ইসরায়েল সমর্থনের কারণে কোন পথে বাইডেনের রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ?



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইসরায়েল-হামাসের চলমান সংঘাতকে শুরু থেকেই কুটনৈতিকভাবে সমর্থন জানিয়ে আসছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ২০২৪ সালেই অনুষ্ঠিত হবে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন। এর মাঝেই বাইডেনের এমন ইসরায়েল সমর্থনকে সমালোচনা করে তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে এক হচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিমরা।

সম্প্রতি করা এক জরিপে দেখা গেছে, আরব-আমেরিকান মুসলিমদের মধ্যে জনপ্রিয়তা হারিয়েছেন বাইডেন। ২০২০ সালে সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম তাকে সমর্থন করতেন। কিন্তু বিগত চার বছরের মধ্যেই এতে বড় ধস নেমেছে। এখন মাত্র ১৭ শতাংশ মুসলিম বাইডেনকে সমর্থন করেন।

রোববার (৩ ডিসেম্বর) বার্তাসংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গাজায় ইসরাইলের নৃশংসতায় সমর্থন দিয়ে যাচ্ছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও তার প্রশাসন। তার এ কর্মকাণ্ডের ফলে ক্ষুব্ধ যুক্তরাষ্ট্রের মুসলিমরা। এই কারণে তার বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে মুসলিমদের এক হওয়ার ডাক দিচ্ছেন নেতারা।

২০২০ সালের নির্বাচনে বাইডেনের প্রেসিডেন্ট হওয়ার নেপথ্যে যুক্তরাষ্ট্রের ছয়টি অঙ্গরাজ্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এসব রাজ্যের ভোটারদের একটা উল্লেখযোগ্য অংশ মুসলিম ও আরব-আমেরিকান। তারা আসন্ন নির্বাচনে বাইডেনের জয়ের পথে বড় বাধা হয়ে উঠতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রে মুসলিমদের নাগরিক অধিকার রক্ষায় কাজ করে কাউন্সিল অন আমেরিকান-ইসলামিক রিলেশনস (সিএআইআর) নামে একটি সংগঠন। সংগঠনটির মিনেসোটা শাখার পরিচালক জায়লানি হুসেইনকে বাইডেনের বিকল্প নিয়ে প্রশ্ন করা হয়। এতে তিনি বলেন, আমাদের কাছে অনেক বিকল্প প্রার্থী আছে।  

প্রসঙ্গত ২০২৪ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাচনে নির্বাচনে লড়বেন বাইডেন। তাই আসন্ন নির্বাচনে বাইডেনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে মুসলিমদের একত্রিত করবেন তারা। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে মুসলিমরা কাকে সমর্থন দেবে, সেটি অবশ্য তারা স্পষ্ট না করলেও বাইডেন প্রশাসনের প্রতি তাদের তীব্র ক্ষোভ দেখা যাচ্ছে।

সম্প্রতি গাজায় ইসরায়েল হামলা বন্ধে এবং যুদ্ধবিরতির পক্ষে সোচ্চার হন আমেরিকার মুসলিমরা। কিন্তু বাইডেন এতে সাড়া না দেওয়ায় মিনেসোটা থেকে ‘#অ্যাবানডন বাইডেন’ নামে একটি প্রচারাভিযান শুরু হয়। এরপর তা ছড়িয়ে পড়ে মিশিগান, অ্যারিজোনা, উইসকনসিন, পেনসিলভানিয়া ও ফ্লোরিডা অঙ্গরাজ্যেও।

আমেরিকার মুসলিমরা বলছেন, জো বাইডেনকে প্রত্যাখ্যান করার কারণ যুক্তরাষ্ট্র সরকারের পররাষ্ট্রনীতিতে পরিবর্তন আনতে হলে এটাই তাদের একমাত্র উপায়।

এমন পরিস্থিতিতে ২০২৪ সালের নির্বাচনে উল্লিখিত ৬টি অঙ্গরাজ্যের রাজনীতির প্রভার পড়তে পারে বাইডেনের ক্ষমতায়। ইসরায়েল-গাজা ইস্যুতে বাইডেন এখন কী ধরনের কুটনৈতিক অবস্থান নেয় তাই দেখার বিষয়।



   

