উত্তর-পূর্ব সিরিয়ায় অভিযান শুরু করবে তুরস্ক



আন্তর্জাতিক ডেস্ক, বার্তাটোয়েন্টিফোর.কম
ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

  • Font increase
  • Font Decrease

খুব শিগগির উত্তর-পূর্ব সিরিয়ায় অভিযান শুরু করবে তুরস্ক। এই অভিযানে মার্কিন সেনাবাহিনীর কোনো প্রকার হস্তক্ষেপ থাকবে না বলে জানিয়েছে হোয়াইট হাউজ।

স্থানীয় সময় রোববার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোগানের মধ্যকার ফোনালাপের পর হোয়াইট হাউজের এক বিবৃতির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। বার্তাসংস্থা- বিবিসি

বিবৃতিতে জানা যায়, উত্তর-পূর্ব সিরিয়ায় এই অভিযান তুরস্কের পাশে যুক্তরাষ্ট্র থাকছে না। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনী এই অভিযানে জড়িত থাকবে না। এবং আইএসআইএসের আঞ্চলিক 'খিলাফত'কে পরাজিত করার পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীকে অভিযান চিহ্নিত এলাকাগুলো থেকে সরিয়ে আনা হবে।

হোয়াইট হাউসের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে যে এখন থেকে এই অঞ্চলে সমস্ত ইসলামিক স্টেট বন্দীদের জন্য দায়বদ্ধ থাকবে তুরস্ক। শুধু তাই নয়, গত দুই বছরে বন্দী ইসলামিক স্টেট (আইএস) গ্রুপের যোদ্ধাদের সমস্ত দায়িত্ব নেবে তুরস্ক।

উল্লেখ্য, সিরিয়ায় অবস্থিত কুর্দি ওয়াইপিজি মিলিশিয়া সংগঠনটিকে একটি সন্ত্রাসী সংগঠন বলে মনে করে তুরস্ক। তাদের হাত থেকে অন্যান্য বাহিনীকে মুক্ত করতেই এই অভিযান চালানো বলে জানা গেছে। এদিকে ওয়াইপিজি মার্কিন সমর্থিত সিরিয়ান গণতান্ত্রিক বাহিনীর একটি প্রধান অংশ ছিল। যা মার্কিন সেনাদের সিরিয়ায় আইএসকে পরাস্ত করেতে সাহায্য করেছিলো।