বেশিদিন বেঁচে থাকে জীবনঘাতী করোনাভাইরাস। এসব তলের ওপর পাঁচদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে করোনাভাইরাস। বাচ্চাদের খেলনা, টিফিন বক্স, অন্যান্য বক্স, পানির জগ, মগ প্রভৃতি পলিপ্রোপিলিন দিয়ে তৈরি হয়।

কাগজে এ ভাইরাস বেঁচে থাকতে পারে ৪-৫ দিন। তবে ভারতের যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রিন্টিং ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক কানাইচন্দ্র পাল বলেছেন, খবরের কাগজের মাধ্যমে এ জীবাণু সংক্রমনের কোন আশঙ্কা নেই। কেননা কাগজ যা দিয়ে তৈরি, বিশেষ করে সংবাদপত্রের প্রক্রিয়াকরণের সময় যে সমস্ত রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়, তাতে ড্রপলেট বেঁচে থাকা অসম্ভব।

কাঁচজাতীয় বস্তুতে এ ভাইরাস ৪ দিন পর্যন্ত বাঁচতে পারে। কাঠে এ ভাইরাস ৪ দিন পর্যন্ত বাঁচতে পারে। তাই নিয়মিত কাঁচ ও কাঠের আসবাব পরিষ্কার করা উচিত।

স্টেইনলেস স্টিলে করোনাভাইরাস বেঁচে থাকতে পারে ৪৮ ঘণ্টা পর্যন্ত। তাই বাইরের কোন স্টেইনলেস স্টিলের উপর হাত দিলে সাবান দিয়ে ২০ সেকেন্ড হাত ধোঁয়া জরুরি।

সার্জিক্যাল গ্লাভসের উপরও করোনাভাইরাস ৪ ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। তাই এ ধরনের গ্লাভস ব্যবহারেও সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। নতুবা করোনা সংক্রমণ হতে পারে।

নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনের এক রিপোর্ট অনুযায়ী, তামায় করোনাভাইরাস ৪ ঘণ্টা ও বাতাসে তা ৩ ঘণ্টা পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে।

আপনার মতামত লিখুন :