ইরানে ইসরায়েলি গুপ্তচরের ফাঁসি কার্যকর



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি ওয়ার্কশপে ড্রোন হামলায় জড়িত থাকার দায়ে ইসরায়েলি গুপ্তচর সংস্থা মোসাদের এক গুপ্তচরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে। দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে বোমা হামলার পরিকল্পনা করছিল বলে অভিযোগ এনে ইসরায়েলি এই গুপ্তচরকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে ইরান।

ইরানের রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তাসংস্থা আইআরএনএ ও সংবাদমাধ্যম দ্য সানের পৃথক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবার (২ মার্চ) দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিস্তান-বালুচিস্তান প্রদেশের জাহেদান কারাগারে ইসরায়েলি ওই গুপ্তচরের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়। তবে তার নাম কিংবা পরিচয় প্রকাশ করা করা হয়নি।

২০২৩ সালের ২৮ জানুয়ারি ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছিল, প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ইস্ফাহানস্থ একটি ওয়ার্কশপে কয়েকটি ছোট্ট ড্রোনের সাহায্যে হামলা চালানো হয়। কিন্তু আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে ঐ হামলা ব্যর্থ করে দেওয়া হয়।

ইস্ফাহানের বিচার বিভাগের প্রধান হুজ্জাতুল ইসলাম জাফারি এ সম্পর্কে বলেছেন, এই ব্যর্থ হামলার পর মোসাদের ঐ গুপ্তচর নিজের পরিচয় গোপন করে ইরান থেকে পালিয়ে যায়। এর ১৩ দিন পর ইরানের বিচার বিভাগের সহযোগিতা ও নিরাপত্তা বাহিনীর প্রচেষ্টায় তাকে একটি প্রতিবেশী দেশ থেকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর আদালতের মাধ্যমে বিচার প্রক্রিয়া শেষে রোববার (৩ মার্চ) তার মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হয়েছে।

;

বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিল ভারত



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

বাংলাদেশে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিয়েছে ভারত। দেশটির রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা ন্যাশনাল কো-অপারেটিভ এক্সপোর্ট লিমিটেডের (এনসিইএল) মাধ্যমে এই পেঁয়াজ বাংলাদেশে রফতানি করা হবে।

সোমবার (৪ মার্চ) ভারতের বৈদেশিক বাণিজ্যবিষয়ক মহাপরিচালকের দফতরের (ডিজিএফটি) (ডিজিএফটি) এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশের পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৪ হাজার ৪০০ টন পেঁয়াজ রফতানি করবে নয়াদিল্লি।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশে পেঁয়াজ রফতানির জন্য ভোক্তা বিষয়ক বিভাগের সঙ্গে পরামর্শ করে জাতীয় কো-অপারেটিভ এক্সপোর্ট লিমিটেড (এনসিইএল) একটি রূপরেখা তৈরি করবে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলছে, পেঁয়াজ রফতানিতে ভারতের নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকলেও দেশটির সরকার বন্ধুত্বপূর্ণ কিছু দেশে নির্দিষ্ট পরিমাণ পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিয়েছে। দেশগুলোর অনুরোধের ভিত্তিতে ভারতের সরকার নির্দিষ্ট পরিমাণ পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দিয়েছে। এর আগে, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সুপারিশের ভিত্তিতে বাংলাদেশে সীমিত পরিমাণে পেঁয়াজ রফতানির অনুমতি দেয় নয়াদিল্লি।

মূল্যবৃদ্ধি ঠেকাতে ভারত ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর রফতানির ওপর ৪০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করে।

;

আগামীকাল তুরস্ক সফরে যাচ্ছেন ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট আব্বাস



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস মঙ্গলবার (৫ মার্চ) গাজা সংঘাত বন্ধ এবং ফিলিস্তিনি দলগুলোর পুনর্মিলন প্রচেষ্টা নিয়ে আলোচনার জন্য তুর্কিতে যাবেন বলে নিশ্চি করেছেন তুর্কি।প্রশাসন 

রোববার (৩ মার্চ) আন্টালিয়ার ভূমধ্যসাগরীয় ছুটির রিসর্টে একটি বার্ষিক কূটনীতি ফোরামের (আন্টালিয়া ডিপ্লোম্যাসি ফোরাম, এডিএফ) সমাপনী বক্তব্যে ফিলিস্তিনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী রিয়াদ আল-মালিকি এবং  তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও ফিলিস্তিনের পক্ষে সোচ্চার আইনজীবী হাকান ফিদান এই কথা বলেছেন। 

