কাশ্মীরে ড্রোনে করে জঙ্গিদের অস্ত্র ও টাকা দিচ্ছে পাকিস্তান: ভারতীয় পুলিশ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ভারত শাসিত কাশ্মীর উপত্যকায় জঙ্গিদের অস্ত্র ও অর্থের জোগান দিতে ইদানিং ড্রোনের ব্যবহার বাড়িয়েছে পাকিস্তান। গত শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তান ড্রোন ব্যবহার করে কাশ্মীরের রাজৌরি জেলায় অস্ত্র ও অর্থ ছড়ায় এবং তা সংগ্রহ করতে গিয়ে তিন ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে রাজ্যটির পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং। সন্ধ্যায় আটক ওই তিন ব্যক্তি ভারতে নিষিদ্ধ ঘোষিত লস্কর-ই তইয়্যেবার সদস্য বলে জানান তিনি। এনডিটিভির খবরে এ তথ্য জানা গেছে।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে রাজ্য পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং জানান, গ্রেফতার হওয়া তিন ব্যক্তি কাশ্মীরের বাসিন্দা। তারা পাকিস্তান থেকে ড্রোন করে পাঠানো অস্ত্র ও অর্থ নিতে এসেছিল। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত আরেক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা মুকেশ সিং জানান, এনিয়ে গত ১১ সেপ্টেম্বর থেকে তৃতীয় বারের মতো সফল অভিযান চালানো হলো।

এর আগে, কাশ্মীরের বালাকোটে দুই ব্যক্তির কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করা হয়েছিল। তার তিন দিন পরে সন্ত্রাসবাদ তৎপরতার জন্য অর্থ ব্যয়ের উদ্দেশ্যে ১১ কোটি টাকা মূল্যের ১১ কেজি হেরোইন উদ্ধার করা হয়। সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নে মাদকের চালানটি আনা হয় বলে দাবি করেছে কাশ্মীর পুলিশ।

অস্ত্র ও অর্থ সংগ্রহ করতে গিয়ে আটক তিন ব্যক্তিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে জানিয়ে পুলিশ কর্মকর্তা দিলবাগ সিং জানান, তার ভিত্তিতে পরবর্তীতে আরও বেশি তথ্য জানানো সম্ভব হবে।

তবে পুলিশ প্রধান দিলবাগ সিং জানিয়েছেন, পুলিশ, সেনাবাহিনী ও অন্যান্য বাহিনী একসঙ্গে পাকিস্তানের নকশাকে নস্যাৎ করবে এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে শান্তি ও আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখতে কাজ করছে।