আমিরাতে ৭ জুলাই পর্যন্ত বাংলাদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা



স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

আরব আমিরাতের ইত্তেহাদ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে আগামী ৭ জুলাইয়ের আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ থেকে কোন ফ্লাইট পরিচালনা করবে না তারা। ইত্তেহাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বিষয়টি নিশ্চিত করে বলা হয়েছে, সময় আরও বাড়ানো হতে পারে।

আরও বলা হয়েছে, সম্প্রতি যারা পাকিস্তান, বাংলাদেশ, নেপাল অথবা শ্রীলংকা ভ্রমণ করেছেন তারাও আরব-আমিরাতে প্রবেশ করতে পারবেন না। তবে যারা কূটনৈতিক, আমিরাতের নাগরিকত্ব রয়েছে বা গোল্ডেন ভিসা হোল্ডার তারা এই নিয়মের আওতায় থাকবে না। এক্ষেত্রে আমিরাতের উদ্দেশে রওনা দেওয়ার পূর্বে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পিসিআর টেস্ট করাতে হবে।

বিশেষ ক্ষেত্রে যাত্রী পরিবহন বজায় থাকায় উক্ত দেশগুলো থেকে ফ্লাইট সচল দেখানো হবেও বলে জানায় এয়ারলাইন্সটি। ১৪ জুন বিকেল ৫টা পর্যন্ত ওয়েবসাইটে নতুন বিধিনিষেধ বিষয়ে তথ্য হালনাগাদ করেনি ইত্তেহাদ। ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, পরবর্তী নোটিশ দেওয়ার আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও শ্রীলংকা থেকে যাত্রী পরিবহন স্থগিত থাকবে।

প্রসঙ্গত, গত ১২ মে প্রথম বাংলাদেশ, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলংকা থেকে যাত্রী প্রবেশ স্থগিত করে আরব-আমিরাত। যদিও সচল রয়েছে কার্গো ফ্লাইটগুলো। এছাড়া, গত সপ্তাহে দেশটি জানায় ভারত থেকে যাত্রী পরিবহন আগামী ৬ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত থাকবে।

বর্তমানে আরব আমিরাত থেকে ১০ দেশে যাত্রী প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। এই দেশগুলো হলো, ভারত, পাকিস্তান, বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, নেপাল, ভিয়েতনাম, দক্ষিণ আফ্রিকা, জাম্বিয়া, ডি আর কঙ্গো এবং উগান্ডা। এ নিষেধাজ্ঞার কারণে অনেক অভিবাসী শ্রমিক দেশটিতে আটকা পড়েছেন।