গত বছরের ৭ অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যকার প্রায় পাঁচ মাসের সংঘাত থামানোর জন্য নিবিড় কূটনীতির লক্ষ্যে এই সফরে যাচ্ছেন বলে জানান তিনি।

এ সপ্তাহের মধ্যে মুসলমানদের পবিত্র মাস রমজান শুরুর আগেই একটি যুদ্ধবিরতি নিশ্চিত করতে চেষ্টা করছে মিশর, কাতার এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। কয়েক সপ্তাহ ধরে দেশগুলো বিভিন্ন মধ্যস্থতার আলোচনা করে আসছে।

আল-মালিকি বলেছেন, সফরকালে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের সঙ্গে বৈঠক করবেন প্রেসিডেন্ট আব্বাস। মন্ত্রী এই সফরকে 'দুই দেশের মধ্যে বিদ্যমান চমৎকার কার্যকর সম্পর্কের প্রতিফলন' হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

ইউরোপীয় দেশগুলোকে উদ্দেশ করে ফোরামে ফিলিস্তিনের শীর্ষ কূটনীতিক আরও বলেন, 'দেশগুলোকে তাদের নিজেদের উদ্যোগ নিতে হবে এবং তাদের ফিলিস্তিন রাষ্ট্রকে স্বীকৃতি দিয়ে শুরু করতে হবে। '

ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের কথা উল্লেখ করে রিয়াদ আল-মালিকি বলেন, এই অঞ্চলে (গাজায়) ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যে 'একমাত্র বৈধ কর্তৃপক্ষ যারা গাজায় কাজ করবে এবং তা অব্যাহত রাখবে।

তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী হাকান ফিদানও দেশটিতে আব্বাসের সফর নিশ্চিত করেছেন। ফিদান বলেন, এরদোগান ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্টের কাছে গাজার সর্বশেষ পরিস্থিতি এবং যুদ্ধের গতিপথ শুনতে চেয়েছিলেন। এ বিষয়েই এরদোগান ও আব্বাসের মধ্যে আলোচনা হবে বলে জানান তিনি। 

;

রামাল্লায় বড় ধরনের অভিযান চালিয়েছে ইসরায়েল



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তা২৪.কম, ঢাকা
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

অধিকৃত পশ্চিম তীরের রামাল্লায় বড় ধরনের অভিযান চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে সোমবার (৪ মার্চ) বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, রামাল্লায় এ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় অভিযান চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী।

ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রামাল্লার আমারি শরণার্থী শিবিরে অভিযান চালানোর সময় ইসরায়েলি বাহিনী ১৬ বছর বয়সী মুস্তাফা আবু শালবাককে গুলি করে হত্যা করেছে।

ফিলিস্তিনি সূত্র জানায়, ইসরায়েলি বাহিনী ফিলিস্তিনিদের প্রশাসনিক রাজধানী খ্যাত রামাল্লায় রাতারাতি প্রবেশ করে। এসময় তারা কয়েক ডজন ফিলিস্তিনি নাগরিককে সামরিক গাড়িতে তুলে নিয়ে গেছে।

ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা ওয়ফা বলছে, ইসরায়েলি বাহিনী ক্যাম্পে হামলা চালালে সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় ফিলিস্তিনি যুবকদের ওপর গুলি চালানো হয়।

এ বিষয়ে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনীর কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

পাঁচ মাস ধরে চলা ইসরায়েলের হামলায় গাজায় এখন পর্যন্ত ৩০ হাজার ৪১০ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। যাদের বেশিরভাগই নারী ও শিশু। এ আগ্রাসনে আহতের সংখ্যা কমপক্ষে ৭১ হাজার ৭০০ জন।

এদিকে গাজায় যুদ্ধবিরতিতে মধ্যস্থতাকারী দেশ মিসর, কাতার, যুক্তরাষ্ট্র আশা করছে, পবিত্র রমজান মাসের শুরু থেকেই যুদ্ধবিরতি চুক্তি কার্যকর করা যাবে। গাজায় জিম্মি থাকা কয়েকজন ইসরায়েলিকে মুক্তি দেওয়ার বিনিময়ে ইসরায়েলে আটক কয়েক শ ফিলিস্তিনিকে মুক্তি দেওয়ার কথা বলা হয়েছে ওই প্রস্তাবে।

;